খবর অনলাইন: “আমাকে আমার মতো থাকতে দিন। দয়া করে আমাকে ব্যবহার করবেন না। যখনই কোনও দল রাজনৈতিক লাভের জন্য আমাকে ব্যবহার করে, তখনই আমার জীবন দুর্বিষহ হয়ে ওঠে” – এই আবেদন কুতুবুদ্দিন আনসারির।

কুতুবুদ্দিন আনসারিকে মনে পড়ে ? গুজরাত দাঙ্গার সেই মুখ ? তাঁর সেই হাতজোড়-করা কান্নাভরা মুখে কাতর আর্তির ছবিটা, হিংসাত্মক জনতাকে যেন বলছেন, “প্লিজ, আমাকে তোমরা মেরো না, আমাকে ছেড়ে দাও”। ১৪ বছর পরেও সেই গুজরাত দাঙ্গা আনসারির পিছু ছাড়ছে না।

অসমে ভোট-প্রচারের শেষ দিনে সেখানকার খবরের কাগজে আনসারির সেই ‘মুখ’-এর ছবি দিয়ে পাতাজোড়া বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে কংগ্রেস নরেন্দ্র মোদীর গুজরাত মডেল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। ‘মুম্বই মিরর’ পত্রিকায় সেই খবর পড়ে ক্ষুব্ধ আনসারি। কোনও দলের নাম না করে তিনি বলেছেন, কোনও কোনও দলের কোনও কোনও সদস্য মনে করে তিনি ইচ্ছা করেই কিছু দলকে তাঁর ছবি ব্যবহার করতে দেন। এতে তাঁর জীবন আরও জটিল হয়ে পড়ে। “দাঙ্গা হয়েছিল ২০০২ সালে। এর পর ১৪টা বছর কেটে গেল। আমি এখনও রাজনৈতিক দল, বলিউড এবং সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীর হাতে ব্যবহৃত ও অপব্যবহৃত হয়ে চলেছি।”

উল্লেখ্য, গুজরাত দাঙ্গার পরে পরেই কুতুবুদ্দিন আনসারি কলকাতায় চলে যান। এবং পরে তিনি আবার গুজরাতেই ফিরে আসেন।


মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here