‘সতর্ক ভারত, সমৃদ্ধ্ ভারত’, ইউকো ব্যাঙ্কের হুগলি জোনের উদ্যোগে সচেতনতা অনুষ্ঠান

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: প্রতি বছর অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহে সারা দেশে পালিত হয় ভিজিল্যান্স অ্যাওয়ারনেস উইক (Vigilance Awareness Week)। এ বছর করোনাভাইরাসের জেরে প্রকাশ্য অনুষ্ঠান হয়নি। তার পরিবর্তে হয়েছে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান।

এ বছর এই অনুষ্ঠান পালিত হল ৩১ অক্টোবর ও ২ নভেম্বর। সর্দার বল্লভভাই পটেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে ইউকো ব‍্যাঙ্কের (UCO Bank) হুগলি জোন (Hooghly Zone) একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সহযোগিতায় ছিল সিঙ্গুরের এক্সপ্লোর ইন্টারন‍্যাশনাল স্কুল।

গৌতম সরকার, হুগলি জোনের প্রধান, ইউকো ব্যাঙ্ক।

অনলাইনে দু’দিনের ওই অনুষ্ঠানের সূচনা করেন হুগলি জোনের প্রধান গৌতম সরকার। গৌতমবাবু বর্তমানে কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হলেও বাড়ি থেকেই সব কাজ করছেন।

অনুষ্ঠানের মূল ভাবনা ছিল ‘সতর্ক ভারত, সমৃদ্ধ্ ভারত’(Vigilant India, Prosperous India)। এই বিষয়টি নিয়ে বিতর্কসভা ও প্রবন্ধ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। যে হেতু পড়ুয়ারাই দেশের ভবিষ্যৎ, তাই বিদ‍্যালয় কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় নবম থেকে একাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরা ওই দুই প্রতিযোগিতায় যোগ দেয়। এ ব্যাপারে ১৫ জন ছাত্রছাত্রী নির্বাচন করে বিদ‍্যালয় কর্তৃপক্ষ।

‘সতর্ক ভারত, সমৃদ্ধ ভারত’ বিষয়ে বিতর্কে প্রথম হয় অর্চিতা দাস (নবম শ্রেণি), দ্বিতীয় সৃজিতি দাস (দশম) ও রিতেশ মাজি (একাদশ) এবং তৃতীয় হয় তহসিন পারভীন (একাদশ)।

বিতর্ক প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় সৃজিতি দাস এবং প্রবন্ধ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় প্রান্তিক ঘোষ।

প্রবন্ধ প্রতিযোগিতায় যারা প্রথম তিনটি স্থান দখল করে তারা তিনজনই একাদশ শ্রেণির পড়ুয়া। এরা হল যথাক্রমে ইন্দ্রতপা রাউথ, দিশানী সাঁতরা ও প্রান্তিক ঘোষ। ব‍্যাঙ্কের পক্ষ থেকে সকলকেই পুরস্কৃত করা হয়।

অনলাইনে ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রঞ্জনা বসু (চিফ ভিজিল‍্যান্স্ অফিসার, ইউকো ব‍্যাঙ্ক)। বিশেষ অতিথি ছিলেন মনোজ বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় (সিবিআই, ডিএসপি, সল্টলেক), নরেশ কুমার (জিএম, এইচও, এইচআরএম) এবং সিদ্ধার্থ সরকার (ডিজিএম, এইচও, ভিজিল্যান্স বিভাগ)।

বিশিষ্টজনেদের বক্তব্য থেকে উঠে আসে একটাই কথা – দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে গেলে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। তাতেই দেশের উন্নতি সম্ভব।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন