Connect with us

গান-বাজনা

আধুনিক বাংলা গানের জগতে নতুন সংযোজন ‘মন মাঝি তুই ধরা দিলি না’, মুক্তি পেল ইউটিউবে

Published

on

স্মিতা দাস

তুই কেন যে ধরা দিলি না, / কত বসন্ত হয়ে গেছে পার, / মনমাঝি তুই সারা দিলি না।

দুই বন্ধুর মিলিত প্রচেষ্টায় আধুনিক বাংলা গানের জগতে নতুন সংযোজন ‘মন মাঝি তুই ধরা দিলি না’। ১৬ আগস্ট শুভসাম ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেয়েছে গানটি।

গানটি গেয়েছেন বৈশালী দাস, লিখেছেন শুভাশিস চক্রবর্তী, সুর দিয়েছেন সম্রাট চট্টোপাধ্যায়।

সম্রাট চট্টোপাধ্যায় বলেন, শুভাশিস আর তাঁর মিলিত উদ্যোগেই এটা সম্ভব হয়েছে। দুই জনের কাছেই গানটা প্যাশন। তাঁরা চাইছেন বিখ্যাত সংগীতশিল্পীদের দিয়ে কাজ করাতে। তবে এই লকডাউনের বাজারে অর্থনৈতিক দিক থেকে কিছুটা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।

বলেন, তাঁদের ইচ্ছা ছিল কোনো মিউজিক কোম্পানির হয়ে কাজ করতে। কিন্তু সেই সুযোগ এখনও আসেনি। তবে ভবিষ্যতে এই ভাবেই কাজ করার লক্ষ্য রয়েছে।

তাঁদের লক্ষ্য, মেলোডি গান তৈরি করা। কারণ এখন আর এই ধরনের গান শোনা যায় না। আজকালকার নতুন ধারার গান বেশি দিন মনে থাকে না। দাগ কাটে না। তাই তাঁদের গানকে দীর্ঘ দিন বাঁচিয়ে রাখতেই পুরোনো দিনের মেলোডি গানের মতোই গান তৈরির কথা ভাবছেন তাঁরা। এটাই তাঁদের প্রথম কাজ নয়। এর আগেও তাঁরা কিছু কাজ করেছেন।

সম্রাট বলেন, ইতিমধ্যে তাঁদের কাছে ভিন্ন স্বাদের প্রচুর গান তৈরি হয়ে রয়েছে। কিন্তু উপযুক্ত সুযোগের অভাবে আত্মপ্রকাশ করতে পারছেন না।

এই সামান্য সময়ে গানের ভিডিওটি ভালোই ভিউ হয়েছে। তাই যদি প্রচারের আলো পায় তা হলে নিশ্চয়ই আরও ভালো করবে বলে মনে করছেন, সম্রাট।  

দেখতে পারেন – দেশবিদেশের শিল্পীদের নিয়ে বাইশে শ্রাবণে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের নিবেদন ‘ভুবনজোড়া আসনখানি’

অনুষ্ঠান

মহালয়া উপলক্ষ্যে অনলাইনে ‘বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গন’-এর নিবেদন ‘দুর্গা দুর্গতিনাশিনী’

Published

on

স্মিতা দাস

“অহং রুদ্রেভির্বসুভিশ্চরাম্যহম্‌ / আদিত্যৈরুত বিশ্বদেবৈঃ।/ অহং মিত্রাবরুণোভা বিভর্ম্যহম্ / ইন্দ্রাগ্নী অহমশ্বিনোভা ।।”

সময়ের দাবি মেনে, নিজের ও অন্যের মঙ্গলের কথা ভেবে উৎসব উদযাপনে বদল মেনে নিতে ক্ষতি তো নেই। তাই কোভিড-পর্বের শুরু থেকেই সম্পূর্ণ ডিজিটাল মাধ্যমে, পারস্পরিক দূরত্ববিধি মেনে একের পর এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে চলেছে ‘বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গন’।  বাংলা নববর্ষ, রবীন্দ্রজয়ন্তী, বাইশে শ্রাবণ, বর্ষা-বরণ ইত্যাদির পর এ বারের নিবেদন ‘দুর্গা দুর্গতিনাশিনী’। সহযোগিতায় কলকাতা সাংস্কৃতিক অঙ্গন।

দুর্গাপুজো উপলক্ষ্যে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের রয়েছে আরও অনেক অনুষ্ঠান। তবে তার আগে শুধু মহালয়া

১৭ সেপ্টেম্বর, মহালয়ার দিনেই অনুষ্ঠিত হবে এই ‘দুর্গা দুর্গতিনাশিনী’। সঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তির মেলবন্ধনে এই অনুষ্ঠানও হবে ডিজিটাল মাধ্যমে। শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে শিল্পীরাও থাকবেন যে যাঁর বাড়িতে। অথচ বাজবে পাশাপাশি বেঁধে-বেঁধে থাকার মূল সুরটিই।

এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই প্রার্থনা দেবীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। আনন্দময়ী, অসুরবিনাশিনী মহামায়ার পদধ্বনি যেন মুছে দেয় এই দুঃসময়। ‘জাগো, জাগো মা!’

মহালয়ার এই বিশেষ অনুষ্ঠানে থাকছেন, সংযুক্তা ব্যানার্জি (কানাডা), মালবিকা সেন, কৌশিক চক্রবর্তী, চন্দ্রাবলী রুদ্র দত্ত, মধুমিতা বসু, জয়িতা বিশ্বাস। এই অনুষ্ঠানে আকাশবাণীর মহালয়ার বিশেষ অনুষ্ঠানের স্মৃতি চারণ করবেন, দিলীপ ঘোষ। সঞ্চালনায় থাকবেন গার্গী দত্ত। এ ছাড়াও বাংলাদেশে থেকে অংশগ্রহণ করবেন, বুলবুল মহলানবীশ, বর্ণালী সরকার, চট্টগ্রামের প্রিয়া ভৌমিক, শিঞ্জিনী বিশ্বাস, কাকলি চক্রবর্তী, চন্দ্রিমা সেনগুপ্ত, সুদীপ্ত মিত্র, শিল্পী মিত্র, শুভেচ্ছা মিত্র, বিজয়া সেনগুপ্ত, ফ্লোরিডা থেকে কাজল গুপ্ত, সঞ্চারী পাল ও আরও অনেকে।

অনুষ্ঠানটি দেখা যাবে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের ফেসবুক পেজে।

দেখতে হলে ক্লিক করুন

আরও পড়ুন – শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে অনলাইনে ‘বাল্মীকি প্রতিভা’ নিবেদনে অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমি

Continue Reading

অনুষ্ঠান

শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে অনলাইনে ‘বাল্মীকি প্রতিভা’ নিবেদনে অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমি

Published

on

স্মিতা দাস

করোনা অতিমারি, লকডাউন এবং শারীরিক দূরত্ববিধি ইত্যাদির যৌথ হানা শিল্পীদের কাছ থেকে কেড়ে নিয়েছে মঞ্চ, কিন্তু শিল্প কখনও থেমে থাকে না। সে তার নিজের মতো করে আত্মপ্রকাশের পথ করে নেয়। তাই বিগত কয়েক মাসে বহু উৎসব ও অনুষ্ঠান সমস্ত বিধি মেনেও আত্মপ্রকাশের ঠিকানা খুঁজে নিয়েছে। আর সেই ঠিকানা হয়েছে ইন্টারনেট, অনলাইন সোশ্যাল মিডিয়া। এমন একটি বিশেষ উপলক্ষ্য ছিল শিক্ষক দিবস। অন্যান্য বারের মতো করে না হলেও শিক্ষক দিবসে অনলাইনে শিক্ষাগুরুদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করল অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমি।

১০ সেপ্টেম্বর অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমি-র ফেসবুক পেজে মুক্তি পেল কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘বাল্মীকি প্রতিভা’ নৃত্যনাট্যটি। নৃত্যনাট্যটির ভাবনা ও পরিকল্পনায় প্রশান্ত (অঞ্চল) পাল ও অম্ব্রীজ সরকার, পরিচালনায়  প্রশান্ত (অঞ্চল) পাল এবং নির্দেশনায় অম্ব্রীজ সরকার।         

এই বিষয়ে প্রশান্ত পাল জানান, শিল্পীরা সকলে তাঁদের নৃত্যগুরুদের সম্মান জানানোর জন্য এই নৃত্যনাট্য করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু ৫ সেপ্টম্বর অনেকেই কোনো না কোনো অনুষ্ঠান করেছেনই, তাই পরেও সেই স্বাদ ফিরিয়ে দিতে ১০ তারিখটি নির্ধারণ করা হয়েছে।  

তা ছাড়াও তিনি বলেন, মানুষ এখন প্রতিশোধের জন্য উদগ্রীব। দিকে দিকে রক্তপাত, কিন্তু তাতেও তারা ভীত নয়। অথচ এক সময় একজন দস্যু তার দস্যুবৃত্তি ছেড়ে দিয়েছিলেন, রক্ত ক্ষয়কে ত্যাগ করে নিজেকে অন্ধকার থেকে আলোর পথে, খারাপ থেকে ভালোর দিকে নিয়ে গিয়েছিলেন। এখন বর্তমান পরিস্থিতিতেও তেমনই দস্যু রত্নাকরদের দরকার। যারা রক্তক্ষয় বন্ধ করে আলোর পথের দিশা দেখাবে। এমনই বার্তা পৌঁছে দিতে এই নৃত্যনাট্যটি করার কথা ভাবা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে মঞ্চে অনেক অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। কিন্তু এ বার সেই পরিস্থিতি নেই। তাই এই ভাবেই বাড়ি থেকেই গুরুদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হল। পাশাপাশি অবসাদ কাটানোরও চেষ্টা করা হল ।

এই নৃত্যনাট্যে বিভিন্ন ভূমিকায় ছিলেন, দস্যু রত্নাকর – প্রশান্ত পাল, বাল্মীকি – অম্ব্রীজ সরকার, ব্যাধ -চিরঞ্জিৎ মাল ও বিবেক রঞ্জন মাল, লক্ষ্মী ও সরস্বতী – মানসী চক্রবর্তী, বালিকা – দীপান্বিতা মাল, বনদেবী – বনশ্রী মেহেরা, সংলিপ্তা কুণ্ডু, প্রজ্ঞা রায়, সুমি রায়, দস্যুদল – কৌশিক সাউ, তমাল কান্তি রায়, কুনাল চক্রবর্তী, প্রসেনজিৎ নাথ।

অনুষ্ঠানটি দেখতে হলে ক্লিক করুন এখানে।

মা সরস্বতীর আশীর্বাদে এক দস্যু কিভাবে ঋষিতে পরিণত হলো, সেই ঘটনা কবি গুরুর হৃদয় স্পর্শ করে । সেই পবিত্র লাভের কাহিনী…

Posted by Agnibina Dance Academy on Thursday, September 10, 2020

দেখুন – অনলাইনে সম্পূর্ণ অন্য ধরনের অনুষ্ঠান উপহার দেওয়ার আশায় রঙ্গমঞ্চের উদ্যোগ ‘বৈঠক’

Continue Reading

অনুষ্ঠান

অনলাইনে সম্পূর্ণ অন্য ধরনের অনুষ্ঠান উপহার দেওয়ার আশায় রঙ্গমঞ্চের উদ্যোগ ‘বৈঠক’

Published

on

স্মিতা দাস

লকডাউনের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক রকমেরই নৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজন হয়ে। সেই দিক থেকে একটু ভিন্ন ধরনের আয়োজন করায় প্রচেষ্টায় ছিল রঙ্গমঞ্চ।  ২২ আগস্ট থেকে ডিজিটাল প্লাটফর্মে চলেছে ‘বৈঠক’। নয় দিনের এই অনুষ্ঠান শেষ হয় ৩০ আগস্ট। কলকাতার নৃত্যজগতের বেশ কয়েক জন পরিচিত শিল্পীকে নিয়ে বসেছিল এই বৈঠক।

রঙ্গমঞ্চের তরুণ তিন কর্ণধার দেবাদৃতা মজুমদার, ঋত প্রতিম চৌধুরী, সৌপর্ণী সিংহ। তাঁদের চিন্তা ভাবনার ফসলই হল এই অনুষ্ঠানটি। উৎসব পরিচালকদের উদ্দেশ্য ছিল দর্শকের কাছে এই নৃত্য উৎসবকে শুধু মনোগ্রাহী করে তোলাই নয়, নতুন প্রজন্মের কাছে ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য সম্পর্কে ভালোবাসা ও জ্ঞান সৃজন করা। তাঁদের মতে, নতুন প্রজন্মের কাছে আস্তে আস্তে শাস্ত্রীয় নৃত্য সম্পর্কে চাহিদা জ্ঞান কমে যাচ্ছে। যাতে তারা নৃত্যচৰ্চা ও অনুশীলনের মধ্যে থাকতে পারে সেই উদ্দেশ্যেই এমন আয়োজন। শাস্ত্রীয় নৃত্য নিয়ে মনের যাবতীয় প্রশ্ন দূর করতে পারে তার জন্য এই ৯ দিন ব্যাপী উৎসব।

তাঁরা বলেন, সকলের শুভেচ্ছা ও সহযোগিতা পেলে আগামী দিনেও এমন আরও অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা আছে।

৯ দিনের বৈঠকে ছিলেন, ঋতুশ্রী চৌধুরী, সৌভিক চক্রবর্তী, রম্যানি রায়, সৌম্য ভৌমিক, ইভানা সরকার, পৌলমী মুখার্জি, অভিজিৎ কুণ্ডু, শিবনারয়ণ ব্যানার্জি, কলামন্ডলম স্বর্ণদীপা মহান্তের মতো কলকাতার খ্যাতনামা নৃত্যশিল্পীরা। শিল্পীদের ও তিন কর্ণধারের চেষ্টা ছিল এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও সবাইকে আশার আলো দেখানো। পাশাপাশি শাস্ত্রীয় নৃত্য সম্পর্কে সব মানুষকে সচেতন করা।

তাঁরা বলেন, ফেসবুক পেজের মাধ্যমে সকলের কাছে পৌঁছে যাওয়া রঙ্গমঞ্চের মূল উদ্দেশ্য। তাঁদের এই ভাবনায় শুধু শাস্ত্রীয় নৃত্য নয়, সব রকমের আর্টফর্মকেই রেখেছেন। তাঁদের প্রার্থনা, এই ডাকে যেমন সাড়া দিয়েছেন শিল্পীরা, তেমনই সকলেই যেন তাঁদের অর্থাৎ রঙ্গমঞ্চের সকল উদ্যোগকে সফল করতে সাহায্য করেন।

দেখা যাবে এই লিঙ্কে ক্লিক করে।

Baithak

Posted by Rangmanch on Saturday, August 22, 2020

আরও – আধুনিক বাংলা গানের জগতে নতুন সংযোজন ‘মন মাঝি তুই ধরা দিলি না’, মুক্তি পেল ইউটিউবে

Continue Reading
Advertisement
আইপিএল16 mins ago

আইপিএল-এর ইতিহাসে রান তাড়া করার রেকর্ড, পাঞ্জাবকে হারিয়ে জিতল রাজস্থান রয়্যালস

Balasaheb Thorat
দেশ3 hours ago

রাষ্ট্রপতির সম্মতি মিললেও নয়া তিন কৃষি আইন কার্যকর করবে না মহারাষ্ট্র, হুঁশিয়ারি মন্ত্রীর

রাজ্য4 hours ago

রাজ্যে দৈনিক আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যায় সামান্য বৃদ্ধি, ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতা

farm bills protest
দেশ5 hours ago

নাটকীয় ভাবে সংসদে পাশ হওয়া কৃষি বিলে স্বাক্ষর রাষ্ট্রপতির

দেশ5 hours ago

সেরো সার্ভের রিপোর্ট তুলে ধরে কোভিড নিয়ে সতর্ক করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দেশ6 hours ago

জল্পনার অবসান! নীতীশ কুমারের দলে যোগ দিলেন বিহারের প্রাক্তন ডিজি

রাজ্য8 hours ago

২ নভেম্বর থেকে কলেজের ক্লাস অনলাইনে, সাফ জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

রাজ্য8 hours ago

সিঙ্গুর প্রসঙ্গ টেনে বিজেপি-সঙ্গ ত্যাগকারী অকালি দলকে সমর্থন তৃণমূলের

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা3 days ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা5 days ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 week ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা2 weeks ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা3 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা3 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা1 month ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

নজরে