moitryমৈত্রী মজুমদার

বেডরুম সাজানোর মৌলিক বিষয়গুলো নিয়ে আমরা আগের পর্বে আলোচনা করেছি। আজ আলোচনা করব খুবই জরুরি একটি দিক নিয়ে। তা হল ‘স্টোরেজ’।

শোওয়ার ঘর একান্তই একটি ব্যক্তিগত জায়গা। তাই বেশির ভাগ ব্যক্তিগত জিনিসই সাধারণত এই ঘরে রাখার প্রবণতা দেখা যায়। তাই অনেক ক্ষেত্রেই এই ঘরটি বেশ অগোছালো হয়ে ওঠে। সেই অগোছালো জায়গাটি গোছানোর উপায় না পেয়ে অনেকে আবার ‘ব্যক্তিগত’, এই অজুহাতে অগোছালোই রেখে দেন। bed1

কিন্তু  ভেবে দেখুন ব্যক্তিগত স্থানকে আরও বেশি করে গুছিয়ে রাখা কি উচিত নয়? আর সেটা করার  সহজ উপায় যদি হাতের কাছে থাকে তা হলে আর অসুবিধেই বা কী? জায়গা যতই ছোট হোক, অল্প মাথা খাটালে তা গুছিয়ে রাখা সম্ভব।bed2

শোওয়ার ঘরে সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসবাবটি হল খাট। আর সেই খাটকে সর্বাধিক কাজে লাগানো যায় ‘বক্স বেড’ হিসেবে ব্যবহার করলে। এটা আজ আর কোনও নতুন বিষয় নয়। bed3

যা নতুন হতে পারে তা হল খাটের ‘হেড-বোর্ড’ কে স্টোরেজ হিসেবে ব্যবহার করা। bed4

ভিন্ন ভিন্ন ভাবে তা করা যেতে পারে। bed5

সে ক্ষেত্রে ‘লেগ-বোর্ড’-টিও বা কেন বাদ যায়? অল্প মাথা খাটিয়ে সেটাকেও স্টোরেজ হওয়ার উপযুক্ত বানিয়ে নিন। bed6

এ ছাড়াও আরও নানা ভাবে খাটকে স্টোরেজ-এর উপযুক্ত করে তোলা যেতে পারে।

যেমন ধরুন, গেস্ট রুম বা বাচ্চাদের রুমের সিঙ্গল বেড। এর তলাটিতে  নানা ড্রয়ার বানিয়ে, সাইড টেবিলের সাথে মানানসই করে দারুন ভাবে জিনিস রাখার উপযোগী করে তোলা যায়।bed7

আবার একটু উঁচু করে বানালে স্টোরেজ-এর পাশাপাশি আরও একটি সিঙ্গল বেডও তলায় লুকিয়ে রাখা যায়। যা অতিথি এলে কাজে লাগবে কিন্তু অন্য সময় বেশি জায়গা জড়ো করে অগোছালো করে রাখবে না।bed8

জায়গা ছোট হলেও যদি আমরা আমাদের ভাবনাকে ঠিকঠাক ভাবে গুছিয়ে নিতে পারি তা হলে একটা দেওয়ালের পরিসরেও পুরো ঘরের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গুছিয়ে নিয়ে তাকে ব্যাপক ভাবে কাজে লাগাতে পারি।bed9

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here