Connect with us

অনুষ্ঠান

গুরু নানকের জীবন ও দর্শন নিয়ে জাতীয় গ্রন্থাগারে সেমিনার

JIS

কলকাতা: সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্যের জন্য ভারত বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ দেশ হিসাবে গণ্য হয়। এখানে বহু ধর্মের মানুষের বাস। তার মধ্যে অন্যতম হল শিখ ধর্ম। আগামী নভেম্বর মাসে গুরু নানকদেবের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হবে। সেই উপলক্ষ্যে শুধু পঞ্জাব সরকারই নয়, এই ধর্মবিশ্বাসের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য সংস্থাও এই শুভ দিনটি উদযাপনের জন্য দেশ জুড়ে নানা অনুষ্ঠান আয়োজনের পরিকল্পনা করেছে।

ঠিক এরই অঙ্গ হিসাবে সম্প্রতি শিরোমণি গুরদ্বার প্রবন্ধক কমিটির (এসজিপিসি) সহযোগিতায় জিআইএস বিশ্ববিদ্যালয় গুরু নানকদেবের জীবন ও দর্শনের উপর একটি বিশেষ সেমিনারের আয়োজন করে। আলিপুরের বেলভেডিয়ারে জাতীয় গ্রন্থাগারের ভাষা ভবনে সেমিনারটির আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠান উদ্বোধন হল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে

সেমিনারে হিন্দু, মুসলিম ও শিখ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এসজিপিসির শ্রী অমৃতসর সাহিবের চিফ সেক্রেটারি ডঃ রূপ সিং, পাটিয়ালার পিবিআই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ভাইস চ্যান্সেলার ডঃ যশ পাল সিং এবং সংখ্যালঘু বিষয়ক জাতীয় কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান এস তারলোচন সিং।

জেআইএস ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর সর্দার তরণজিত সিং বলেন, শিখ সম্প্রদায়ের অন্তরে কলকাতার একটা বিশেষ স্থান রয়েছে। এই শহরের সঙ্গে শিখ সম্প্রদায়ের সাংস্কৃতিক ও ব্যবসায়িক যোগাযোগ দীর্ঘদিনের। শহরবাসীর একটা বড়ো অংশ শিখ সম্প্রদায়ভুক্ত। এবং তারা সতত বর্ধমান। এই কলকাতা থেকেই গুরু গ্রন্থ সাহিবের বাংলা অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছিল।

তিনি আরও বলেন, ১৫ জুন তারিখটির একটা বিশেষ তাৎপর্য আছে শিখ সম্প্রদায়ের কাছে। ১৬০৬ সালের এই দিনে শ্রী অকাল তখতের শিলান্যাস করেছিলেন গুরু হর গোবিন্দ সাহেব।

আরও পড়ুন – করুণাময়ীর মাঠে শুরু হয়ে গেল ইন্ডিয়া ইন্টারন্যাশনাল মেগা ট্রেড ফেয়ার

কলকাতার শিখ মিশনের সাধারণ সম্পাদক ও সাম্মানিক ইনচার্জ সম্মানিত সর্দার জগমোহন সিং গিল বলেন, পূর্ব ভারতের ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে পঞ্জাবিদের অবদান সম্পর্কে কাজ করতে গিয়ে জানতে পেরেছি বিখ্যাত বাঙালি সংস্কারবাদী পণ্ডিত ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের সঙ্গে পঞ্জাবের একটা যোগসূত্র ছিল। ১৭৯৭ সালে পশ্চিম পঞ্জাবের এক সারস্বত ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্ম নেন যোগধ্যান মিসের। এই পণ্ডিতের কাছে বিদ্যাসাগরমশাই জ্যোতির্বিদ্যা শিখেছিলেন। ১৮২৬ সালে মিসের কলকাতার সংস্কৃত কলেজে জ্যোতির্বিজ্ঞানের শিক্ষক হিসেবে হিসাবে যোগ দেন। তিনি ২৩ বছর ওই পদে কর্মরত ছিলেন।

ডঃ জসপল সিং বলেন, বহু মানুষের ব্যক্তিত্ব নতুন করে জাগিয়ে তুলেছিলেন গুরু নানক। গুরু গ্রন্থ সাহিবে বাবা ফরিদ ও বাংলার কবি জয়দেবের প্রভাব রয়েছে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিখ বিশ্বাসের অনুরাগী ছিলেন। এই ধর্মে সর্বজনীন ভ্রাতৃত্বের যে কথা বলা হয়েছে, তাকে বিশ্বকবি সম্মান জানাতেন। এই ধর্মের গোড়ার কথাই হল ঈশ্বরের অনন্যতায় বিশ্বাস। ঈশ্বর যদি এক হয় তবে তা মানুষকে বিভক্ত করতে পারে না। মানুষের বহুত্ব ও বৈচিত্র্য উদযাপন করতে হবে। এগুলো বিবাদের কারণ হতে পারে না। শিখ ধর্ম ভিন্নতার পরিবর্তে মানুষের মধ্যে সাদৃশ্যের কথা বলে। এদের প্রথম নীতি হল, অন্যের পরিচয় মেনে নেওয়া, দ্বিতীয় নীতি সেই পরিচয়কে সম্মান করা এবং তৃতীয় হল সেই পরিচয় রক্ষা করা।

অনুষ্ঠান

বাইশে শ্রাবণ উপলক্ষ্যে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের নিবেদন ‘ভুবনজোড়া আসনখানি’, দেখা যাবে অনলাইনে

স্মিতা দাস

বাইশে শ্রাবণ শুধু মহাপ্রয়াণ নয়, পরমাত্মার সঙ্গে মহামানবের মিলনোৎসবের দিনও বটে। আশি বছর চলল। আমাদের প্রাণের ঠাকুর, রবিঠাকুর ইহজগৎ ত্যাগ করলেও মানুষের মনের সংসারের পরতে পরতে তিনিও আজও আছেন এবং থাকবেনও চিরকাল। তাই শুধু মাত্র একটি-দু’টি দিন নয়, জীবনের প্রত্যেকটি দিনই নিজেদের কাজেকর্মের মধ্যে দিয়ে তিনি চিরস্মরণীয়। কিন্তু তবু মন মানে না। ঠাকুরের পায়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপনের কিছু বিশেষ দিনের অবকাশ খুঁজে ফেরা মন তাই ফিরে ফিরে স্মরণ করে বাইশে শ্রাবণ। এই বছরে বাইশে শ্রাবণে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের নিবেদন ‘ভুবনজোড়া আসনখানি’।

বিশ্ব জুড়ে করোনার অতিমারির মধ্যেও সমস্ত বিধিনিষেধ মেনে এই বিশেষ শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপনের প্রয়াস বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের। তাদের ভাবনায় অঙ্গীকারে বাইশে শ্রাবণ হয়ে উঠুক তাঁর মহাজীবনের উদযাপন, নব প্রজন্মের সঙ্গে তাঁর সেতুবন্ধনের দিন ও তাঁর প্রাণের বাংলাকে বাঁচানোর দিন। প্রাণের ঠাকুরের আশ্রয় এসে এ হয়তো এক অর্থে শান্তি-সন্ধানের প্রয়াসও।

প্রসঙ্গত পঁচিশে বৈশাখ থেকে শুরু করে এক সপ্তাহ চলেছিল বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের ‘রবীন্দ্র জয়ন্তী’। দুই বাংলার বাঙালিদের প্রযুক্তির সুতোয় বেঁধে হয়েছিল সেই উদযাপন।

এ বার বাইশে শ্রাবণে আরও ব্যাপ্ত সেই পরিধি। অনুষ্ঠানের সূচনা হবে নিমতলা মহাশ্মশানে কবির সমাধিতে শ্রদ্ধা অর্পণের মাধ্যমে। তার পর সেখান থেকে জোড়াসাঁকো হয়ে রবীন্দ্রভারতী এবং বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার শিল্পীরা। পাশাপাশি অসমের গুয়াহাটি, ত্রিপুরা, শিলচর, জামশেদপুর, রাঁচি ও অন্যান্য অঞ্চলের রবীন্দ্র অনুরাগী এবং  শিল্পীরাও এই অনুষ্ঠানে থাকবেন। সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশের শিল্পীরা, অতলান্তিকের ও-পার থেকে কানাডা, ব্রিটেন ও আমেরিকার শিল্পীরাও থাকবেন।

সমগ্র অনুষ্ঠানটির একটি বড়ো অংশই সরাসরি সম্প্রচারিত হবে। সপ্তাহব্যাপী এই অনুষ্ঠান চলবে প্রতি দিন ভারতীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায়। সাত তারিখে সরাসরি দেখানো হবে সকালে দশটা থেকে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন মধুমিতা বসু। পরিচালনায় জয়িতা বিশ্বাস।

অনুষ্ঠানের প্রথম দিনের শিল্পী ও অতিথিবৃন্দ সুমিত্রা সেন, শ্রাবণী সেন, শিক্ষাবিদ পবিত্র সরকার, নৃত্যশিল্পী পলি গুহ, কবি হাসমত জালাল ও বাংলাদেশের বিশিষ্ট কবি ও সংগীতশিল্পী বুলবুল মহলানবীশ ও কবি মোহসেনা হোসেন ইলোরা, ত্রিপুরা থেকে তিথি দেব বর্মন। এ ছাড়াও ইন্দ্রানী সেন, মোহন সিং খানগুরা, দূর্বা সিং খানগুরা, চন্দ্রাবলী রুদ্র দত্ত, প্রদীপ দত্ত, দীপাবলি দত্ত, ডাঃ তানিয়া দাস, প্রণতি ঠাকুর, শুভময় সেন, পৌষালী রুদ্র বসু, বিশ্বজিৎ দাস গুপ্ত, জামশেদপুর থেকে চন্দনা চৌধুরী, রাঁচির সুবীর লাহিড়ী যোগ দেবেন।

বাংলাদেশ থেকে যাঁরা থাকছেন

ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে যাঁরা যোগ দিচ্ছেন তাঁরা হলেন বুলবুল মহলানবীশ, শামসুল হুদা,  ঝর্না রহমান, বর্ণালী সরকার, বেলায়েত হোসেন, বর্ণালী বিশ্বাস শান্তা, সালমা আকবর, সাজেদ আকবর, মীরা মণ্ডল, নায়ীমা রুমান রুমা, শিমুল পারভীন, নিমাই মণ্ডল, আজিজুর রহমান আজিজ (সভাপতি, রবীন্দ্র একাডেমি, বাংলাদেশ), সুবর্ণা রহমান, গোলাম হায়দার প্রমুখ।

ইউরোপ-আমেরিকা থেকে যাঁরা থাকছেন

ও দিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেবে সুদূর ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম থেকে মিডল্যান্ডস বেঙ্গলি অ্যাসোসিয়েশন। সংস্থার সাংস্কৃতিক সম্পাদক দেবলীনা মজুমদার প্রারম্ভিক বক্তৃতা দেবেন। অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করবেন অহনা বিশ্বাস ও আত্রেয়ী ভট্টাচার্য, বেহালা বাজাবেন রিতিশা বৈদ্যরায় এবং আবৃত্তি করবেন মৌমিতা চট্টোপাধ্যায়।   

ফ্লোরিডা থেকে যোগ দিচ্ছেন বিজয়া সেনগুপ্ত, কানাডা থেকে মুনিরা সুলতানা মিলি  এবং আরও অনেকে। এ ছাড়াও দেশ-বিদেশের অনেক বুদ্ধিজীবীও থাকবেন।

দেখা যাবে বাগুইআটি নৃত্যাঙ্গনের ইউটিউব ও ফেসবুক পেজে।  

আরও – আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসব ‘নৃত্যমালিকা’ শুরু হচ্ছে, দেখা যাবে ফেসবুকে

Continue Reading

অনুষ্ঠান

আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসব ‘নৃত্যমালিকা’ শুরু হচ্ছে, দেখা যাবে ফেসবুকে

sejuti

স্মিতা দাস

‘নৃত্যমালিকা’ – একগুচ্ছ রবীন্দ্রনৃত্য ও সৃজনশীল নৃত্যের ডালি। আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসব ‘নৃত্যমালিকা’। পলি গুহ পরিচালিত ‘ইন্ডিয়ান কালচারাল ট্রুপ’-এর প্রযোজনায় অনলাইন আন্তর্জাতিক সৃজনশীল ও রবীন্দ্র নৃত্য উৎসব ‘নৃত্যমালিকা’। অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনায় সেঁজুতী গুহ রায়। গোটা আগস্ট মাসের প্রতি শনি ও রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় ফেসবুকে সম্প্রচারিত হবে এই নৃত্যানুষ্ঠান।

আন্তর্জাতিক এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন নৃত্যজগতের খ্যাতনামা আট শিল্পী। থাকছেন পলি গুহ, প্রদীপ্ত নিয়োগী, অনুরাধা নিয়োগী, সুজয় ঠাকুর, কাশ্মীরা সামন্ত, ওয়ার্দা রিহাব, জয়দীপ পালিত, জয়িতা বিশ্বাস।

সেঁজুতী বলেন, লকডাউন চলাকালীন আজ পর্যন্ত খালি শাস্ত্রীয় নৃত্য নিয়ে প্রচুর অনলাইন নৃত্য উৎসব হয়েছে। কিন্তু রবীন্দ্র ও সৃজনশীল নৃত্য নিয়ে এটিই প্রথম। তাঁর কথায় ভারতবর্ষের নৃত্যশৈলীকে জানতে হলে শুধু ক্লাসিক্যাল নয়, এই সমস্ত রকমের নৃত্যকেই জানা প্রয়োজন। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তা হয় না। রবীন্দ্র ও সৃজনশীল আধুনিক নৃত্য আড়ালেই থেকে যাচ্ছে। তাকে বের করে আনতে হবে জগতের দরবারে। তাই এই বিশেষ প্রচেষ্টা। অনুষ্ঠানটি দেখা যাবে এই লিঙ্কে।

অনুষ্ঠানটি শুরু হবে নৃত্যশিল্পী পলি গুহের নিবেদন দিয়ে। শেষ দিনেও থাকছে তাঁর নিবেদন। সঙ্গে থাকবে ট্রুপের ছাত্রীবৃন্দের নিবেদনও।

এই গোটা কর্মকাণ্ডটি করতে সেঁজুতীকে সাহায্য করেছেন, সৌমিক ব্যানার্জি,  ঋতুরাজ প্রামাণিক, স্বাগতা মাইতি গাঙ্গুলি।  

আরও পড়ুন – শেষ হবে করোনা-কাল, নতুন দিশা দেখাবে বিশ্বমাতা, শিল্পীর রং-তুলিতে সেই ভবিষ্যতের ছবি

Continue Reading

অনুষ্ঠান

অনলাইনে ২৭ দিনব্যাপী শাস্ত্রীয় নৃত্যের অনুষ্ঠান, আয়োজনে অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমি

স্মিতা দাস

করোনাভাইরাসের অতিমারির কারণে বাতিল হয়েছে বহু অনুষ্ঠান থেকে পার্বণ। মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রাও গিয়েছে বদলে। নিউনর্মালে নতুন করে সব কিছু ভাবতে বাধ্য হচ্ছে মানুষকে। বাধ্য হচ্ছে নতুন অনেক কিছুকেই মেনে নিতে। তা বলে শিল্প কখনও থেমে থাকে না। তাই এখন শিল্পীরাও অনলাইনকে সম্বল করেই যাবতীয় আয়োজন করছেন। তেমনই একটি প্রচেষ্টা আগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমির। প্রায় এক মাস ধরে চলছে তাদের রথযাত্রা উৎসব। রথযাত্রা থেকে প্রতিদিন নিয়ম করে চলছে নৃত্যানুষ্ঠান তাও অনলাইনে।

বীরভূমের রামপুর হাটের একটি প্রতিষ্ঠান অগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমির। তার কর্ণধার প্রশান্ত (অঞ্চল) পাল। তিনি অনলাইনে এই এক মাস ব্যাপী নৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন। অনুষ্ঠানটি শুরু হয়েছে ১৭ জুন থেকে চলবে ১৪ জুলাই পর্যন্ত।

প্রশান্ত বলেন, ইতিমধ্যেই হাজার হাজার ভিউ হয়েছে এই অনুষ্ঠানের। প্রচুর শুভ কামনায় ভরে গিয়েছে পেজ।

প্রশান্ত বলেন, আসলে পরিকল্পনা ছিল ভারতের সমস্ত শাস্ত্রীয় নৃত্যকে এক মঞ্চে তুলে ধরার। তাও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের শিল্পীদের মাধ্যমে। কিন্তু তার পরই এই অতিমারির আবহ তৈরি হয়। আর সমস্ত পরিকল্পনাই আটকে যায়। শেষে অনলাইনে অনুষ্ঠানটি এই ভাবে নামানোর কথা মাথায় আসে। সঙ্গে সঙ্গে সেই মতোই আয়োজন শুরু হয়।

বলেন, ঠিক হয় রথযাত্রায় পরম প্রভু শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের শ্রীচরণকে স্মরণ করেই এই অনুষ্ঠান হবে। তার জন্য অনলাইনে প্রচার করা হয়। শিল্পীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা, তাঁদের নাচের ভিডিও চেয়ে পাঠানো এবং তার এডিটিং শুরু হয়। অনুষ্ঠানটির নাম দেওয়া হয়, ‘নৃত্যমালিকা’।

দিল্লি, কলকাতা, অসম, হলদিয়া, শান্তিনিকেতন, বহরমপুর, জামসেদপুর, রামপুরহাট, দুর্গাপুর, সিউড়ী ও বারাসাত থেকে প্রায় ৩৫ জন নৃত্যশিল্পী এই অনুষ্ঠানে মিলিত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন একাধিক সম্মানে সম্মানিত দূরদর্শনের শিল্পী ও আন্তর্জাতিক স্তরের বিশিষ্ঠ শিল্পী এবং আন্তর্জাতিক সম্মানে সম্মানিত নৃত্যশিল্পীও।

তাঁদের মধ্যে রয়েছেন, ড: সুমিত বসু, ড: অর্কদেব ভট্টাচার্য, কৃষ্ণেন্দু রায়, শৌভিক চক্রবর্তী, দীপ্তাংশু পাল, সুস্মিতা রায়, শুভ জেনা, শ্রীদীপ কর্মকার, অরিন্দম ব্যানার্জি, সন্দীপ বোস, বিল্টু সরকার, কুশল ভট্টাচার্য, দেবব্রত বড়ুয়া-সহ আরও অনেকেই।

পরিবেশিত হচ্ছে ভরতনাট্যম, কত্থক, মণিপুরী, কথাকলি, কুচিপুড়ি, মোহিনীআট্যম, গৌড়ীয় নৃত্য, ওড়িশি-সহ সকল ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্য।

অনুষ্ঠানটি দেখা যাচ্ছে প্রতি দিন বিকেল ৫টা থেকে। আগ্নিবীণা ডান্স অ্যাকাডেমির ফেসবুক পেজে।

আরও পড়ুন – ঘরোয়া আমেজে অনলাইনে রবীন্দ্রসংগীতের পেড প্রোগ্রাম করলেন মনোজ ও মনীষা মুরলী নায়ার

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
শিক্ষা ও কেরিয়ার4 hours ago

সুইৎজারল্যান্ডে পড়াশোনায় আগ্রহী ভারতীয়দের সহায়তা দিতে ‘কুইন্টেসেনশিয়ালি’-এর সঙ্গে হাত মেলাল ‘লে রোসে’

রাজ্য8 hours ago

এই প্রথম রাজ্যে একদিনেই সুস্থ তিন হাজারের বেশি, নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কম

ভিডিও9 hours ago

বেসরকারি হাসপাতালের অমানবিক আচরণের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে গ্রেফতারির পরামর্শ নির্মল মাজির

ক্রিকেট11 hours ago

আমিরশাহিতে আইপিএল আয়োজনের অনুমতি দিল কেন্দ্র

দেশ11 hours ago

দেশে ট্রেন বাতিলের মেয়াদ বাড়ানো হল ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত

দেশ11 hours ago

কেরলে ভয়াবহ ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৮

দেশ12 hours ago

রাজনীতি ছাড়লেন ২০১০-এর আইএএস পরীক্ষায় শীর্ষ স্থানাধিকারী কাশ্মীরি যুবক শাহ ফয়জল

দেশ12 hours ago

বৃষ্টির মধ্যে সাত ঘণ্টা ঠায় দাঁড়িয়ে ম্যানহোল পাহারা দিলেন মুম্বইয়ের পঞ্চাশোর্ধ্ব মহিলা

দেশ20 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৬২০৬৪, সুস্থ ৫৪৮৫৯

দেশ3 days ago

বিমান দুর্ঘটনা লাইভ: উদ্ধার ব্ল্যাক বক্স, উদ্ধারকারীদের কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ শৈলজার

কলকাতা3 days ago

ঢাকায় পথদুর্ঘটনায় নিহত পর্বতারোহী, শোকস্তব্ধ কলকাতার পাহাড়প্রেমীরা

বিনোদন3 days ago

২৮ দিন পর করোনা মুক্ত অভিষেক বচ্চন

দেশ2 days ago

“দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পিত খুন”, কোড়িকোড়ের ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এয়ার সেফটি এক্সপার্টের

দুর্গা পার্বণ3 days ago

মল্লিকবাড়ির ঠাকুরদালানে মা সিংহবাহিনীকে দর্শন করেই শ্রীরামকৃষ্ণ হয়েছিলেন সমাধিস্থ

বিনোদন2 days ago

হাসপাতালে ভরতি সঞ্জয় দত্ত, তবে করোনা নেগেটিভ

দেশ2 days ago

অন্ধ্রপ্রদেশের কোভিড কেয়ার সেন্টারে আগুন, মৃত বেড়ে ১১

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 days ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা4 days ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা5 days ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা2 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা3 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা3 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা4 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা4 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand