Connect with us

গান-বাজনা

আইয়ুব বাচ্চুর স্মরণে দেব চৌধুরীর গান রিলিজ হল ইউটিউবে

বাচ্চুভাইয়ের চলে যাওয়ার দিন শেষ রাতে দেব তাঁর কৈশোরের রক আইকনকে স্মরণ করে একটা গান লেখেন ও সুর করেন।

Published

on

দেব চৌধুরী ও রুদ্রনীল চৌধুরী।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: যে সব বাঙালির কৈশোর-যৌবন কেটেছে ৯০-এর দশকে, তাদের প্রায় সবাই আইয়ুব বাচ্চুর (Ayub Bachchu) গানের কথায়, সুরে, গিটার বাজানোয় হেসেছে, কেঁদেছে, স্বপ্ন দেখেছে। কলকাতার সহজিয়া (Sahajiya) ব্যান্ডের মূল গায়ক এবং সংগীত পরিচালক দেব চৌধুরীও (Deb Chowdhury) এর ব্যতিক্রম নন।

বাচ্চুভাইয়ের চলে যাওয়ার দিন শেষ রাতে দেব তাঁর কৈশোরের রক আইকনকে স্মরণ করে একটা গান লেখেন ও সুর করেন। ঠিক পরের দিনই আকাশ আট চ্যানেলের ‘গুড মর্ণিং আকাশ’ অনুষ্ঠানে বাচ্চুভাইকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এই গানটি দেব নিজে লাইভ গেয়েছিলেন।

Loading videos...

আজ ১৮ অক্টোবর, বাচ্চু ভাইয়ের চলে যাওয়ার দু’ বছর পূর্ণ হচ্ছে। ঠিক এই দিনেই ইউটিউবে রিলিজ হল বাচ্চুর স্মরণে দেবের সেই গান। দেব চৌধুরীর কথায়, “আইয়ুব বাচ্চু আমাদের প্রজন্মের কৈশোরের রক আইকন। একটা ভাঙা গিটার বুকে জড়িয়ে অনেক না-ঘুমোনো রাত তাঁর গান নিয়ে কেটেছে।”       

দুই বাংলার রক আইকন (Rock Icon) আইয়ুব বাচ্চুর জন্ম ১৬ আগস্ট ১৯৬২, চট্টগ্রামে। কলেজজীবনে প্রথম ব্যান্ড তৈরি করেন, নাম ‘আগলি বয়েজ’। এর পর ১৯৭৮ সালে ‘ফিলিংস’ ব্যান্ডে যোগদান করেন বাচ্চুভাই। একই বছরে গিটারিস্ট হিসাবে যোগদান করেন ‘সোলস’ ব্যান্ডে। শহিদ মাহমুদ জঙ্গীর কথায় বাচ্চুভাইয়ের প্রথম রেকর্ড করা গান ‘হারানো বিকেলের গল্প’।

বাচ্চুভাইয়ের প্রথম একক অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ১৯৮৬ সালে, ‘রক্ত গোলাপ’ এবং দ্বিতীয় একক অ্যালবাম ‘ময়না’, ১৯৮৮ সালে। ১৯৯০ সালে তিনি তৈরি করেন ‘ইয়েলো রিভার ব্যান্ড’ (Yellow River Band)। এর পর ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ‘লিটল রিভার ব্যান্ড’ বা এলআরবি (LRB)। অস্ট্রেলিয়ায় একই নামের একটি ব্যান্ড থাকায় এর নাম পালটিয়ে রাখা হয় ‘লাভ রানস্‌ ব্যান্ড’ (LOVE RUNS BAND)।

আইয়ুব বাচ্চুর স্মরণে দেবের গান।

এলআরবি-র প্রথম ডবল অ্যালবাম বেরোয় ১৯৯২-তে। দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘সুখ’-এর উল্লেখযোগ্য দু’টি হিট গান – রুপালি গিটার এবং সেই তুমি (১৯৯৩)। তৃতীয় একক অ্যালবাম ‘কষ্ট পেতে ভালোবাসি’ (১৯৯৫)। তাঁর একমাত্র আন্তর্জাতিক অ্যালবাম ‘সাউন্ড অব সায়লেন্স’ (Sound of Silence)।

বাচ্চুভাই প্রথম জীবনে গিটার বাজাতে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন নয়ন মুন্সি-কে দেখে, গুরু মানতেন পরেজিমি হেন্ড্রিক্স এবং জো-সাত্রিয়ানিকে। ২০১২ সালে একবার মারাত্মক ভাবে অসুস্থ হলেও সুস্থ হয়ে গানের জগতে পুরোদমে ফিরে আসেন। ১৬ অক্টোবর ২০১৮ রংপুর জেলা স্কুলের মাঠে নিজের শেষ কনসার্ট করেন। তার পরেই হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ১৮ অক্টোবর ২০১৮ তিনি আমাদের ছেড়ে চলে যান।

দেব চৌধুরী ও তাঁর প্রডাকশন টিম।

আজ বাচ্চুভাইয়ের স্মরণে ইউটিউবে যে গান রিলিজ হল, তার সব ইন্সট্রুমেন্ট – গিটার, বেস গিটার, ড্রামস, কিবোর্ড বাজিয়েছেন এবং ভোকাল হারমনি ও মিউজিক ডিজাইন অ্যারেঞ্জ করেছেন রুদ্রনীল চৌধুরী। গানটির কথা, সুর, গায়ন দেব চৌধুরীর। মিক্সিং-মাস্টারিং – কৃষ্ণেন্দু মণ্ডল, সিনেমাটোগ্রাফি – সুমন সরকার, ভিডিও এডিটিং – অভিষেক প্রধান, সহযোগিতায় – সুস্মিতা, সুতনুকা, সুপ্রতীম, অংশুমান এবং নিবেদনে সিনে লাইভ মিডিয়া।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

গানে ভুবন ভরিয়ে দিল ম্যাক ও সহজিয়া

গান-বাজনা

চলে গেলেন রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হক

Published

on

ঋদি হক: ঢাকা

আবার দুঃসংবাদ! এ বারে চলে গেলেন প্রতিথযশা রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হক। সকালবেলা বিছানা ছাড়ার পরেই টিভিতে নিউজ চ্যানেলের স্ক্রলে সংবাদ নজরে এল। প্রয়াত রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হক। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

Loading videos...

বুড়িগঙ্গার দক্ষিণ তীরে কেরাণীগঞ্জ এলাকা, যেখানে মা-বাবা এবং চাচা দেশের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অগ্রপথিক, বরেণ্য রবীন্দ্র গবেষক এবং ছায়ানটের প্রতিষ্ঠাতা ওয়াহিদুল হক স্থায়ী বসতি গড়েছেন। সেই কেরাণীগঞ্জেই শেষ ঘুমে গেলেন মিতা। মা-বাবার কবরের পাশেই তাঁকে সমাহিত করা হয়েছে।

পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে ‘ছায়ানট’-এর শিল্পীদের নিয়ে ৬০ দশকে ঢাকার রমনা বটমূলে ‘এসো হে বৈশাখ এসো’ অনুষ্ঠান শুরু করেছিলেন বরেণ্য রবীন্দ্রগবেষক, গায়ক, সংগঠক এবং সাংবাদিক ওয়াহিদুল হক। ‘ছায়ানট’-এর প্রতিষ্ঠাতাও তিনি। বাংলাদেশে রবীন্দ্রচর্চা এবং শুদ্ধ রবীন্দ্রসংগীতের প্রসারে আমৃত্য নিবেদিত ছিলেন ওয়াহিদুল হক। সেই ওয়াহিদুল হকের ভ্রাতুষ্পুত্রী মিতা হক। চাচার কাছেই সংগীতে হাতেখড়ি মিতার।  

রবিবার সকাল ৬টা ২০ মিনিটে প্রয়াত হন মিতা। কয়েক দিন আগে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে সর্বশেষ দিন চারেক আগে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। কিডনির রোগে আক্রান্ত মিতা হকের নিয়মিত ডায়ালিসিস হত। তবে ‘ছায়ানট’-এ নিয়মিতই আসতেন। রবিবার ভোর রাতে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার একটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেখানেই চিচিৎসাধীন অবস্থায় প্রয়াত হন মিতা।

কথা অনুযায়ী বেলা ১১টা নাগাদ তাঁর মরদেহ নিয়ে আসা হয় ‘ছায়ানট’-এ। খবর পেয়ে এখানেই ছুটে আসেন তাঁর গুণমুগ্ধরা। তাঁরা ফুল আর অশ্রুতে শেষ বিদায় জানান মিতা হককে। ‘সুরতীর্থ’ নামের একটি সংগীতপ্রতিষ্ঠান ছিল তাঁর। সেখানে পরিচালক ও প্রশিক্ষক হিসেবে যুক্ত ছিলেন। তবে ‘ছায়ানট’ ছিল তাঁর হৃদস্পন্দন। এই সংগঠনটির ছায়াতেই নিজের বিকাশ ও বেড়ে ওঠা। এক পর্যায়ে ‘ছায়ানট’-এর রবীন্দ্রসংগীত বিভাগের প্রধান ছিলেন তিনি। দায়িত্ব পালন করেছেন রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদের সহ-সভাপতি হিসেবে।

শিল্পীর জন্ম ১৯৬৩ সালে। প্রথমে চাচা ওয়াহিদুল হক এবং পরে ওস্তাদ মোহাম্মদ হোসেন খান ও সনজীদা খাতুনের কাছে গান শেখেন। ১৯৭৪ সালে তিনি বার্লিন আন্তর্জাতিক যুব ফেস্টিভালে যোগ দেন। ১৯৭৭ সাল থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারে নিয়মিত সংগীত পরিবেশন করেছেন। তাঁর স্বামী অভিনেতা ও নির্দেশক খালেদ খান বেশ ক’ বছর আগে প্রয়াত হন। একমাত্র মেয়ে জয়িতাও রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী। তাঁর স্বামী অভিনেতা মুস্তাফিজ শাহিন।

১৯৯০ সালে ‘বিউটি কর্নার’ থেকে প্রকাশিত হয় মিতা হকের প্রথম রবীন্দ্রসংগীতের অ্যালবাম ‘আমার মন মানে না’। সংগীতায়োজনে ছিলেন সুজেয় শ্যাম। সব মিলিয়ে প্রায় ২০০টি রবীন্দ্রসংগীতে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। তাঁর একক অ্যালবামের সংখ্যা ২৪টি, যার ১৪টি ভারত থেকে ও ১০টি বাংলাদেশ প্রকাশ পায়। শিল্পী মিতা হক ২০১৬ সালে শিল্পকলা পদক লাভ করেন। সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ২০২০ সালে একুশে পদক পান।

আরও পড়ুন: বরেণ্য সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার আর নেই

Continue Reading

গান-বাজনা

মাস পেরিয়ে সমান তালে চলছে বাওবা টিভির অনুষ্ঠান

আমাদের অনেককে করে তুলেছে মানসিক বিকারগ্রস্থ। কিন্তু এই বিষের মাঝেও আমাদের করে তুলেছে আত্মনির্ভর, শিখিয়েছে অনেক কিছু।

Published

on

বাওবা টিভি

নিজস্ব প্রতিনিধি: একুশে নতুন ভাবে পথ চলতে আমরা সবাই, পেছন ফিরে তাকালে ২০২০ সবার কাছেই যেন এক আতংকের নাম। আমাদের অনেককে করে তুলেছে মানসিক বিকারগ্রস্থ। কিন্তু এই বিষের মাঝেও আমাদের করে তুলেছে আত্মনির্ভর, শিখিয়েছে অনেক কিছু।

কারুর সাহায্য ছাড়াই প্রতিকূলতার মধ্যে আমাদের থেমে না থাকা, এগিয়ে চলার শক্তি সঞ্চার করেছে আমাদের মধ্যে। এই সময় নিজেকে না থামিয়ে রেখে সবার সামনে মেলে ধরেছে নিজেদের প্রতিভা।

Loading videos...

ডিজিটাল মাধ্যমের মধ্যে দিয়ে আত্মপ্রকাশ করেছে বাওবা টিভি। দুই বাংলার সঙ্গীত ও বাচিক শিল্পীদের এক সেতু । এক মাস অতিক্রম করে স্বগৌরবে দর্শকদের মনোরঞ্জন করে চলেছে বাওবা টিভি।

ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুর থেকে সম্প্রচারিত ফেসবুকের পাতায় অন্তর্জালের এই সম্পূর্ণ বাংলা সঙ্গীত ও আবৃত্তি র অনুষ্ঠান “মনের মিলন” শুধুমাত্র জনপ্রিয়তাই নয়, চর্চার মাধ্যম হিসেবে ১৭ টি পর্বেই পাতার লাইক পেয়েছে ৫০০ টি ।

প্রতি সপ্তাহে শুক্র, শনি ও রবিবার ভারতীয় সময় রাত ৮ টায় এপার-ওপার মিলেমিশে একাকার করে দিতে ভারত ও বাংলাদেশের শিল্পীদের নিয়ে হাজির থাকছেন অনিন্দ্যকুমার মিত্র ।

এখনো পর্যন্ত যেসকল মননশীল শিল্পীরা যুক্ত হয়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন এই সময় তাঁদের নাম না নিলেই নয়

✓ অনিমিত ভট্টাচার্য (আমেরিকা)

✓ পলি পারভীন (বাংলাদেশ)

✓ জয়দীপ চট্টোপাধ্যায় (ভারত)

✓ গোলাম হায়দার (বাংলাদেশ)

✓ মৌসুমী সাহা (ভারত)

✓ অলোক রায় ঘটক (ভারত)

✓ আংকিতা নন্দী (বাংলাদেশ)

✓ অজন্তা মৈত্র (অস্ট্রেলিয়া)

✓ দীধিতি চক্রবর্তী (ভারত)

✓ সুস্মিতা চৌধুরী (বাংলাদেশ)

✓ দেবাশীষ ঘোষ (ভারত)

✓ মাসুদ আহম্মেদ (বাংলাদেশ)

✓ অপর্ণা দে (ভারত)

✓ দেবী সাহা (অস্ট্রেলিয়া)

✓ শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায় (ভারত)

✓ কাজী মাহতাব সুমন (বাংলাদেশ)

✓ সুজাতা কর্মকার (ভারত)

✓ সঞ্চিতা রাখী (বাংলাদেশ)

✓ পরিমল চক্রবর্তী (ভারত)

✓ সুমিত্রা বিশ্বাস (বাংলাদেশ)

✓ নন্দিনী লাহা (ভারত)

✓ অভি মোস্তাফিজ (বাংলাদেশ)

✓ পারমিতা দাশগুপ্ত (ভারত)

✓ প্রিয়াংকা ভট্টাচার্য্য (বাংলাদেশ)

✓ পীতম ভট্টাচার্য (ভারত)

✓ মাহমুদা সিদ্দিকা সুমি (বাংলাদেশ)

✓ রাজা চৌধুরী (ভারত)

✓ কাবেরী দাশ (আমেরিকা)

✓ অমিত চক্রবর্তী (ভারত)

✓ এস. কে. সুদীপ তন্ময় (বাংলাদেশ)

✓ জয়দীপ চট্টোপাধ্যায় (ভারত)

✓ অপর্ণা খান (বাংলাদেশ)

✓ সোমা চৌধুরী (ভারত)

✓ দিলসাদ জাহান পিউলি (বাংলাদেশ)

✓ অন্তরা মুখার্জী (ভারত)

✓ তাপস কুমার বড়ুয়া (বাংলাদেশ)

✓ সঞ্চিতা মহাপাত্র

বাওবা টিভি-র এই উদ্যোগের ডিজিটাল মুদ্রন সহযোগী খবর অনলাইন।

Continue Reading

গান-বাজনা

শান্তিনিকেতনের উৎসর্গ মঞ্চে বসন্ত উৎসবের সূচনা

পাঁচটি সম্মেলক সংগীত পরিবেশনের পাশাপাশি প্রায় ৩০ জন শিল্পী বসন্তের গান উপহার দেন রবিসন্ধ‍্যায়।

Published

on

নিজস্ব প্রতিনিধি: বসন্ত তার রঙ দিয়ে যায় মাটির বুকে। সেই রঙ দিয়ে আঁকা হয় কৃষ্ণচূড়া পিয়ালের বন। সেই রঙ দিয়ে আঁকা হয় বনের নবীন পাতার করতালি। শুষ্ক রুক্ষ বনভূমির কোলে বসন্তের গানে গুনগুন করে মৌপিয়াসি অলিরা।

দীর্ঘ মহামারির ঘরবন্দি জীবনে বসন্ত উদযাপন দিয়ে দ্বার খোলা হল মঞ্চের। গত বছর উৎসবের সলতে পাকানোর কাজ শুরু হলেও তা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

Loading videos...

‘ছায়াবীথি’ নিবেদিত ‘বসন্ত তার গান লিখে যায়’ শীর্ষক এক বসন্ত উৎসব সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হল বোলপুর শান্তিনিকেতনের উৎসর্গ মঞ্চে। পাঁচটি সংগীত গোষ্ঠীর পরিবেশনের পাশাপাশি প্রায় ৩০ জন শিল্পী বসন্তের গান উপহার দেন রবিসন্ধ‍্যায়। সংযোজনায় ছিলেন তমালী ঘোষ ও বিংশতি বসুমুখোপাধ‍্যায়। ধ্বনি সুরঝঙ্কার (বোলপুর), অনুষ্ঠান পরিকল্পনায় গৌতম ভৌমিক ও অগ্নি মাইতি।

‘আকাশ আমায় ভরলো আলোয়’, ‘দখিন হাওয়া জাগো জাগো’, ‘যদি তারে নাই চিনি’, ‘ঝরা পাতা গো’, ‘মধুর বসন্ত এসেছে’, ‘দে তোরা আমায় নূতন করে দে’, ‘এই উদাসী হাওয়ার পথে পথে’-সহ নানা গানে বসন্তের ডালি ভরে উঠেছিল। সাগরিকা মজুমদার, কৃষ্ণেন্দুদের ‘ও আমার চাঁদের আলো’, ‘পুষ্পবনে পুষ্প নাহি, আছে অন্তরে’ — অপূর্ব নিবেদন ছিল।

তবে শুধু গান নয়। ঊর্মিমালা দত্তগুপ্তর নৃত‍্যের সঙ্গে দর্পনারায়ণ চট্টোপাধ‍্যায়ের ‘যদি তারে নাই চিনি গো চিনি’ গানটি ছিল যথাযথ।

সম্মেলক গানে প্রগতি চট্টোপাধ‍্যায়ের পরিচালনায় ‘ঐকতান’, জ‍্যোতিকণা দাশগুপ্তের পরিচালনায় ‘শতভিষা সংগীত বিতান’, সোমা মিত্রের পরিচালনায় ‘সুরঙ্গম’ (দুর্গাপুর), দর্পনারায়ণ চট্টোপাধ‍্যায়ের পরিচালনায় ‘পুনশ্চ’ এবং শান্তা মুখোপাধ‍্যায়ের পরিচালনায় ‘বনবাণী’র নিবেদন প্রেক্ষাগৃহে অন‍্য মাত্রা এনে দিয়েছিল। সম্মেলক গানে ‘বসন্তে ফুল গাঁথল’, ‘রাঙিয়ে দিয়ে যাও’, ‘বসন্তে কি শুধু কেবল ফোটা ফুলের মেলা’ ও ‘মাধবী হঠাৎ কোথা হতে এল’ শ্রোতাদের মন আকৃষ্ট করে।

উপস্থিত ছিলেন মাননীয় অতিথি কবি সৈয়দ হাসমত জালাল। তাঁর কণ্ঠে শোনা যায় স্বরচিত দু’টি কবিতা।

বিশ্বভারতীর অধ‍্যাপক মলয়শঙ্কর চট্টোপাধ‍্যায়ের কণ্ঠে শোনা যায় ‘চরণরেখা তব যে পথে দিলে লেখি’ গানটি। সংগীত ভবনের অধ্যাপক প্রশান্ত ঘোষ এবং অধ্যাপক সুরজিৎ রায় পর পর পরিবেশন করলেন ‘পথ দিয়ে কে যায় গো চলে’ ও ‘একটুকু ছোঁয়া লাগে’।

যাঁদের সহযোগিতায় সমগ্র অনুষ্ঠানটি প্রাণ পেয়েছিল তাঁরা হলেন কীবোর্ডে অনিমেষ চন্দ, তবলায় কমলেশ রায় ও এসরাজে সৌগত দাস।

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ2 hours ago

Bangladesh Covid Vacination: টিকা ট্রায়ালে চিন অর্থ চাওয়ায় রাজি হয়নি বাংলাদেশ

বাংলাদেশ3 hours ago

Bangladesh-China Relation: চিনের এমন আচরণ আশা করেনি বাংলাদেশ

দেশ5 hours ago

G-7 Summit: পর্তুগালের পর ইংল্যান্ড যাচ্ছেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

বিজ্ঞান6 hours ago

জানেন কি, কোভিড থেকে সুস্থ হওয়ার পর অ্যান্টিবডিগুলি কত দিন পর্যন্ত রক্তে থেকে যায়

রাজ্য6 hours ago

Bengal Corona Update: কুড়ি হাজারের গণ্ডি পেরোল দৈনিক সংক্রমণ, প্রচুর টেস্টর ফলে সংক্রমণের হার ৩০ শতাংশের নীচে

coronavirus test
দেশ7 hours ago

আক্রান্তদের ফের আরটি-পিসিআর নয়, কোভিড টেস্টে নয়া নির্দেশ কেন্দ্রের

বিনোদন8 hours ago

‘রাধে’র বক্স অফিস কালেশন হতো ‘জিরো’, হল মালিকদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী সলমন খান

দেশ9 hours ago

Vaccination Drive: জোগান নেই, মহারাষ্ট্রে বন্ধ হয়ে গেল কমবয়সিদের টিকাকরণ

বিজ্ঞান2 days ago

কোভিডের ভাইরাস বায়ুবাহিত, ৬ ফুট পর্যন্ত ছড়াতে পারে, দাবি শীর্ষ মার্কিন সংস্থার

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় একই, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতা

ক্রিকেট2 days ago

বিরাট-রোহিত ছাড়াই এক নতুন ভারতীয় দলকে জুলাইয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে দেখা যাবে!

প্রবন্ধ3 days ago

এমনই বৈশাখের একটি দিনে মুখোমুখি হয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ও শ্রীরামকৃষ্ণ

দেশ18 hours ago

Covid Crisis: অক্সিজেনের অভাবে ১১ কোভিডরোগীর মৃত্যু অন্ধ্রপ্রদেশের হাসপাতালে

Madhyamik examination west bengal
শিক্ষা ও কেরিয়ার10 hours ago

Madhyamik 2021: আপাতত সম্ভব নয় মাধ্যমিক পরীক্ষা, সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় পর্ষদ

রাজ্য2 days ago

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয় মন্ত্রীসভায় একাধিক নতুন মুখ

দেশ2 days ago

ভ্যাকসিন এবং কোভিডের চিকিৎসা সরঞ্জামে ট্যাক্স কেন? মমতার চিঠির পর ১৬টা টুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে