খবর অনলাইন : উর্দু লেখকদের কাছ থেকে মুচলেকা চায় কেন্দ্র। সেই মুচলেকায় তাঁদের জানাতে হবে, তাঁরা জাতীয়তা-বিরোধী কিছু লিখবেন না। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে আবার একটা বিতর্কের ঝড় ঘনিয়ে উঠছে।

‘ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর প্রোমোশন অব উর্দু’-র (এনসিপিইউএল) সঙ্গে যে সব লেখকের সম্পর্ক রয়েছে তাঁদের জানানোর জন্য কেন্দ্র একটি নতুন সার্কুলার জারি করেছে। তাতে বলা হয়েছে, তাঁরা যেন এমন কিছু না লেখেন, যা জাতীয় স্বার্থের বিরোধী এবং বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে ঘৃণা সৃষ্টি করে।

এনসিপিইউএল-এর ওয়েবসাইটে একটি ঘোষণাপত্র আপলোড করা হয়েছে। সেই ঘোষণাপত্রে লেখকদের সই করতে বলা হয়েছে। ঘোষণাপত্রে লেখা আছে, “এই বই, সাময়িকপত্র, পাণ্ডুলিপি, পত্রিকা এবং প্রকল্পের বিষয়বস্তুতে এমন কোনও উপাদান নেই যা জাতীয় স্বার্থের বিরোধী এবং যা সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির মধ্যে কোনও ধরনের ঘৃণা সৃষ্টি করতে পারে”।

কেন্দ্রের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের অধীনে এনসিপিইউএল উর্দু ভাষার উন্নতির জন্য কাজ করে থাকে। উর্দু ভাষার লেখকদের বই এই সংস্থা সংগ্রহ করে। অনেক উর্দু লেখক মনে করছেন, তাঁদের উপর যে শর্ত চাপানো হয়েছে, তা আসলে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কাছে এক ধরনের ‘আনুগত্য ঘোষণা’। আবার এক শ্রেণির উর্দু লেখক মনে করেন, এনসিপিইউএল যে হেতু একটি সরকারি সংস্থা সে হেতু কেন্দ্র জাতীয়তা-বিরোধী কিছু লেখা মেনে নেবে না।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here