বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ৪৫ লাখ পরিবারকে ইতিমধ্যে স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় আনা হয়েছে। এই বিমা প্রকল্পের আওতায় থাকা পরিবারগুলি চিকিৎসা খরচ বাবদ দেড় লাখ টাকা করে পাবে। রাজ্যের হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জেলা হাসপাতালগুলিতে ৫৭টি আইসিসিইউ ইতিমধ্যে চালু করা হয়েছে। ৪২টি মাল্টি সুপার হাসপাতালের পাশাপাশি ৩২টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল চালু করা হচ্ছে। আর ২০টি মাদার চাইল্ড হাব ইতিমধ্যে চালু করা হয়েছে। 
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আগের থেকে রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলির উন্নত হয়েছে। জটিল রোগের চিকিৎসাও করা সম্ভব হচ্ছে। দীঘা ও বকখালিতে বিশেষ আইসিসিইউ ইউনিট গঠন করা হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। 
  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here