মাইকেল জ্যাকসনের দ্বাদশ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সৌমিতা সাহার প্রর্দশনী ‘এনভিসেজিং মাইকেল’

0
‘এনভিসেজিং মাইকেল’

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিনোদনপ্রেমী থেকে সংস্কৃতিপ্রেমী, সব মানুষের মনে মাইকেল জ্যাকসনের (Michael Jackson) জন্য একটা আলাদা জায়গা রয়েছে। যখন অতিমারির নামও শোনেনি মানুষ, সেই যুগেই মাইকেল গেয়েছিলেন ‘হিল দ্য ওয়ার্ল্ড’। ঠিক ১২ বছর আগে ২৫ জুন মাইকেল চিরবিদায় জানান পৃথিবীকে। মাইকেল অনুরাগীদের কাছে আজও তিনি অমর।

মাইকেলের নৃত্যশৈলী আজ সমগ্ৰ বিশ্ব জুড়ে জনপ্রিয়। ভারতে মাইকেল অনুরাগীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়। আশির দশকের শেষ ভাগে বহু অভিনেতা, শিল্পী  অনুপ্রাণিত হযন মাইকেলের নৃত্যশৈলীতে। মাইকেলের নাচ থেকে পরিধানের বৈশিষ্ট্য, সবই পৌঁছেছে ভারতের ঘরে ঘরে। ৯০-এর দশকের ওয়েস্টার্ন মিউজিকপ্রেমীদের মনের মণিকোঠায় স্বমহিমায় বিরাজ করতেন মাইকেল।

Shyamsundar
সৌমিতা সাহা

২৫ জুন শুক্রবার মাইকেল জ্যাকসনের মৃত্যুর ১২ বছর পূর্ণ হবে। সেই উপলক্ষ্যে বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত চিত্রকর সৌমিতা সাহা আয়োজন করেছেন এক ভার্চুয়াল চিত্রপ্রর্দশনীর। প্রর্দশনী জুড়ে থাকছে শিল্পীর ক্যানভাসে ফুটে ওঠা বিভিন্ন আর্ট ফর্মে মাইকেল জ্যাকসন। এই প্রর্দশনীর মূল আকর্ষণ ‘এনভিসেজিং মাইকেল’ শীর্ষক ছবিটি। আর এই ছবির নামেই প্রদর্শনীর নামকরণ করা হয়েছে ‘এনভিসেজিং মাইকেল’ ছবির নামে।

‘এনভিসেজিং মাইকেল’ নামে ছবিতে মাইকেলকে দেখানো হয়েছে ভারতনাট্যম নৃত্যভঙ্গিমায়। এই ছবিটি প্রসঙ্গে শিল্পী সুমিতা সাহা জানান, “মাইকেল জ্যাকসন এক দিকে যেমন ছিলেন অসামান্য সংগীতশিল্পী, অন্য দিকে তেমনই একজন দক্ষ নিজস্বতায় ভরপুর নৃত্যশিল্পী। ভারতীয় নৃত্যশৈলীতে এমনই একজন বিশ্ব-শ্রেষ্ঠ  শিল্পীকে কল্পনা করেছি।”

কোভিড পরিস্থিতির কারণে এই অনুষ্ঠান অনলাইন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে শিল্পী জানান। প্রর্দশনী চলবে ২৯ জুন অবধি।

আরও পড়ুন: কোভিড ও ‘ইয়াস’-এ ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে বাংলা সংগীতজগতের দিকপালরা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন