তুলনায় ছোটো প্রতিদ্বন্দ্বী এয়ারসেলের সঙ্গে মিশে গেল অনিল আম্বানির রিলায়্যান্স কমিউনিকেশনস। এর ফলে ভারতের টেলিকম সেক্টরে এরা চতুর্থ সর্ববৃহৎ মোবাইল ফোন অপারেটর হিসাবে আবির্ভূত হল। এদের মিলিত সম্পদের পরিমাণ দাঁড়াল ৬৫ হাজার কোটি টাকার বেশি।

ভারতের টেলিকম সেক্টরে সর্ববৃহৎ কোম্পানি আরকম এবং এয়ারসেল-এর গরিষ্ঠ অংশের মালিক মালয়েশিয়ার ম্যাক্সিস কমিউনিকেশনস বারহাদ-এর (এমসিবি) তরফে বুধবার ঘোষণা করা হয়েছে, এই দুই কোম্পানি ভারতে তাদের ওয়্যারলেস ব্যবসা মিলিয়ে দেওয়ার ব্যপারে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে সইসাবুদ করেছে। নতুন কোম্পানিতে আরকম এবং এয়ারসেল-এর ৫০ শতাংশ করে শেয়ার থাকবে। নতুন কোম্পানির বোর্ডেও দুই কোম্পানির সমান সংখ্যক প্রতিনিধি থাকবেন।

দুটি কোম্পানির তরফ থেকে এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ক্রেতার সংখ্যা এবং রাজস্বের দিক থেকে ভারতের ৪টি সব চেয়ে বড়ো টেলিকম কোম্পানির একটি হবে আরকম-এয়ারসেল কম্বিনেশন। রাজস্বের দিক থেকে দেশের ১২টি গুরুত্বপূর্ণ সার্কেলে এই নতুন কোম্পানি হবে তিনটি বড়ো অপারেটরের মধ্যে একটি।”

আরকম ভারতের চতুর্থ বৃহৎ টেলিকম অপারেটর, ক্রেতার সংখ্যা ১১ কোটি। আর এই ব্যবসায় আপাতত এয়ারসেল রয়েছে পঞ্চম স্থানে, ক্রেতার সংখ্যা ৮.৪ কোটি। দেশে টেলিকম বাজারের ৯.৮ শতাংশ আরকম-এর দখলে, এয়ারসেল-এর দখলে ৮.৫ শতাংশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here