খবর অনলাইন: সংরক্ষণের দাবিতে পটেলদের ‘জেল ভরো’ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে আবার উত্তাল গুজরাত। আজ সোমবার রাজ্য জুড়ে বনধ্‌ ডাকা হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী আনন্দিবেন মেহতার জেলাশহর মেহসানায় হাজার পাঁচেক বিক্ষোভকারী সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। বিক্ষোভকারীরা গ্রেফতার বরণ করার জন্য প্রধান কারাগারের দিকে মিছিল করে যাওয়ার সময় পুলিশ তাদের আটকায়। প্রথমে লাঠি চালায়, পরে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। ডজন দুয়েক বিক্ষোভকারী জখম হন, ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়। বিক্ষোভকারীদের ইটের আঘাতে ৫ জন পুলিশকর্মী আহত হন। বিক্ষোভকারীরা দু’টি সরকারি অফিসে আগুন ধরায় এবং বেশ কিছু গাড়ি ভাঙচুর করে। এর পরেই মেহসানায় নৈশ কার্ফু জারি করা হয়।
মেহসানার ঘটনার প্রতিবাদে পটেলদের দু’টি সংগঠন পটিদার অনামত আন্দোলন সমিতি এবং সর্দার পটেল গ্রুপের ডাকে আজ গুজরাতে বনধ্‌ পালিত হচ্ছে। মোবাইল-সহ সমস্ত ইন্টারনেট পরিষেবা আমদাবাদ, মেহসানা ও সুরাত জেলায় সাসপেন্ড রাখা হয়েছে। রাজ্যের স্পর্শকাতর অঞ্চলগুলিতে সিআরপিএফ টহল দিচ্ছে। উল্লেখ্য, দেশদ্রোহিতা ও হাঙ্গামা লাগানোর অভিযোগে পটিদার অনামত আন্দোলন সমিতির নেতা হার্দিক পটেল গত অক্টোবর থেকে জেলবন্দি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here