খবর অনলাইন: ২০০৬-এর মালেগাঁও বিস্ফোরণের অভিযোগ থেকে বেকসুর খালাস পেল ৯ জন অভিযুক্ত। মুম্বইয়ের এক বিশেষ আদালত আজ সোমবার তাদের সমস্ত অভিযোগ থেকে মুক্তি দিয়েছে। এই ৯ জনের মধ্যে ১ জন মারা গিয়েছেন, ৬ জন জামিনে মুক্ত রয়েছেন এবং বাকি ২ জন মুম্বইয়ের ৭/১১ ট্রেন বিস্ফোরণের অপরাধে দণ্ডিত।

মুম্বই থেকে ৩০০ কিমি দূরে মালেগাঁওয়ে ২০০৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ হারান ৩৭ জন, জখম হন ১২৫ জন। হতাহতের বেশির ভাগই ছিলেন মুসলিম তীর্থযাত্রী।

দু’ বছর পরে ২০০৮ সালে ওই মালেগাঁওয়েই আরও একটি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। ওই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং, প্রাক্তন সেনা অফিসার শ্রীকান্ত পুরোহিত এবং আরও কয়েক জন গ্রেফতার হন।

২০০৬-এর বিস্ফোরণ নিয়ে প্রথমে তদন্ত করে মহারাষ্ট্রের অ্যান্টি-টেরর স্কোয়াড (এটিএস)। তাদের তদন্তের ভিত্তিতে ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়। এঁরা সকলেই মুসলমান। পরে তদন্তভার সিবিআইকে দেওয়া হলে তারা এটিএস-এর তদন্ত থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে সায় দেয়। ২০০৯-এ এনআইএ গঠিত হওয়ার পর এই ঘটনার তদন্তভার যায় তাদের কাছে। ২০০৭-এ মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণে অভিযুক্ত স্বামী অসীমানন্দের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে প্রথম মালেগাঁও বিস্ফোরণের অভিযোগে এনআইএ ‘অভিনব ভারত’ নামক এক গোষ্ঠীর সদস্যদের গ্রেফতার করে। এর পরই আগের ৯ জন অভিযুক্ত তাঁদের মুক্তির জন্য আদালতে আর্জি পেশ করেন। এনআইএ আদালতে বলে, ২০০৬–এর বিস্ফোরণে ওই ৯ জনের জড়িত থাকার কোনও প্রমাণ নেই। ওই ৯ জন জামিনে মুক্তি পান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here