আইপিএল নিলাম ২০১৮: দশ কোটির ওপর দর পেতে পারেন যাঁরা

0
1164
IPL-Auction key pla

ওয়েবডেস্ক: শনিবার বেঙ্গালুরুতে আইপিএলের মেগা নিলামের আসর বসছে। দু’দিন ব্যাপী এই নিলামের পরে নিজেদের দল তৈরি করে নেবে আইপিএলের আটটি দল। কয়েক জন পছন্দের ক্রিকেটারকে ধরে রাখা ছাড়া সব দলই আপাতত ফাঁকা। তাই নিলাম যখন শেষ হবে, তখন নতুন রূপে ফুটে উঠবে এই দলগুলি।

শনিবার এবং রবিবার ভাগ্য নির্ধারিত হবে ৫৭৮ ক্রিকেটারের। এর মধ্যে ১৬ জন মার্কি ক্রিকেটার রয়েছেন। এর মধ্যে অনেকেই অবিক্রীত থেকে যাবেন, অনেকেই প্রাথমিক দরেই বিক্রীত হবেন। আবার কয়েক জনের দর উঠবে আকাশছোঁয়া। এমনই কয়েক জন ক্রিকেটারকে বেছে দেওয়া হল যাঁদের নামের পাশে দশ কোটির প্রাইস ট্যাগ বসে যেতে পারে।

১) বেন স্টোক্স

প্রাথমিক দর – ২ কোটি

টি-২০তে শেষ ওভারের শেষ বল করা হোক, বা ব্যাট হাতে শেষ বল সামলানো হোক, বেন স্টোক্সের মতো অল-রাউন্ড ক্রিকেটার খুব কম আছে। আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দরে বিক্রীত ক্রিকেটার ছিলেন তিনিই। জিতেছেন আইপিএলের সব থেকে মূল্যবান ক্রিকেটারের পুরস্কার। পুনের হয়ে সুপারহিট ছিলেন তিনি। রয়েছে একটি শতরানও। পুনে দলটি থেকে গেলে তারা হয়তো এই ক্রিকেটারকে ধরেও রাখতে পারত। তবে স্টোক্সকে নেওয়ার পেছনে কিছু ঝুঁকিও রয়েছে। গত বছর ইংল্যান্ডে নাইটক্লাবে মারামারিতে নাম জড়িয়েছিল তাঁর। সেই মামলার বিচার চলছে। পুলিশের খবর, এপ্রিলের শেষ দিকে হাজিরা দিতে হতে পারে স্টোক্সকে।

২) মিচেল স্টার্ক

প্রাথমিক দরে – ২ কোটি

এই মুহূর্তে বিশ্বের সব থেকে ভয়ংকর বাঁ হাতি পেসার। টি-২০ ক্রিকেটের আদর্শ তিনি। ইনিংসের শেষ দিকে তাঁর হাত থেকে বেরোনো বিষাক্ত ইয়র্কার সামলাতে হিমশিম খান বিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা। বাউন্সারেও ব্যাটসম্যানদের ভিরমি খাওয়াতে পারেন তিনি। টি-২০ ক্রিকেটের ‘ডেথ ওভার’-এ ১২-এর গড়ে এখনও ৬৮ উইকেট দখল করেছেন তিনি। আইপিএলে ৩৪ উইকেট নিয়েছেন স্টার্ক।

৩) রশিদ খান

প্রাথমিক দর – ২ কোটি

আইপিএলের ইতিহাসে প্রথম আফগান ক্রিকেটার রশিদ খান। গত বছর হায়দরাবাদের হয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন এই লেগ স্পিনার। তার পর তাঁর নাম আরও বেড়েছে। এই বছর অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ লিগেও উইকেট তুলে যাচ্ছেন রশিদ। ইকনমি রেটও ঈর্ষণীয়। টি-২০ ক্রিকেটে এক থেকে ষষ্ঠ ওভারে রশিদের ইকনমি রেট ৬.৬৪, সাত থেকে পনেরো ওভারে ৫.৪৯ এবং ষোড়শ থেকে কুড়ি ওভার পর্যন্ত তাঁর ইকনমি রেট ৬.৫২।

৪) যজুবেন্দ্র চাহ্বল

প্রাথমিক দর – ২ কোটি

একার হাতেই বেঙ্গালুরুকে একাধিক ম্যাচ জিতিয়েছেন চাহ্বল। বেঙ্গালুরুতেই গত বছর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ ম্যাচে চার ওভারে ছ’উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। এর পর থেকেই সীমিত ওভারের ভারতীয় দলে জায়গা পাকা হয়ে গিয়েছে চাহ্বলের। স্পিনারদের মধ্যে আইপিএলের ইতিহাসে সাত থেকে পনেরো ওভারে সব থেকে বেশি উইকেট চাহ্বলেরই।

৫) ওয়াশিংটন সুন্দর

প্রাথমিক দর – ১.৫ কোটি

বয়স মাত্র ১৮। কিন্তু এখনই ‘স্টার ইন দ্য মেকিং’-এর তকমা পেয়ে গিয়েছিলেন ওয়াশিংটন। অশ্বিন-জাদেজার পর তাঁকেই ভারতীয় স্পিনের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ধরা হচ্ছে। গত বছর আইপিএলে পুনের হয়ে নিয়মিত খেলেছেন তিনি। এখন তো শুধু বল নয়, ব্যাট হাতেও তিনি যথেষ্ট সাবলীল। গত বছর তামিলনাড়ু প্রিমিয়ার লিগে ৭৬-এর গড়ে একটা শতরান-সহ ৪৫৯ রান করেছিলেন তিনি। তামিলনাড়ু দলে তিনি এখন নিয়মিত ইনিংস ওপেন করেন। সুতরাং যে দলই তাঁকে নিক, তাদের কাছে একটা সম্পদ হয়ে উঠবেন সুন্দর। বিশেষজ্ঞদের মতে, তিনিই এ বার সর্বোচ্চ দর হাঁকানোর অন্যতম দাবিদার।

৬) ক্রুনাল পাণ্ড্য

প্রাথমিক দর – ৪০ লক্ষ

প্রাথমিক দর দেখে অনেকের মনে হবে তিনি কী করে সর্বোচ্চ দর হাঁকাবেন। কিন্তু গত দু’বছরে তাঁর আইপিএল রেকর্ড ভালো করে দেখলে বোঝা যাবে তাঁর মতো ক্রিকেটার আইপিএল খুব কমই পেয়েছে। শুধুমাত্র হার্দিক পাণ্ড্যর দাদা হওয়ার জন্যই লোকচক্ষুর আড়ালেই থেকে যান তিনি। গত বছর আইপিএল ফাইনালে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন তিনি। ব্যাট হাতে রান হোক বা হাত ঘুরিয়ে উইকেট তোলা সবেতেই তিনি সাবলীল। ব্যাট হাতে আইপিএলে তাঁর স্ট্রাইক রেট ১৫৮.৪১। ইকোনমি রেটের বিচারেও রশিদ খান এবং সুনীল নারিনের পরেই তিন নম্বরে ক্রুনাল।

শনিবার আইপিএলের নিলামের লাইভ আপডেট পাওয়ার জন্য চোখ রাখুন খবর অনলাইনে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here