christmas

ওয়েবডেস্ক: শুধুই ধর্মীয় উৎসব নয়। বড়োদিন আসলে অনেক বেশি করে সাম্বৎসরিক মোচ্ছব। তাই খ্রিস্টমাস ট্রি-রঙিন শিকল-ঘণ্টা দিয়ে বাড়ি সাজানো, মেরি মাতার সঙ্গে শিশু যিশুর মূর্তিস্থাপন, গির্জায় প্রার্থনাতেই শেষ হয়ে যায় না বড়োদিনের হুল্লোড়। কেক কাটা, টার্কি আর ওয়াইনের অনুষঙ্গে স্পষ্ট হয়ে ওঠে আনন্দের উদযাপন।

কিন্তু শুধু এটুকুতেই আবার সীমাবদ্ধ থাকে না বড়োদিনের অবশ্য পালনীয় আচার-অনুষ্ঠানের তালিকা। সারা পৃথিবী জুড়ে এমন অনেক আচার-অনুষ্ঠান আছে বড়োদিনকে ঘিরে, যার কথা জানলে চোখ কপালে উঠবে।

এক এক করে জেনে নেওয়া যাক সেগুলোর কথা।

দক্ষিণ আফ্রিকা:

বড়োদিনে টার্কি নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার পাত আলো করে থাকে মুচমুচে করে ভাজা এক ধরনের বড়োসড়ো মথ। পতঙ্গ ভক্ষণেই পূর্ণ হয় এ দেশের বড়োদিন।

অস্ট্রিয়া:

আনন্দ নয়, বড়োদিন এলে এক বিশেষ ভয় ঘিরে রাখে অস্ট্রিয়ার শিশুদের। সেখানকার লোকবিশ্বাস অনুযায়ী ঈশ্বরের পুত্রের জন্মদিনেই না কি শয়তানের আবির্ভাবের সম্ভাবনা থাকে। সে এসে এই ধর্মীয় উৎসবে যোগ দেওয়ার জন্য গাছের ডাল দিয়ে পেটায় শিশুদের। তাই শয়তানের নজর যাতে না লাগে, সেই জন্য শিশুদের আলতো করে পেটানো হয় গাছের ডাল দিয়ে।

christmas

কাতালোনিয়া:

কে জানে কেন, কাতালোনিয়ায় বড়োদিনের উৎসবের সঙ্গে জুড়ে গিয়েছে মলত্যাগের প্রসঙ্গ। বড়োদিনের সময় তাই এখানকার বাড়িঘরের দরজায় মলত্যাগকারী এক মানুষের মূর্তি রাখা হয়। আর থাকে কম্বলে ঢেকে রাখা, নাক-মুখ করা এক গাছের গুঁড়ি। বলা হয়, এই গাছের গুঁড়িও না কি মলত্যাগ করে। তাই বড়োদিনে তার অর্ধেকটা আগুনে ফেলে, বাকিটাকে পেটানো হয়!

নরওয়ে:

বড়োদিনের আগের সাঁঝে নরওয়ের মানুষরা ঘর পরিষ্কার করেন না। লুকিয়ে রাখেন ঝাঁটা, পাছে ডাইনিরা এসে টানাটানি করে তা নিয়ে!

গ্রিনল্যান্ড:

এখানে পরিবেশন করা হয় দুই আজব খাবার। তার মধ্যে একটা হল মাটাক। কাঁচা তিমি মাছের চামড়া রবারের সঙ্গে মিশিয়ে তুলে দেওয়া হয় পাতে। এ ছাড়া তৈরি হয় কিভিয়াক। তার জন্য সিল মাছের চামড়ায় মুড়ে ৫০০ পাখিকে মাটিতে পুঁতে শুকিয়ে নেওয়া হয়।

জার্মানি:

জার্মানিতে খ্রিস্টমাস ট্রি-র ডগায় লুকিয়ে রাখা হয় এক টুকরো আচার! যে বাচ্চা সেটা খুঁজে পায়, সে পায় একটা সুন্দর উপহার!

christmas

ভেনেজুয়েলা:

বড়োদিনে গির্জার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়া প্রায় অবশ্য কর্তব্য। ভেনেজুয়েলায় সেই অনুষ্ঠানে সবাই যান পায়ে রোলার স্কেট বেঁধে! এতেই নাকি উৎসব প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে!

নিউজিল্যান্ড:

সাবেক খ্রিস্টমাস ট্রি নয়, এখানে বড়োদিনে ঘর সাজানো হয় পোহুটুকাওয়া গাছের ডাল দিয়ে।

পর্তুগাল:

বড়োদিনের সকালে পর্তুগাল স্মরণ করে মৃত পরিজনদের। সাজিয়ে রাখে তাঁদের বিছানা।

চেক রিপাবলিক:

বড়োদিনে এখানে শুরু হয় কুমারী মেয়েদের বিয়ের উদ্যোগ। তারা দরজায় দাঁড়িয়ে, পিছন দিক দিয়ে ছুড়ে ফেলে একটা জুতো। জুতোর ডগা দরজার দিকে মুখ করে থাকলে পরের বছরেই বিয়ে হবে ঈশ্বরের কৃপায়, এমনটাই বিশ্বাস!

christmas

ল্যাটভিয়া:

ল্যাটভিয়ায় বড়োদিনে লোকজন সং সেজে মিছিল করে ঘুরতে থাকে বাড়ি-বাড়ি। সেই সময়ে তাদের ভিক্ষা না দিলে অমঙ্গল হয়, এমনটাই প্রচলিত ধারণা।

এস্তোনিয়া:

এ দেশে বড়োদিনে পরিবারের সবাই মিলে সনা বাথ নেওয়া বাধ্যতামূলক!

ওয়েলস:

লম্বা এক লাঠির ডগায় মড়ার খুলি নিয়ে পদযাত্রা ছাড়া এখানকার বড়োদিন অসম্পূর্ণই থেকে যায়।

সুইডেন:

সুইডেনে বড়োদিন উপলক্ষে তৈরি হয় ভিতরে স্রেফ একটাই বাদাম রাখা বিশেষ পুডিং। যিনি বাদামটা পেলেন, ধরে নেওয়া হয়, তাঁর বিয়ে আসন্ন!

গ্রেট ব্রিটেন:

এ দেশে বড়োদিনের পুডিং রান্নার সময়ে তা ঘড়ির কাঁটার গতি অনুযায়ী একবার করে পরিবারের সব সদস্যকে নাড়াতে হয়। লোকবিশ্বাস, সেই সময়ে যা চাওয়া হয়, তা পাওয়া যায় ভবিষ্যতে।

গুয়াতেমালা:

গুয়াতেমালায় সবাই বড়োদিনের আগের সন্ধ্যায় বাড়ির সব জঞ্জাল ঝেঁটিয়ে এক বড়োসড়ো স্তূপ তৈরি করে। তার পর শয়তানের একটা মূর্তি সেই স্তূপের উপরে রেখে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়।

ব্যাভেরিয়া:

গির্জার ঘণ্টা নয়, ব্যাভেরিয়ার বড়োদিন মুখর হয়ে ওঠে বন্দুকের আওয়াজে। জাতীয় পোশাকে, শূন্যে গুলি ছুড়ে এ ভাবেই পূর্বপুরুষদের শ্রদ্ধা জানানো হয়।

christmas

স্লোভাকিয়া:

স্লোভাকিয়ায় বাড়ির সবচেয়ে বয়স্ক মানুষটি এক চামচে পুডিং ছুঁড়ে দেন ছাদের দিকে। যতক্ষণ তা আটকে থাকে মাথার উপরে, তত বেশি সমৃদ্ধি পরিবারে আসে বলে বিশ্বাস।

জাপান:

জাপানের বড়োদিন পালনে লাল রঙের কোনো স্থান নেই! কেন না, তা ওদেশের শেষকৃত্যের সঙ্গে জড়িত।

ফিনল্যান্ড:

ফিনল্যান্ডেও বড়োদিনের সকালে স্মরণ করা হয় মৃত পরিজনদের। তাঁদের স্মরণে গোরস্থানে জ্বালানো হয় মোমবাতি।

christmas

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র:

এই দেশে চালু হয়েছে এক মজার প্রথা। যদিও তা সাবেকি নয়। এখানে বড়োদিনে অনেকেই দল বেঁধে, দৌড়ে দৌড়ে, সান্তাক্লজের বেশে হাজির হন কোনো পানশালায়। তার পর চলে প্রতিযোগিতামূলক মদ্যপান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here