প্রকাশিত হল স্বামী সম্বুদ্ধানন্দের কথায় ও সুরে শান্তনু রায়চৌধুরীর সিডি ‘পূজাঞ্জলি’

pujanjali release
সিডি প্রকাশ অনুষ্ঠান। রয়েছেন স্বামী সম্বুদ্ধানন্দ, সতীনাথ মুখোপাধ্যায়, হৈমন্তী শুক্লা, শান্তনু রায়চৌধুরী, দূর্বাদল চট্টোপাধ্যায়, নবনীতা রায়চৌধুরী প্রমুখ।

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘অরুণ উদয়ে বিদায় হল’ – শান্তনু রায়চৌধুরীর প্রকাশিত সিডির প্রথম গান দিয়ে শুরু হল অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠান আয়োজনের উপলক্ষ্য, ‘পূজাঞ্জলি’ নামে ওই সিডির প্রকাশ। শ্রীরামকৃষ্ণ প্রেমবিহারের আচার্য শ্রীমৎ স্বামী সম্বুদ্ধানন্দের ভাবনাই প্রকাশিত হয়েছে সিডির ১০টি গানে। তাঁরই কথায় ও সুরে বাঁধা গানগুলিতে কণ্ঠ দিয়েছেন শান্তনু রায়চৌধুরী। যন্ত্রসংগীত পরিচালনায় দূর্বাদল চট্টোপাধ্যায়।

সম্প্রতি শ্রীরামকৃষ্ণ প্রেমবিহারের উদ্যোগে সংস্থার দমদম কেন্দ্রে সিডি প্রকাশের অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে শিল্পী শান্তনু রায়চৌধুরী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রেমবিহারের আচার্য শ্রীমৎ স্বামী সম্বুদ্ধানন্দ, বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী হৈমন্তী শুক্লা, দূর্বাদল চট্টোপাধ্যায়, নবনীতা রায়চৌধুরী প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সতীনাথ মুখোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: ৪৩৯ বছর আগে নয় লক্ষ টাকা ব্যয় করে দুর্গাপুজো করেছিলেন রাজা কংসনারায়ণ

শান্তনু রায়চৌধুরীর ওই সিডিতে কণ্ঠ দিয়েছেন তাঁর সংগীতশিক্ষা কেন্দ্র ‘রবির ঘর’-এর ছাত্রছাত্রীরাও। অনুষ্ঠানে তাঁদের অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

‘পূজাঞ্জলি’র গান রেকর্ড করতে গিয়ে শান্তনু তাঁর অভিজ্ঞতার কথা বলেন। তিনি বলেন, “তিনি যখন রেকর্ড করছিলেন তখন মনে হচ্ছিল ঠাকুর, মা আর স্বামীজি জীবন্ত সেখানে উপস্থিত রয়েছেন। গান গাইছেন গুরু মহারাজ (স্বামী সম্বুদ্ধানন্দ)। আমি শুধু ঠোঁট নাড়িয়ে যাচ্ছি।” কী ভাবে, কত দিন ধরে এই গানগুলি রেকর্ড করার প্রস্তুতি চলছিল, সে কথা শোনান শান্তনু। এই প্রসঙ্গে তিনি গুরু মহারাজের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ সান্নিধ্য আর অনুভূতির কথাও বলেন।

শান্তনু রায়চৌধুরীর সিডিটি প্রকাশ করেন হৈমন্তী শুক্লা। হৈমন্তীও তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় গুরু মহারাজের সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ সান্নিধ্য আর অনুভূতির কথা শোনান। হৈমন্তী শুক্লার অনুরোধে সঞ্চালক সতীনাথ মুখোপাধ্যায় তাঁর দরাজ কণ্ঠে শোনালেন একটি রবীন্দ্রসংগীত। গুরু মহারাজের সঙ্গে তাঁর প্রায় তিন দশকের সম্পর্কের কথাও শোনালেন সতীনাথবাবু।

এই সংগীত সৃষ্টি করতে গিয়ে তাঁর কিছু ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন গুরু মহারাজ। আর ‘পূজাঞ্জলি’ রেকর্ডিং-এ যন্ত্রসংগীত পরিচালক দূর্বাদল চট্টোপাধ্যায়ের নিষ্ঠার কথাও শোনালেন তিনি।

স্বামীজির শিকাগো বক্তৃতার ১২৬ বছর পূর্তির দিনে ‘পূজাঞ্জলি’ প্রকাশ করে শ্রোতা-দর্শকদের এক মনোজ্ঞ সন্ধ্যা উপহার দিল শ্রীরামকৃষ্ণ প্রেমবিহার।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.