পদে পদে বিপাকে হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

0

খবর অনলাইন : দলিত ছাত্র রোহিত ভেমুলার আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা চলছে। প্রায় দু’ মাস ছুটিতে থাকার পর হঠাৎ করে এসে কাজকর্ম শুরু করে দেওয়ায় উত্তাল বিশ্ববিদ্যালয়। ছাত্র আন্দোলনের জেরে বিশ্ববিদ্যালয়ে পঠনপাঠন প্রায় শিকেয়। এরই মধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে কুম্ভীলকবৃত্তির অভিযোগ উঠেছে। এ বার তাঁর ডাকা পরীক্ষা সংক্রান্ত এক বৈঠক থেকে বেরিয়ে গেলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ট্রোলার অব এগজামিনেশনস অধ্যাপক ভি কৃষ্ণ। শুধু তা-ই নয়, অধ্যাপক কৃষ্ণ তাঁর পদ থেকে ইস্তফাও দিয়েছেন।
ইতিমধ্যে কুম্ভীলকবৃত্তির কথা স্বীকারও করেছেন উপাচার্য আপ্পা রাও পোডিলে। ২০০৭ থেকে ২০১৪-এর মধ্যে প্রকাশিত তিনটি গবেষণাপত্রে তিনি ছিলেন যুগ্ম লেখক। তিনটি গবেষণাপত্রেই এমন কিছু অংশ আছে যা অন্যের রচনা থেকে নেওয়া। তিনি বলেছেন, “গবেষণাপত্রে এ রকম হয়। সাহিত্যের ক্ষেত্রে তো হয়ই। আমার মতে, যতটা শতাংশ অন্যের রচনা টোকা অনুমোদনযোগ্য, আমাদের রচনায় তার চেয়ে কমই আছে”। হইচই পড়ে গিয়েছে তাঁর স্বীকারোক্তিতে। শুধু ছাত্ররাই নয়, তাঁর পদত্যাগের দাবিতে ফের সরব হয়েছেন বহু শিক্ষাবিদ।
এই অবস্থায় বুধবার উপাচার্য পরীক্ষা সংক্রান্ত যে বৈঠক ডাকেন, তা থেকে বেরিয়ে এসে কন্ট্রোলার অব এগজামিনেশনস অধ্যাপক ভি কৃষ্ণ বলেন, আগামী মাসে যে এনট্রান্স পরীক্ষা হওয়ার কথা সে সম্পর্কে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার নৈতিক অধিকার উপাচার্যের নেই। অধ্যাপক কৃষ্ণের সঙ্গে আরও ৪০ জন ফ্যাকাল্টি সদস্য বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। তাঁরা স্পষ্টই জানান, আপ্পা রাও পোডিলেকে তাঁরা ভিসি হিসাবে মানেন না।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন