খবর অনলাইন: প্রকৃতির উলটপুরাণ। এক দিকে যখন দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চল জ্বলেপুড়ে খাক হয়ে যাচ্ছে, তখন অন্য দিকে অসম বন্যাপ্লাবিত। তাপপ্রবাহে যেখানে সারা দেশে এ পর্যন্ত ১৪৬ জন মারা গিয়েছেন, সেখানে অসমের ৭টি জেলার ৮৬ হাজার মানুষ বন্যার কবলে।

অসমে বৃষ্টি, বন্যা ও ধসে মারা গিয়েছেন ১৩ জন। এঁদের মধ্যে ৭ জন শ্রমিক প্রাণ হারিয়েছেন বনদর্কহালে রেললাইনে ধস পরিষ্কার করতে গিয়ে। ডিমা হাসাও জেলার জাটিঙ্গা নদীতে ট্রাক পড়ে চালক ও তাঁর সহকারী ভেসে গিয়েছেন। তিনসুকিয়া জেলায় গাছ পড়ে ৩ জন মারা গিয়েছেন। ডিব্রুগড় জেলার মোরানে বন্যার জলে ১ ভেসে গিয়েছেন। সরকারি ভাবে অবশ্য বলা হচ্ছে বন্যায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৮ জন নিখোঁজ।

গত ১৪ এপ্রিল থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত  যে সপ্তাহ গিয়েছে, সেই সপ্তাহে অসমে স্বাভাবিকের চেয়ে ১২৪ শতাংশ বেশি বৃষ্টি হয়েছে। ব্রহ্মপুত্র বইছে দু’ কূল ছাপিয়ে। শিবসাগরে বুড়িডিহিং ও দেসান নাগলামুরাগা নদীর জলও বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। সরকারি ত্রাণ শিবিরে ৬৩৯০ জন আশ্রয় নিয়েছেন। ১০১৮ হেক্টর চাষের জমি বন্যাপ্লাবিত হয়েছে বলে অসম ডিসাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটির এক অফিসার জানিয়েছেন। ক্রমাগত বৃষ্টি হয়েই চলেছে। আগামী দু-তিন দিন বৃষ্টি আরও বাড়তে পারে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here