খবর অনলাইন: ত্রিসুরের দুই মন্দিরের দেবস্বম বোর্ড ঠিক করেছিল ১৭ এপ্রিল পুরমের দিন আতসবাজির প্রদর্শনী ‘কুডামত্তম’ বন্ধ রাখা হবে। সুসজ্জিত হাতির মিছিলও হবে না। কিন্তু কেরল হাইকোর্ট শব্দবাজি পোড়ানোয় সায় দিয়েছে। তবে শব্দের সীমা বেঁধে দিয়েছে ১২৫ ডেসিবেল-এ। হাইকোর্ট হাতির মিছিলেও আপত্তি করেনি। তবে নির্দেশ, ত্রিসুর পুরমের সময় হাতিগুলোকে নিরাপদ দূরত্বে রাখতে হবে। বিচারপতি থোট্টাথিল বি রাধাকৃষ্ণন এবং বিচারপতি অনু শিবরামনকে নিয়ে গঠিত ডিভিশন বেঞ্চ বলেছে, ২০০৭-এর সুপ্রিম কোর্ট রায়টি লক্ষ না করেই তারা সন্ধে ৬টার পরে আতসবাজি নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু মন্দির-উৎসবের মতো ধর্মীয় অনুষ্ঠানে এমনকি রাতেও বাজি পোড়ানোয় অনুমতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ২০০৭ সালের ২৬ মার্চের সেই রায় মেনেই ডিভিশন বেঞ্চ ত্রিসুর পুরমে বাজি পোড়ানোয় সায় দিয়েছে।

এ দিকে রাজ্যে আতসবাজির প্রতিযোগিতা বন্ধে মুখ্যমন্ত্রী ওমেন চান্ডি বৃহস্পতিবার যে সর্বদল বৈঠক ডেকেছিলেন, তাতে ঐকমত্যের অভাবে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here