ডে’ভিলিয়ার্সের ক্যাচ দেখে ‘স্পাইডারম্যান’ বললেন বিরাট, দুরন্ত ক্যাচ রাশিদ খানেরও

0
448

ওয়েবডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট মানেই অনবদ্য ফিল্ডিং। তা একদিনের ম্যাচ হোক কিংবা হালফিলের টি-২০। তাদের এই দক্ষতা বরাবরই একটা আলাদা মাত্রা যোগ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটে। ফের একবার এমনই দক্ষতার প্রমাণ পেল ক্রিকেটপ্রেমী জনতা। বৃহস্পতিবার আইপিএলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ঘরের মাঠে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মুখোমুখি হয়েছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। প্লে-অফের ওঠার লড়াইয়ে এই ম্যাচ জয় দরকারই ছিল বেঙ্গালুরুর। শেষমেশ তারা সে জয় পেলেও, শিরোনামে কিন্তু বেঙ্গালুরু দলের সেরা অস্ত্র এবি ডে’ভিলিয়ার্স। ব্যাটিংয়ে ঝড় তুললেও, একই সঙ্গে ফিল্ডিংয়ে এমন অবিশ্বাস্য কাণ্ড করলেন যা হয়তো ইতিহাসের পাতায় চলে যাবে।

বেঙ্গালুরু দেওয়া বড় রানের টার্গেটকে মাথায় রেখে প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক শুরু করে হায়দরাবাদ। ক্রমাগত আক্রমণ শানাতে থাকেন অ্যালেক্স হেলস। তবে অষ্টম ওভারে সেই অবিশ্বাস্য মুহূর্তের সম্মুখীন হয় উপস্থিত দর্শকেরা। যা রীতিমতো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। মইন আলির দেওয়া শর্ট বল, ডিপ মিড উইকেট দিয়ে মারবার চেষ্টা করেন হেলস। কিন্তু সেই বলকে অনুসরণ করে নিজের ডান দিকে দৌড়ে, উপর দিকে লাফিয়ে ডান হাতে ক্যাচ নেন ডে’ভিলিয়ার্স। যা অবাক করো দেয় সবাইকে। এই ক্যাচের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর বাহবা পান তিনি। তাঁকে জীবিত সুপারম্যান বলেও আখ্যা দেওয়া হয়।

 

এমন জিনিস দেখে অবাক হয়ে যান তাঁর দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। টুইটে তিনি বলেন, “আজকে জীবিত স্পাইডারম্যানকে মাঠে দেখলাম”।

 

তবে শুধু একা ডে’ভিলিয়ার্স নন, এ দিনের ম্যাচে আরও একটি অবিশ্বাস্য ক্যাচ দেখল ক্রিকেটপ্রেমীরা। বেঙ্গালুরু ব্যাটিংয়ের শেষ ওভারে সিদ্ধার্থ কলের বলে ডিপ মিড উইকেটে বুলেটের মতো শট মারেন বেঙ্গালুরুর কলিন ডি’গ্র্যান্ডহোম। বল বাউন্ডারি ছাড়িয়ে যাওয়ার আগেই পিছন দিকে লাফিয়ে ডান হাতে অনবদ্য ক্যাচ নেন রাশিদ খান। যা রীতিমতো ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার সঙ্গে ডে’ ভিলিয়ার্সের ক্যাচের রীতিমতো তুলনা শুরু হয়ে যায়।

 ফলে বলাই যায় একই দিনে ভাগ্য করে দু’টি অবিশ্বাস্য ক্যাচের সাক্ষী থাকলো চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামের দর্শকরা।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here