খবর অনলাইন: নারদা স্টিং অপারেশন নিয়ে রক্ষণাত্মক তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, আগে জানতে পারলে তিনি ওঁদের টিকিট দিতেন না।
ঠিক ভোটের মুখে নারদা-কাণ্ড প্রকাশ্যে আনার জন্য নাম না করে বিজেপিকে দায়ী করে মমতা বলেন, “একটা অবৈধ কোম্পানি ২০১৪ সালে এই কাজটা করেছে। এখন নির্বাচনের দিনক্ষণ ও প্রার্থীদের নাম ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পর এটা কেন তোমরা প্রকাশ করলে। এটা আমি আগে জানলে নিশ্চয়ই চিন্তাভাবনা করতাম। এখন নির্বাচন ঘোষণা হয়ে যাওয়ার পর তো আর প্রার্থী পালটাতে পারি না।”
পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় সভা করে এ বার কলকাতা শহরে ঢুকে পড়েছেন মমতা। রবিবার সন্ধ্যায় এমনই এক নির্বাচনী সভায় নারদা নিয়ে সুর নরম করলেন তিনি। জেলার সভাগুলিতে নারদা নিয়ে আক্রমণাত্মক থেকে কলকাতায় সুর নরম করলেন কেন মমতা ? অনেকেই মনে করেন, কলকাতার ভোটাররা যে নারদা-কাণ্ড দেখে প্রভাবিত হবেন, সেটা ভালোই বুঝেছেন তিনি। তাই এখানে ভোট চাওয়ার জন্য তিনি তাঁর সততার ভাবমূর্তিটি কাজে লাগাতে চান। কিন্তু প্রশ্ন, নির্বাচনের দিন ও প্রার্থীদের নাম ঘোষণা হয়ে গেলেও প্রার্থীরা তো তখনও মনোনয়নপত্র পেশ করেননি। তা হলে প্রার্থী বদলাতে তাঁর অসুবিধা ছিল কোথায়?

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here