আত্রেয়ী রায়

দীপাবলি মানেই আলো আর আলো। সাবেক মোমবাতি আর প্রদীপের চিহ্ন কোথাও কোথাও খুঁজে পাওয়া গেলেও টুনিবাল্বে সাজানো বাড়িই এখনকার চেনা ছবি। কিন্তু সাবেকিয়ানা আর মানুষের হাতের ছোঁয়ার বিকল্প কি হয়। তাই যারা একটু সৃজনশীলতার ছোঁয়ায় এবারের দীপাবলিকে অভিনব করে তুলতে চান, তাঁদের জন্য খবর অনলাইনের পক্ষ থেকে রইল ৬টি টিপস।

রঙ্গোলি

দরজার ঠিক সামনে বড়ো করে রঙ্গোলি আঁকতে পারেন৷ ব্যবহার করুন জল রং, গুঁড়ো রং বা নানা রঙের গাঁদা ফুলের পাপড়ি৷ এই রঙ্গোলি আরও জ্বলজ্বল করবে, মাঝখানে ডিজাইনার মাটির দিয়া সাজিয়ে দিতে পারলে৷

প্রদীপ

বাড়ির সামনে একটুকরো বাগান আছে? গোটা বাগানটাই সাজাতে পারেন ডিজাইনার দিয়া জ্বালিয়ে ৷ বাড়ির গায়ের দেওয়ালে টুনিবাল্বের বদলে ঝুলিয়ে দিন মাটির প্রদীপ।

diya for diwali

কাগজের রঙিন লণ্ঠন

বাইরের বা ভিতরের দরজার মাথা ‘আর্চ’ আকারের হলে তাতে কাগজের রঙিন লণ্ঠন টাঙান৷ সাজে নতুনত্ব আসবে৷ বাগানেও লণ্ঠন আটকে ঝুলিয়ে দিতে পারেন ৷ আলো-ছায়ায় মায়াময় হয়ে উঠবে আপনার বাগান৷

ক্যান্ডেল

একটা বিরাট আকারের তামার বা টেরাকোটার পাত্র নিন৷ তাতে জল দিয়ে ফুলের পাপড়ি আর জ্বলন্ত ফ্লোটিং ক্যান্ডেল ভাসিয়ে দিন৷ আর কোনও আলো জ্বালবেন না৷ এতেই লিভিং রুম আলোয় হাসবে ৷ ঝাড় থাকলে তাতে মোমবাতি, না থাকলে শিকল দিয়ে ছোটো-বড়ো করে দিয়া বা মোমবাতি ঝুলিয়ে দিতে পারেন৷

candel for diwali

ওয়াল হ্যাংগিং এবং আয়না

সারা বছরই তো দেওয়াল জোড়া পেন্টিং ৷ দিওয়ালিতে এবার না হয় ওয়াল ‘রাগ’ বা কালারফুল প্রিন্টেড শাড়ি আটকে দেওয়াল ঢাকুন৷ এই সাজ না-পসন্দ হলে মনের মতো এমব্রয়ডারি, নানা আকারের আয়না বা ছোটো আকারের ঘণ্টাও ঝোলাতে পারেন৷

পটপৌড়ি

পটপৌড়ি হল শুকনো ফুল ও সুগন্ধির এক বিশেষ মিশ্রণ যা পাত্রে রাখলে ঘরে হাল্কা সুগন্ধ ছড়িয়ে দেয়। দীপাবলির সময় বাজারে বিভিন্ন ধরনের পটপৌড়ি কিনতে পাওয়া যায়। এছাড়া বাড়িতে বসে অনলাইন রেসিপি দেখে খুব সহজে আপনি নিজেও পটপৌড়ি বানানো শিখে নিতে পারেন।

potpuri for diwali

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here