arun shourie, arvind kejriwal

ওয়েবডেস্ক: রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে ২০১৯-এর নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হারানোর মতো কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এখন ভারতে নেই। তবে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং প্রাক্তন বিজেপি নেতা অরুণ শৌরির মতে নির্বাচনে মোদীকে হারানো সম্ভব। কেজরির মতে, সাধারণ মানুষ হারাবেন মোদীকে, অন্য দিকে মোদীকে হারানোর জন্য সব বিরোধীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বার্তা দেন শৌরি।

জিএসটি এবং বিমুদ্রাকরণের জন্য সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে এবং মানুষ আসতে আসতে বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করছে, এমনই বলেন কেজরি। তাঁর কথায়, “পরবর্তী নির্বাচনে ক’টা রাজনৈতিক দল বা রাজনৈতিক নেতা মোদীর বিরুদ্ধে দাঁড়াবে, সে ব্যাপারে আমি এখনও কিছু বুঝতে পারছি না, কিন্তু যেটা পারছি তা হল মোদী বনাম দেশের নাগরিকের প্রেক্ষাপটেই আয়োজিত হবে দেশের নির্বাচন।” তিনি আরও বলেন, “বিজেপি হিন্দু-মুসলিম, দলিত-রাজপুত, পদ্মাবতী, গরু নিয়ে রাজনীতি করতে পারে, কিন্তু পেটে যখন খাবার থাকে না মানুষ তখন সব ভুলে যায়। প্রথমে নিজের সন্তান এবং পেটের কথাই ভাবে মানুষ।”

অনেকটা একই মত প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথা বাজপেয়ী জমানার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ শৌরির। মোদীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সব রাজনৈতিক দলকে এক হওয়ার বার্তা দেন তিনি। বিরোধী দলগুলির উদ্দেশে শৌরির বার্তা, “আপনারা যদি সত্যিই মনে করেন দেশ বিপদে রয়েছে, তা হলে আপনারা ঐক্যবদ্ধ হন।” তিনি আরও বলেন, “প্রথমেই যেটা করতে হবে তা হল একজন বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে একটি মাত্র বিরোধী প্রার্থী দাঁড় করাতে হবে।” এ ভাবেই বিজেপিকে পরাস্ত করা সম্ভব বলে জানান শৌরি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here