কোহলির অর্ধশতরান, প্রস্তুতি ম্যাচে জয় দিয়ে শুরু ভারতের

0
258

সানি চক্রবর্তী: বাধ সাধলেন বরুণদেব। নাহলে হয়তো সেঞ্চুরি দিয়েই গা ঘামানো শুরু করতেন বিরাট কোহলি। যাই হোক, ডার্কওয়ার্থ লুইস নিয়মের জেরে ৪৫ রানে কিউয়িদের হারিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ জয় দিয়েই শুরু করল ভারত। পাশাপাশি ভারতীয় সমর্থকদের মুখে হাসি চওড়া করে ৫৫ বলে অপরাজিত ৫২ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেললেন কোহলি। সম্প্রতি আইপিএল ও তার আগের অস্ট্রেলিয়া সিরিজটা মোটেই ব্যাট-হাতে কোহলিচিত কাটেনি। এদিন কিন্তু ফের একবার বাকি দলগুলোকে ভাবতে বাধ্য করার মতো রসদটা রেখে গেলেন ভারতীয় অধিনায়ক।

ভারতের ইনিংস চলাকালীন যখন বরুণদেব খেলার ব্যাঘাত ঘটান তখন বাকি ২৪ ওভারে ভারতের দরকার ছিল মাত্র ৬১ রান। হাতে সাত উইকেট। ক্রিজে ছন্দে ফেরা বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর বাকিটা হয়তো বলার দরকার নেই, বৃষ্টির জেরে আর খেলা না শুরু হলেও ডাকওয়ার্থ লুইসের নিয়মে জিততে কোনো অসুবিধা হয়নি ভারতের।

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনকে ম্যাচের প্রথম ভাগে ৩৮.৪ ওভারে মাত্র ১৮৯ রানে মুড়িয়ে দেন ভারতীয় বোলাররা। ইংল্যান্ডের উইকেটের সুইং কাজে লাগিয়ে সামি-হার্দিক-ভুবনেশ্বররা কুপোকাত করে দেন প্রতিপক্ষকে। চোট সারিয়ে ফেরা মহম্মদ সামি (৩-৪৭) কিউয়ি ইনিংসের শুরু থেকে উইকেট তুলতে থাকেন। পরের দিকে তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন আইপিএলের বেগুনি টুপি জেতা ভুবনেশ্বর কুমার (৩-২৮)। রবীন্দ্র জাদেজা ২ টি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও উমেশ যাদব একটি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার অজিঙ্কা রাহানে (৭) দ্রুত ফিরে গেলেও ইনিংসের হাল ধরেন শিখর-বিরাট জুটি। জ্বর থাকায় এদিন খেলতে পারেননি যুবরাজ সিং। রোহিত শর্মাও পারিবারিক অনুষ্ঠান মিটিয়ে আজ ইংল্যান্ডে পৌঁছোনোয় এদিনের ম্যাচে ছিলেন না। শিখর (৪০) ও দীনেশ কার্তিক (০) দ্রুত ফিরে গেলেও ধোনির (অপরাজিত ১৭) সঙ্গে ভালোই ইনিংস টানছিলেন বিরাট। ভারতের সেরা দুই ফিনিশারের হাতে ম্যাচের শেষপর্বটা শুধু দেখা বাকি রইল বরুণদেব বাধ সাধায়। সমর্থকরা বরং হাসিমুখে সেই অংশটা তুলে রাখতে চাইবেন ৪ জুন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শুরুর ম্যাচের জন্য।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here