খবর অনলাইন : এগারো সপ্তাহের অনিশ্চয়তা কাটল। জম্মু-কাশ্মীর মুখ্যমন্ত্রী পেল। প্রায় তিন মাস ধরে আলোচনা চলার পর সোমবার বিজেপি-পিডিপি কোয়ালিশন সরকার শপথ নিল। পিডিপি-র প্রয়াত নেতা মুফতি মহম্মদ সৈয়দের কন্যা মেহবুবা মুফতি মুখ্যমন্ত্রী হলেন। বিজেপির ডঃ নির্মল সিং হলেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী। এ ছাড়া দু’ দলের আরও ২১ জন মন্ত্রী শপথ নিয়েছেন। এঁদের মধ্যে ১২ জন পিডিপির, ৯ জন বিজেপির। গত জানুয়ারিতে মুফতি মহম্মদ সৈয়দের মৃত্যুর পর রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করা হয়। কে মুখ্যমন্ত্রী হবেন, এই নিয়ে পিডিপি ও বিজেপির মধ্যে টানাপড়েন শুরু হয়। শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে মেহবুবা কথা বলার পর তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মেনে নেয় বিজেপি। মেহবুবার ঘাড়ে এখন বিশাল দায়িত্ব। কাশ্মীরি ভাবাবেগের প্রতি মেহবুবার সহানুভূতি সর্বজনবিদিত। এ জন্য তাঁর এই মনোভাবকে সমালোচকরা ‘নরম বিচ্ছিন্নতাবাদ’ বলে অভিহিত করে থাকেন। মেহবুবা এমন একটা সময়ে মুখ্যমন্ত্রীর পদে অভিষিক্ত হলেন যখন কাশ্মীরের নতুন প্রজন্মের সঙ্গে ভারতের অন্য অংশের নতুন প্রজন্মের ফারাক ক্রমেই বেড়ে চলেছে। একটা অবিশ্বাসের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে। এখন প্রশ্ন হল, পারবেন কি তিনি তাঁর নিজের নির্বাচনক্ষেত্রের মর্যাদা কিছুটা অন্তত পুনরুদ্ধার করতে, নাকি এই কোয়ালিশনের মুখ রাখতে গিয়ে তিনি ক্রমশই তাঁর নিজের সমর্থন-ভিত্তি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন ?

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here