পুজোর আগে এলাকায় প্রান্তিক মানুষদের হাতে নতুন পোশাক তুলে দিল পাঠবাড়ি বয়েজ

0
পাঠবাড়ি বয়েজ

নিজস্ব প্রতিনিধি : ‘পুজো মানেই নতুন জামাকাপড়’। বছরভর জামা জুটলেও পুজোয় নতুন জামাকাপড়ের জন্য হাপিত্যেশ করে বসে থাকে মন।

তবে যারা এক পেট খিদে নিয়ে দিনগুজরান। তাদের কাছে এক পেট ভাতই স্বপ্নে আসে, নতুন জামা কাপড় সে তো স্বপ্ন বিলাসিতা। তবু আশপাশে, পুজো উপলক্ষে নতুন জামাকাপড় কেনার ঢল দেখলেই মনটা কেমন ছলছল করে ওঠে। সাধ থাকলে সাধ্য নেই। এই করোনাকালে পরিস্থিতিটা আবার অন্যরকম।

এমনই এক সময়ে এলাকার কিছু প্রান্তিক মানুষের পাশে দাঁড়াল পাঠবাড়ি বয়েজ। পুজোর আগে তাদের হাতে তুলে দিল নতুন জামাকাপড়।

পাঠবাড়ি বয়েজ
কৃতি পুড়ায়াদের সম্বর্ধনা

সদস্যদের বয়স ১৮ থেকে ১৯-এর মধ্যে। এর আগেও লকডাউনের সময় যখন কাজ হারিয়ে এলাকার খেটে খাওয়া মানুষগুলো অর্ধহার, অনাহারে দিন কাটছিল তখনও একই ভাবে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল পাঠবাড়ি বয়েজ।

‘ক্ষুদ্র সামর্থ নিয়ে এলাকার প্রান্তিক মানুষদের পাশে থাকার চেষ্ট করছে ছোট ছোট ছেলেরা। এ সত্যিই প্রংসশনীয়।’’ জানালে সংস্থার শুভানুধ্যায়ী তৃণমূল নেতা নান্টু বিশ্বাস।

এলাকার দুস্থ মানুষদের পোশাক দেওয়ার পাশাপাশি মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিকের কৃতি ছাত্রছাত্রীদের হাতে স্মারক তুলে দেয় পাঠবাড়ি বয়েজ।

মঞ্চ থেকে সম্মান জানানো হয় কোভিড যোদ্ধাদের।

আগামী দিনেও জারি থাকবে এমন কর্মসূচি জানালেন এই অনুষ্ঠানের এক উদ্যোক্তা।

খবর অনলাইনে আরও পড়ুন :

‘গড়িয়া সহমর্মী’ ও ‘কে কে দাস কলেজ’ আবার সুন্দরবনে, স্বামীহারাদের হাতে নতুন কাপড়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন