Connect with us

চিত্রকলা

নটি বিনোদিনী মেমোরিয়াল আর্ট গ্যালারিতে ‘অভিবন্দনা’র ‘মা’

maa
smita das
স্মিতা দাস

‘মা’ শীর্ষক চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে ‘অভিবন্দনা’। চিত্র প্রদর্শনীটি চলছে স্টার থিয়েটারের নটি বিনোদিনী মেমোরিয়াল আর্ট গ্যালারিতে। মঙ্গলবার শেষ দিন। চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

চিত্র প্রদর্শনীতে ৫০-এরও বেশি চিত্র ও আলোকচিত্র প্রদর্শিত হচ্ছে। ছবিগুলির পেছনে প্রায় ৫০ জন শিল্পীর অবদান রয়েছে।


চিত্র – ‘মা’

শারদীয়া মাতৃবন্দনার এই বিশেষ মরশুমে অনুষ্ঠিত এই প্রদর্শনীতে বিভিন্ন রূপে নারীর মাতৃশক্তি ও মায়ের বিভিন্ন অনুভূতিকে তুলে ধরা হয়েছে। সেখানে যেমন সাধারণ নারীর বিভিন্ন চেহারা তুলে ধরা হয়েছে তেমনই রয়েছে দেবী দুর্গার বিভিন্ন রূপও।

আলোকচিত্র

প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয় প্রদর্শনীর। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চিত্রশিল্পী তপন চট্টোপাধ্যায়, চিত্রশিল্পী ও চিত্র সমালোচক দেবব্রত চক্রবর্তী, পর্বতারোহী ও অর্জুন পুরস্কার প্রাপ্ত দেবাশিস বিশ্বাস, একদিন ও সালাম দুনিয়া সংবাদপত্রের চিত্র সাংবাদিক অদিতি সাহা।

লোগো প্রকাশ

এই দিনের অনুষ্ঠানে অভিবন্দনার প্রদর্শনী পুস্তিকার উদ্বোধন করা হয়। সঙ্গে প্রকাশ করা হয় অভিবন্দনার প্রতীকও।

প্রদর্শনী পুস্তিকা প্রকাশ

অনুষ্ঠানে প্রায় ৫০ জন শিল্পীকে স্মারক, মানপত্র ও প্রদর্শনী পুস্তিকা দিয়ে পুরষ্কৃত করা হয়।

maa
উদ্বোধন

অভিবন্দনার প্রধান অভিমুন্য দাস জানান, তিন বছর ধরে বিভিন্ন সময়ে তাঁরা চিত্র নিয়ে প্রদর্শনী করে আসছেন। এই পর্যন্ত বহু শিল্পীর আঁকা ছবি তাঁরা প্রদর্শনীতে রেখেছেন। তাঁদের উৎসাহিত করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আগামীতেও এমন প্রচেষ্টা আরও ব্যাপক আকারে করার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন তিনি।

আরও পড়ুন

চিত্রকলা

পটচিত্র আঁকার কর্মশালা হয়ে গেল খোয়াব গাঁ-এ

khwabgaon

স্মিতা দাস

একটি নির্দিষ্ট পরিসীমার মধ্যে ছবি আঁকা যায় নইলে নয়, এমন ধারণা থেকে বেরিয়ে এসেছি আমরা, তা অনেক দিনই হল। এখন পথও চিত্রকলার ক্যানভাস। সে ক্ষেত্রে অনেকেই বলতে পারেন আলপনা তো মাটিতেই দেওয়া হয়ে আসছে বহু যুগ ধরে, এ আর নতুন কী? তা ঠিক। তবে একটি গোটা গ্রাম ছবি আঁকার ক্যানভাস! এ তো সহজ কথা নয়। তবে তাই সত্যি। ঝাড়গ্রামের একটি গ্রাম, নাম ‘খোয়াব গাঁ’। সেখানে গোটা গ্রামটাই ছবি আঁকার রং দেওয়ার ক্যানভাস।

জীব বৈচিত্রের পট

যাইহোক, সেই খোয়াব গাঁয়েই ললিত কলা অ্যকাডেমির সঙ্গে চালচিত্র অ্যকাডেমির সহযোগিতায় আরও একটি চিত্র প্রদর্শনী তথা কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। এই কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন ছয় জন পটুয়া। তাঁরা হলেন মানু চিত্রকর, স্বর্ণ চিত্রকর, বাহাদুর চিত্রকর, দুখু শ্যাম চিত্রকর, মন্টু চিত্রকর, সানুয়ার চিত্রকর।

বিদ্যাসাগরের পট

উদ্বোধনের দিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন ললিতকলা অ্যকাডেমির কলকাতা রিজিওন্যাল সেন্টারের সেক্রেটরি বিপিন বিহারী মার্থা। উপস্থিত ছিলেন তথ্য সংস্কৃতি আধিকারিক মহুয়া মল্লিক-সহ এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবী ও প্রধান শিক্ষক তাপস খান। বিষয়টিতে আরও উন্নতির আশা প্রকাশ করেন তাঁরা। এই ধরনের কাজে তাঁদের সহযোগিতার আশ্বাসও দেন। অনুষ্ঠানে দুখু শ্যাম চিত্রকরকে বিশেষ সম্মান জানানো হয়।

গান্ধীর পট
পড়ুন – খোয়াবগাঁ, গ্রাম নয়, ক্যানভাস
দুর্গাপট

পাঁচ দিনের এই কর্মশালায় প্রথম চারদিন এই ছ’জন চিত্রকর ছবি এঁকেছেন। এই ছবিগুলিতে প্রাধান্য পেয়েছিল গান্ধীজির দেড়’শ বছর ও বিদ্যাসাগরের ২০০ বছরের বিষয়টি। এ ছাড়াও ছিল দুর্গাপট, মনসামঙ্গলের পট, কৃষ্ণলীলা, ছিল জীব বৈচিত্র বাঘ সংরক্ষণ, সম্প্রীতি নিয়ে পটও।

মনসাপট

শেষ দিনটিতে গ্রামের ছোটোদের ছবি আঁকার পাঠ দেওয়া হয়। শেখানো হয় প্রাকৃতিক বা ভেসজ রং তৈরির পদ্ধতি, পট আঁকা, পটের গান।

Continue Reading

চিত্রকলা

খোয়াবগাঁ, গ্রাম নয়, ক্যানভাস

khowabga

চান্দ্রেয়ী দে

খোয়াবগাঁ। খোয়াবের আঁচড় তার গায়ে – মাটিতে, উঠানে, দেওয়ালে; গাছে ও দরজা-জানলায়। শালের জঙ্গল ভেঙে সরু পথ এখানে এসেছে। কিছুক্ষণ পরে পরেই পাতা ঝরে পড়ার সরসর শব্দ। আর আছে নদী-নালা-খেত ও জীবন। তার গায়েই খোয়াবের রং-তুলি বুলিয়ে দিচ্ছেন শিল্পীরা।

চালচিত্র একাডেমির হোর্ডিং

‘চালচিত্র অ্যাকাডেমি’-র বন্ধুরা এসেছিলেন খোলা ক্যানভাসের খোঁজে। খুঁজে পেলেন ঝাড়গ্রাম সংলগ্ন শালবীথির আড়ালে লোধাদের ছোট্ট এই গ্রাম। স্থানীয় নাম লালবাজার। আর রং-তুলির খোয়াবে সেজে ওঠার এই নতুন রূপটির নাম দিয়েছেন অধ্যাপক শিক্ষাবিদ শিবাজী বন্দ্যোপাধ্যায় – খোয়াবগাঁ। লাল মাটির পথের দু’ পাশে টিনের চাল দেওয়া মাটির ঘর। হাতে গোনা কয়েকটি পরিবার। খেতের কাজ, পশুপালন আর শিকার; মূলত এই তাঁদের রুটিরুজি। উঠোনে তোলা-উনুন, দেবতার থান, ছোটো বড়ো গাছগাছালি আর পোষা গোরু-ছাগল-হাঁস। তারই মধ্যে রঙে, ছবিতে আলপনায় ভরে উঠছে গ্রামের চারপাশ।

হাতের কাজে ব্যস্ত খোয়াবগাঁয়ের মহিলারা
আনন্দে মেতে কচিকাঁচারা

‘চালচিত্র’-র মৃণালদা ওরফে গ্রামের কচিকাঁচাদের ‘মাস্টার’ এলেই খুশিতে উচ্ছ্বল ছেলে, বুড়ো সকলেই। গ্রামের মানুষ ষষ্ঠীদা গুছিয়ে বলেন, কী ভাবে পার্টির ছেলেদের দেওয়াল লিখতে নিষেধ করে দিয়েছেন ওঁরা, ওখানে যে ‘মাস্টার’-এর বন্ধুরা আর গ্রামের ছোটোরা মিলে ছবি আঁকবে! আর সেই মতোই ‘চালচিত্রে’র শিল্পীবন্ধুরা যখনই আসেন, সকাল থেকেই লেগে পড়েন তুলি বোলানোর কাজে। বাচ্চারা মহানন্দে যোগ দেয় কচি হাতে লাল নীল সবুজ মেখে নিয়ে। এ ছাড়াও যজ্ঞেশ্বর আর রামেশ্বর, ঝাড়গ্রামেরই এক সাঁওতাল গ্রামের দুই শিল্পী এই শিশুদের শেখান হাতের কাজ, তুলির টান আর কাটুম-কুটুম।

গ্রাম সাজাতে হাত লাগিয়েছে ছোটোরাও
এইভাবেই সেজে উঠেছে গাঁইয়ের প্রতিটি কাঁচা পাকাবাড়ি
শিল্পির ছোঁয়ায় পুরোনো ঘরের নতুন রূপ

গত বছর থেকে বেশ কয়েক বার ‘চালচিত্র অ্যাকাডেমি’ পৌঁছে গিয়েছে শাল আর লালমাটি মোড়া এই স্বপ্নের গ্রামে। হয়েছে নানা ওয়ার্কশপ। ভোটের মরশুমে যখন আশেপাশের এলাকায় দেওয়াল জুড়ে রাজনৈতিক দলের চিহ্ন ও প্রতিনিধিদের নাম, তখন খোয়াবগাঁ-র দেওয়ালে দেওয়ালে রঙিন ছবি। যে ছবির কোনো দল নেই, কোনো ভাগাভাগি নেই। ঠিক গাঁয়ের মানুষগুলোর মতোই সে সব ছবি জলে ভিজে রোদে পুড়ে এই সাদাসিধা লোধা যাপনের সঙ্গী হয়ে উঠেছে। প্রকৃতিঘেরা এই উদোম ক্যানভাস ক্রমশ হয়ে উঠবে এই মানুষগুলোর নিজস্ব স্টুডিও, তাঁদেরই আঁচড়ে তাঁদের মনের মাধুরীর স্বতঃস্ফুর্ত প্রকাশ – এমনটাই আশা ‘চালচিত্রে’র বন্ধুদের।  

আরও খবর পড়তে ক্লিক করুন

 

Continue Reading

চিত্রকলা

চিত্রকথায় শহরের পথছবি

Chitrakotha

নিজস্ব প্রতিনিধি : বদলে যাচ্ছে শহর। রং বদলেছে শহরের উড়ালপুল, রাস্তার ডিভাইডার, সরকারি ভবনের। বদলেছে কি শহরের ফুটপাতজীবন বা তার রং? বদলেছে কি গলির মধ্যে এখনো কোনো মতে বেঁচে থাকা পুরনো কলকাতা ? তারই উত্তর খুঁজতে বেড়িয়ে পড়েছিল মুকুট ও সৌম্যশ্রী।

chitrakotha

তাঁদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছে শহরের সেই ফুটপাত বা বস্তিবাসী মানুষের জীবনযাপন, তাদের জীবনের রং। মুকুট ও সৌম্যশ্রী তোলা পুরোনো কলকাতা এবং তার পথজীবনে কিছু ছবি নিয়ে কলেজ স্ট্রিট কফি হাউজের বই-চিত্রে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল একটি প্রদর্শনী।

সোমবার এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন চিত্রশিল্পী পৃথ্বীশ শিকদার।

chitrakotha

কমপিউটার বিজ্ঞানের ছাত্র মুকুট মনের টানে হাতে তুলে নিয়েছেন ক্যামেরা। পড়াশুনোর ফাঁকে সুযোগে পেলেই ক্যামেরা হাতে বেরিয়ে পড়েন। সৌম্যশ্রীরও ক্যামেরার লেন্সে চোখ রেখে জগত দেখার কারণ মনের টান।

আরও পড়ুন : শব্দ-সঙ্গীত-ছবিতে উদ্‌যাপিত প্রেম, দ্রোহ, প্রতিরোধের জনতার সাহিত্য উৎসব

 

প্রথম প্রদর্শনী । তাই উত্তেজনায় টগবগ করতে ফুটতে ফুটতে দু’জনে স্বপ্ন দেখেন আরও প্রদর্শনী করার।

Continue Reading
Advertisement
বিজ্ঞান6 hours ago

সূর্যাস্তের পর অন্তত ২০ মিনিট দেখুন উত্তর-পশ্চিম আকাশে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’, চলবে মাসভর

বাংলাদেশ9 hours ago

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

রাজ্য10 hours ago

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

প্রযুক্তি12 hours ago

রিলায়েন্সের নতুন ‘জিও গ্লাস’, চশমাটি কী কাজে লাগবে?

রাজ্য13 hours ago

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

Amit Shah
দেশ13 hours ago

মোদী সরকারের অগ্রাধিকারের তালিকায় নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা: অমিত শাহ

গান-বাজনা13 hours ago

১২ বছরের পথচলায় ‘মুক্তধারা’র মুকুটে আরও একটি পালক, চালু হল ইউটিউব চ্যানেল

laptop
কেনাকাটা13 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা13 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে