ওয়েবডেস্ক:গোল্ডকোস্টে টেবিল টেনিসের মহিলাদের দলগত বিভাগে ঐতিহাসিক সোনা জিতল ভারত। ফাইনালে ভারতের মেয়েরা সিঙ্গাপুরকে হারাল ৩-১ ফলে। এই জয় ঐতিহাসিক, কারণ ২০০২ সালে কমনওয়েলথে টেবিল টেনিস অন্তর্ভূক্ত হওয়ার পর গত চারবারই এই বিভাগে সোনা জিতেছে সিঙ্গাপুর। তাদেরকেই হারাল ভারত। মণিকা বাত্রার দুরন্ত পারফরম্যান্সের পাশাপাশি এদিনের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন মৌমা দাস ও মধুরিকা পাটকর।

ডানদিকে সোনাজয়ী মানু ভাকের, বাঁ দিকে রুপোজয়ী হিনা সিধু

টেবিল টেনিসের আগে এদিনও ফের ভারোত্তোলনে সোনা জিতল ভারত। কিন্তু এদিনের চমক হরিয়ানার ১৬ বছরের কিশোরী মানু ভাকের। ১০ মি এয়ার পিস্তল বিভাগে ২৪০.৯ পয়েন্ট পেয়ে সোনা জিতলেন মানু। ওই ইভেন্টে ২৩৪ পয়েন্ট পেয়ে রুপো জিতেছেন ভারতেরই হিনা সিধু।

ইভেন্টের কোয়ালিফাইং রাউন্ডে ৩৮৮ পয়েন্ট পান মানু ভাকের। যা কমনওয়েলথ গেমস রেকর্ড।

অন্যদিকে ভারোত্তোলনে রবিবার মেয়েদের ৬৯ কেজি ক্যাটেগরিতে সোনা জিতলেন পুনম যাদব। মোট ২২২ কিলো ওজন তোলেন তিনি। রূপোজয়ী ব্রিটিশ ভারোত্তোলক তাঁর অনেকটাই পেছনে(২১৭কিলো)।

গত কমনওয়েলথ গেমসে পুনম ৬৩ কোজি বিভাগে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন।

এর আগে ভারোত্তোলনে ভারতের হয়ে সোনা জিতেছেন মীরাবাঈ চানু(৪৮কেজি), সঞ্জিতা চানু(৫৩ কেজি), সতীশ শিবলিঙ্গম(৭৭কেজি), বেঙ্কট রাহুল রাগালা(৮৫কেজি)।

এছাড়াও সাফল্যের ধারা অব্যাহত ভারতীয়দের।রবিবার মোট ৩টি্ সোনা, একটি রুপো ও ২টি ব্রোঞ্জ জিতলেন ভারতীয়রা।

১০ মিটার এয়ার রাইফেলে ব্রোঞ্জ জয় ভারতের। সৌজন্যে রবি কুমার।

ভারোত্তোলনে ভারতের সাফল্য অব্যাহত। ফের পদক ভারতের। ব্রোঞ্জ জিতলেন বিকাশ ঠাকুর।

এছাড়াও ব্যাডমিন্টনে ভারতের মিক্সড টিম ফাইনালে নিজেদের জায়গার পাকা করে নিল।

অন্যদিকে কমনওয়েলথের ইতিহাসে বক্সিংয়ে প্রথম পদক জয় নিশ্চিত করল ভারত। মেয়েদের ৪৫-৪৮ বিভাগে সেমিফাইনালে উঠলেন অলিম্পিক পদক জয়ী বক্সার মেরি কম।

পুরুষদের হকিতে ওয়েলশকে ৪-৩ ফলে হারাল ভারত।

৭টি সোনা, ২টি রুপো, ৩টি ব্রোঞ্জ নিয়ে চতুর্থ দিনের শেষে পদক তালিকায় চতুর্থ স্থানে ভারত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here