শাওন পান্থের কাব্যগ্রন্থ ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’-র মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা উৎসব

0

নিজস্ব প্রতিনিধি, খবর অনলাইন: বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে প্রকাশিত শাওন পান্থের ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হল সম্প্রতি।

পৌনে চার ঘণ্টাব্যাপী এই ভার্চুয়াল উৎসবের সূচনা করেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক, গীতিকার ও কবি আজিজুর রহমান আজিজ। মঙ্গলপ্রদীপ জ্বালিয়ে ও মোড়ক উন্মোচন করে উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান, ত্রিপুরার বিশিষ্ট সাহিত্যিক গবেষক ড. দেবব্রত দেবরায়, একুশে পদকপ্রাপ্ত বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায়, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শামিমা চৌধুরী, বিশিষ্ট বাচিকশিল্পী ফ্যাশন ডিজাইনার আমিনা রহমান লিপি, লন্ডন আইওএন টিভির উপস্থাপক, সংবাদ পাঠক ও প্রয়োজক ফারজানা করিম, ভারতের বিটিভি ত্রিপুরার সিইও বাচিকশিল্পী মনীষা পাল চৌধুরী, বাংলাদেশের বিশিষ্ট বাচিকশিল্পী কংকন দাস, প্রবীর পাল ও সীমা মোহন্ত উদ্বোধনীপর্বে যোগ দেন।

দ্বিতীয় পর্বে অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কবি ও গীতিকার জামাল হোসেন, কুষ্টিয়া ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন ড. সারওয়ার মুর্শেদ, সাবেক অধ্যক্ষ কথাসাহিত্যিক ড. আনোয়ারা আলম, কবি ও অধ্যাপক তরুণ ইউসুফ, আমেরিকার নোঙর টিভির পরিচালক ডিম্পল তানু, সুইডেনের ওরিব্র ইউনিভার্সিটি থেকে ড. সাবদিনা শারমিন, মুম্বই থেকে বিশিষ্ট সংগঠক বাচিকশিল্পী দীপান্বিতা সরকার, বাচিকশিল্পী রুনা চৌধুরী ও লন্ডন থেকে সংগীত ও বাচিক শিল্পী আসমা সুলতানা শোভন।

উদ্বোধনী বক্তব্যে কবি আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, শাওন পান্থের ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’ কাব্যগ্রন্থটিতে একের ভিতর বহুর সমন্বয় ঘটেছে। শুধু ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’ কবিতাটি নিয়েই একটি কাব্যগ্রন্থ হতে পারত। বেশ কিছু কবিতা সীমানার গণ্ডিকে অতিক্রম করে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পৌঁছে গেছে বহুমাত্রিকতায়। সমাজ, দর্শন, আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট, সমকালীন প্রেক্ষাপট, প্রেম, ভালোবাসার নিখুঁত নিপুণ ছবি এঁকেছেন কবি শাওন পান্থ।

পান্থের কাব্যগ্রন্থ থেকে বেশ কয়েকটি কবিতা আবৃত্তি করে এবং উদ্ধৃতি দিয়ে কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর মোস্তাফিজুর রহমান শাওন বলেন, এ কবিতাগুলো আমাদেরই কথা, আমাদের মতো প্রতিটি মানুষের মনের কথা। তিনি বইটির সুন্দর মুখবন্ধ লেখার জন্য কবি আজিজুর রহমান আজিজকে অভিনন্দন জানান। বইটি চমৎকার প্রচ্ছদেরও প্রশংসা করেন তিনি।

কুষ্টিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ড. সারওয়ার মুর্শেদ বলেন, আমরা দেখেছি দেশকে কবিরা যুগে যুগে মা বলে সম্বোধন করেছেন, কিন্তু কবি শাওন পান্থ দেশকে মেয়ে সম্মোধন করেছেন। মা ও মেয়ে উভয়েই যদিও নারী তবুও মা বলতে একজন পরিণতবয়স্ক নারীকে বোঝায়, যার ভেতরে সাধারণত তেমন কোনো সম্ভাবনা থাকে না কিন্তু মেয়ে বলতে বোঝায় এমন এক নারীকে যার সম্মুখে দীর্ঘ ভবিষ্যৎ। এ দিক থেকে এ কাব্যের নামকরণে বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে।

কয়েকটি পর্বে ভাগ করা যায় বইটিকে। প্রথম পর্বে রয়েছে দেশপ্রেম, মুক্তিযুদ্ধ,  স্বাধীনতা, বিজয় দিবস, একুশে ফেব্রুয়ারি তথা মাতৃভাষা দিবস বিষয়ক, দ্বিতীয় পর্বে বঙ্গবন্ধু, সূর্যসেন, রবীন্দ্রনাথ, জীবনানন্দ প্রমুখ স্মরণীয় ব্যক্তিত্বদের নিয়ে, তৃতীয় পর্বে সমকালীন প্রসঙ্গ, এবং পরের পর্বে আন্তর্জাতিক প্রসঙ্গ এবং মানবিক মূল্যবোধের কবিতাগুলো সন্নিবেশিত হয়েছে। ‘সুচি’, ‘লাদাখ সীমান্তের নিহত সৈনিক’, ‘প্যাংগং হ্রদে’ প্রভৃতি কবিতাগুলোতে শাওনের যুদ্ধবিরোধী চেতনা প্রকট হয়েছে।

কবি শাওন পান্থ।

অতিথি আলোচক ডঃ আনোয়ার আলম বলেন, শাওন পান্থের প্রতিটি কবিতায় উপলব্ধি করা যায় মানুষ ও মাটির প্রতি মমত্ববোধ। সামাজিক চিত্র, জীবনের গল্প, আদিবাসী মেয়ের বঞ্চনা পীড়িত করুণ কাহিনিগুলোকে তিনি সাজিয়েছেন চেনা শব্দমালায় রূপক ও উপমায়।

কবি ও গীতিকার জামাল হোসেন তাঁর বক্তব্যে বলেন, শাওন পান্থকে আমি আমার অগ্রজ কবি বলে থাকি। একটি পরিপূর্ণ কাব্যগ্রন্থের যা যা উপাদান প্রয়োজন তার সব এ গ্রন্থে আছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে প্রকাশিত এই কাব্যগ্রন্থটি একটি সময়ের স্মারকচিহ্ন হয়ে ইতিহাস হয়ে থাকবে।

অনুষ্ঠানে ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’ কাব্যগ্রন্থ থেকে ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায় আবৃত্তি করেন ‘অদ্ভুত লোকটি’, প্রফেসব সামিনা চৌধুরী আবৃত্তি করেন ‘জীবনানন্দের শেষ কবিতা’, আমিনা রহমান আবৃত্তি করেন ‘সূর্যসেন’, প্রবীর পাল আবৃত্তি করেন শিরোনামের কবিতাটি, ভারতের মনীষা পাল চৌধুরী আবৃত্তি করেন ‘মা’, কঙ্কন দাস আবৃত্তি করেন ‘সাঁতাল কন্যা মঞ্জুরী’ সীমা মহন্ত আবৃত্তি করেন ‘ভালো থেকো’।

দ্বিতীয় পর্বে মুম্বই থেকে দীপান্বিতা সরকার আবৃত্তি করেন ‘লাদাখ সীমান্তে নিহত সৈনিক’, আমেরিকা থেকে ডিম্পল তানু আবৃত্তি করেন ‘ভালোবাসি ভালোবাসি’, যুক্তরাজ্য থেকে ফারজানা করিম আবৃত্তি করেন ‘একুশের ভোরে’, লন্ডন থেকে আসমা সুলতানা শোভন আবৃত্তি করেন ‘প্যাংগং হ্রদে’ এবং বাচিকশিল্পী রুনা চৌধুরী আবৃত্তি করেন ‘রাত্রি’ কবিতাটি। শেষে সুবর্ণা রহমানের আবৃত্তি ‘কেন তুমি এলে’-ড় ভিডিও প্রদর্শন করা হয়!

সুইডেনের ওরিব্র ইউনিভার্সিটি থেকে ড. সাবদিনা শারমিন অনলাইনে শুভেচ্ছা জানান। অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক কবি তরুণ ইউসুফ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন কানাডা থেকে বাচিক শিল্পী মুনিরা সুলতানা মিলি ও শিল্পী সুবর্ণা রহমান। স্ট্রিম ইয়ার্ডে অনুষ্ঠানটির কারিগরি নিয়ন্ত্রণ করেন সিলেট থেকে অনিমেষ শর্মা।

উল্লেখ্য স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে শাওন পান্থের ‘আজ তোমার সুবর্ণজয়ন্তী মেয়ে’ কাব্যগ্রন্থটির প্রকাশক মোঃ আমজাদ হোসেন, অর্ণব প্রকাশন, চট্টগ্রাম। বইটির মুখবন্ধ লিখেছেন বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক, গীতিকার কবি আজিজুর রহমান আজিজ এবং প্রচ্ছদ শিল্পী অনিমেষ শর্মার।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন