Connect with us

দীপাবলি-কালীপুজো

আলোয় আলোয় সমাজের মলিনতা দূর করতে ডাক জাতীয় মন্দির ঢাকেশ্বরীর

মন্দিরে আগত ভক্তদের উদ্দেশে বার বার মাইকে সতর্কও করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, সবাই যেন অবশ্যই মাস্ক পরেন এবং দৈহিক দূরত্ব রক্ষা করে চলেন।

Published

on

ঢাকেশ্বরী মন্দিরপ্রাঙ্গণে ভক্তদের ভিড়।

ঋদি হক: ঢাকা 

সমাজের প্রতিটি সচেতন মানুষই চান অন্ধকার দূর করতে। এর জন্য যে কেবল ধর্মকে অবলম্বন করতে হবে তা-ও কিন্তু নয়। আলোয় আলোয় সমাজের মলিনতা দূর করতে চাই বন্ধন, যে বন্ধনটা বাংলাদেশে খুবই সুদৃঢ়। ধর্ম এখানে মুখ্য নয়, উৎসবটা সবার – এমন ভাবনাই ভক্তদের মধ্যে কাজ করে থাকে।

বাংলাদেশের জাতীয় মন্দির (Bangladesh National Temple) প্রাঙ্গণে ভক্তের মহামিলন দেখে স্বাভাবিক ভাবেই মনে হয়েছে, উৎসব-প্রিয় বাঙালি। ’৭১-এর এই বাঙালিই স্বাধিকারের আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বাঁশের লাঠি নিয়ে, যেখানে কোনো ধর্ম কাজ করেনি। তারা বাঙালি, তাদের ভাষা বাংলা। তারা যে সংস্কৃতি-কৃষ্টিকে লালন করে, তা-ও কোনো ধর্মের বিচারে নয়। মানুষ হিসেবে ঐক্যবদ্ধ শক্তি নিয়ে তাদের বসবাস। এটাই শিখিয়েছে দুর্গোৎসব, দীপাবলি, ঈদ, পয়লা বৈশাখ-সহ প্রতিটি উৎসব।

Loading videos...
মোমবাতি জ্বালাচ্ছেন সোহেলি ও তাঁর বান্ধবী।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরে (Dhakeshwari Mandir) বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে এসেছেন সোহেলি। হাতে মোমবাতি। ঢাকেশ্বরী মায়ের মন্দিরে তা জ্বালিয়ে প্রার্থনা করবেন জাতির কল্যাণে। করোনা-দুনিয়ায় উৎসবে হয়তো শতভাগ মনের খোরাক মিটবে না, কিন্তু তার পরও ঢাকেশ্বরী মন্দিরপ্রাঙ্গণ কানায় কানায় ভর্তি।

চারিদিক দেখিয়ে সোহেলি আরও বলেন, “আমরা গেল বছর এর চেয়ে ঢের বেশি আনন্দ করেছি। পা রাখার জায়গা ছিল না মন্দিরপ্রাঙ্গণে।” তার পরেও এই মহামারিতে যতটুকু আয়োজন তা প্রত্যক্ষ করে এটাই বলতে হয় খ্যাপা বাঙালি! এই মহা আয়োজনেও খুশি নয় তারা। আলোয় আলোয় আলোকিত মায়ের মন্দির। তাদের প্রত্যাশা আরও বেশি। এই প্রত্যাশাই ঐক্যের ছাতার তলায় নিয়ে এসেছে তাদের।

সন্ধে ছ’টা। মন্দিরের বাইরে পুলিশ এস্কর্টের হুইসেল কানে এল। এর পর দেখা গেল মন্দিরের সদর গেট গলিয়ে কালো রঙের দু’টো প্যাজেরো এসে থামল। তা থেকে নেমে আসছেন ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে সহস্র প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ভারতীয় হাই কমিশনার (Indian High Commissioner) বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী (Vikram Kumar Doraiswami)। সস্ত্রীক সোজা এসে মঞ্চে দাঁড়ালেন।

প্রদীপ প্রজ্বলন অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাই কমিশনার।

দু’ মাসও হয়নি বাংলাদেশে দায়িত্ব নিয়ে এসেছেন বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। এরই মধ্যে কতটা সহজ সাবলীল ভাবে সব কিছু মানিয়ে নিয়েছেন তিনি। একজন সফল কূটনীতিকের স্বাক্ষর রেখে চলেছেন তিনি। চলনে-বলনে আধুনিক ও সামাজিক। মানুষকে আপন করে নেওয়ার ক্ষমতা তাঁর ঐশ্বরিক। দেশ ও সমাজভাবনায় মগ্ন মানুষেরা এমনটিই হয়ে থাকেন। কোনো সফল কূটনীতিক একজন দার্শনিকও। তা না হলে কি সমাজ-রাষ্ট্র আর মানুষের সমন্বয় ঘটানো সম্ভব?

মন্দির সংশ্লিষ্টদের বক্তৃতার পালা শেষে উদ্বোধকের বক্তব্য দিতে গিয়ে বাংলায় সবাইকে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানালেন। এর পর সামাজিক বন্ধন কতটা অটুট তা বাংলাদেশের উদারণ দিয়ে তুলে ধরলেন। বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথাও বেশ গর্বের সঙ্গে বললেন।

বাংলাদেশের কল্যাণ কামনা এবং এই আয়োজনে সফলতার প্রত্যাশা নিয়ে বক্তব্য শেষে প্রদীপ প্রজ্বলনে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত রাখলেন বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। নিজে মোমবাতি নিয়ে মঞ্চের অন্যদের হাতে তুলে দিলেন। সামাজিকতার মোড়কে মানুষকে কতটা বাঁধা যায় তারই স্বাক্ষর রাখলেন ভারতীয় হাইকমিশনার।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরে দেবীপ্রতিমা।

প্রদীপ প্রজ্বলন শেষে মন্দির প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখেন। এর পর দেবীদর্শনে মিশে যান আমজনতার সঙ্গে। বিন্দুমাত্র বিচলিত নন তিনি। সবাইকে কাছে ডেকে এক সঙ্গে দাঁড়িয়ে মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে এবং সবার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে গাড়িতে চেপে বসেন।

মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পদক কিশোর রঞ্জন মণ্ডল এবং বাংলাদেশ জাতীয় পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জি ও দফতর-সম্পাদক বিপ্লব দে জানালেন, দুর্গোৎসবের পর পরই দীপাবলি উৎসব। বর্তমান করোনা মহামারিতে তাঁরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভক্তদের অংশ নিতে বলেছেন।

মন্দিরে আগত ভক্তদের উদ্দেশে বার বার মাইকে সতর্কও করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, সবাই যেন অবশ্যই মাস্ক পরেন এবং দৈহিক দূরত্ব রক্ষা করে চলেন। রাত ১২টায় পূজা শুরু হয়ে ভোররাত ৪টায় শেষ হবে। তার পর বলি সম্পন্ন করে ভক্তদের মাঝে প্রসাদ বিতরণ করা হবে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

পুলিশি নজরে মোটামুটি বাজিহীন মহানগর কলকাতা আলোর ছটায় উদ্ভাসিত

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দীপাবলি-কালীপুজো

জো বাইডেন থেকে ডোনাল্ড ট্রাম্প, দীপাবলির শুভেচ্ছা জানালেন সোশ্যাল মিডিয়ায়

টুইটারে শুভেচ্ছা জানালেন বাইডেন-ট্রাম্প!

Published

on

ছবি: ডোনাল্ড ট্রাম্পের টুইট থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার রাতে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন জো বাইডেন। আলোর উৎসবের পাশাপাশি নতুন বছরের অগ্রিম শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন বাইডেন।

হোয়াইট হাউসের দখলকে কেন্দ্র করে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে টানটান উত্তেজনার মধ্যেই দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প-ও। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য প্রায়শ সমালোচিত ট্রাম্প, ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর থেকে খুব একটা টুইট করেন না।

বাইডেন লিখেছেন, “লক্ষ লক্ষ হিন্দু, জৈন, শিখ এবং বৌদ্ধরা আলোর উৎসবে শামিল হয়েছেন। আমি তাঁদের শুভেচ্ছা জানাই”। পাশাপাশি হিন্দিতে লিখেছেন, ‘সাল মুবারক’। নতুন বছরে সকলের প্রত্যাশা পূরণের আগাম শুভেচ্ছা জানিয়ে রেখেছেন বাইডেন।

Loading videos...

অন্যদিকে ২০১৭ সালের হোয়াইট হাইসে নিজের দীপাবলি উদযাপনের একটি ছবি দেওয়া কার্ড শেয়ার করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। লিখেছেন, “হ্য়াপি দিওয়ালি”।

আরও পড়তে পারেন: পুলিশি নজরে মোটামুটি বাজিহীন মহানগর কলকাতা আলোর ছটায় উদ্ভাসিত

Continue Reading

কলকাতা

পুলিশি নজরে মোটামুটি বাজিহীন মহানগর কলকাতা আলোর ছটায় উদ্ভাসিত

যেখানেই পুলিশের কাছে অনিয়মের অভিযোগ গিয়েছে, সেখানেই পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে। মোটের ওপর কালীপুজোয় এক নিরুপদ্রব রাত পার করছে কলকাতা।

Published

on

Patuli, kolkata
কালীপুজোর রাতে কলকাতা শহরতলির পাটুলি। ছবি: শ্রয়ণ সেন।

নিজস্ব প্রতিনিধি: এখন রাত ১২টা। এইমাত্র শেষ হল পাটুলি ভাসমান বাজারের পুজো। যতক্ষণ পুজো চলছিল, ততক্ষণ মনে হচ্ছিল অন্য রাতের চেয়ে আজকের রাতটা একটু আলাদা। পুজো শুরু হওয়ার আগে পর্যন্ত গান চলেছে – ‘মায়ের পায়ে জবা হয়ে ওঠ না ফুটে মন’। তার পর পুরোহিতের মন্ত্রোচ্চারণের মধ্যে দিয়ে, পুষ্পাঞ্জলির মন্ত্রের মধ্যে দিয়ে মনে হয়েছে আজকের রাতটা একটু ভিন্ন। কিন্তু পুজো শেষ হতেই সব শুনশান। কে বলবে আজ দীপাবলির রাত?

এই ছবিটা যে শুধু দক্ষিণ শহরতলির পাটুলির তা নয়, মহানগরীর বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ‘খবর অনলাইন’-এ যে খবর এসেছে, তা থেকে পরিষ্কার, শহরের প্রায় সর্বত্রই ছবিটা উনিশ-বিশ। রাতের দিকে কিছু কিছু অঞ্চলে বাজি ফাটিয়ে যে অনিয়ম কিছু করা হয়নি তা নয়, তবে তা নেহাতই বিক্ষিপ্ত ঘটনা। মোটের ওপর কালীপুজোর রাত কাটছে উৎপাতহীন অবস্থায়।

বাজির উৎপাতে কালীপুজোর রাতে দূষণের মাত্রা প্রচণ্ড বেড়ে যায়। সুস্থ মানুষেরই শ্বাসপ্রশ্বাসে কষ্ট হয়, অসুস্থ-অশক্তদের দুরবস্থা তো কহতব্য নয়। আর শব্দবাজির তাণ্ডব যে মাঝেমাঝে কী মাত্রাছাড়া হয়, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। পুলিশি নজরদারি থাকে, তবে তাতে বিশেষ কাজ হয় না।

Loading videos...

দূষণ নিয়ে বার বার সতর্ক করা সত্ত্বেও শহরবাসীকে কালীপুজোর রাতে আগে কখনও রোখা যায়নি। কিন্তু এ বার কোভিড পরিস্থিতি সব কিছু পালটে দিল। এই ইঙ্গিত অবশ্য কয়েক দিন আগে থেকেই পাওয়া যাচ্ছিল। অন্যান্য বছর কালীপুজোর দিন কয়েক আগে থেকেই বাজির তাণ্ডব শুরু হয়ে যায়। এ বার তা দেখা যায়নি। এবং শনিবার কালীপুজোর রাতেও তার অন্যথা হয়নি।

শনিবার বাজির তাণ্ডব থেকে মোটামুটি মুক্তই রইল কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকা। অন্যান্য বার পুজোর দিন সন্ধে থেকেই আকাশ ছেয়ে যায় আতশবাজিতে, শহরের বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। রাত যত বাড়ে দূষণের মাত্রা তত বাড়ে। আর শব্দবাজির উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে মানুষজন। কিন্তু এ বার অন্য কলকাতা দেখল শহরবাসী। এর জন্য অবশ্যই কলকাতা পুলিশের ধন্যবাদ প্রাপ্য। তাদের কড়া নজরদারি ছিল শহরের অলিগলিতে।

পুলিশ সূত্রে বলা হয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশ মানা হচ্ছে কিনা তা দেখার জন্য শহরের সর্বত্র নজরদারি চালানো হচ্ছে। পুলিশের বক্তব্যের সত্যতা প্রমাণিত হয়েছে ফেসবুকে নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া দেখে। পুলিশের ভূমিকায় খুশি প্রকাশ করে অসংখ্য পোস্ট হয়েছে ফেসবুকে। নেটিজেনরা জানিয়েছেন, যেখানেই পুলিশের কাছে অনিয়মের অভিযোগ গিয়েছে, সেখানেই পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে। মোটের ওপর কালীপুজোয় এক নিরুপদ্রব রাত পার করছে কলকাতা।

মহানগরের নামকরা পূজামণ্ডপগুলিতেও এ দিন তেমন ভিড় ছিল না। শহরবাসী নিজেদের বেঁধে রেখেছিলেন নিজেদের পাড়ার চৌহদ্দিতেই। ঘর সাজিয়েছেন মোমবাতি-প্রদীপ-টুনিবালবে। বাজি না ফাটলেও, দীপাবলির রাতে আলোয় সেজেছে মহানগর।

কোভিড পরিস্থিতির দরুন এ বছর কালীপুজোয় বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে কলকাতা হাইকোর্ট।  সেই নির্দেশ যাতে ঠিকঠাক কার্যকর করা যায়, তার জন্য আগে থাকতেই তৎপর হয়ে ওঠে কলকাতা পুলিশ। শুরু হয় মজুত করে রাখা বাজি উদ্ধার অভিযান। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টাও চালিয়ে যায় তারা। তারই সুফল মিলল শনিবার কালীপুজোর রাতে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

মুখে থাকুক মাস্ক, হাতে নিয়ে স্যানিটাইজার, ডাকছে মৈনাকের কালীপুজোর থিম ‘শুদ্ধি’

Continue Reading

কলকাতা

মুখে থাকুক মাস্ক, হাতে নিয়ে স্যানিটাইজার, ডাকছে মৈনাকের কালীপুজোর থিম ‘শুদ্ধি’

দুর্গাপুজোর মতোই কালীপুজোতেও ছোঁয়া লেগেছে অভিনবত্বের।

Published

on

কলকাতা: করোনাকালে দুর্গাপুজোর মতোই কালীপুজোতেও ছোঁয়া লেগেছে অভিনবত্বের। বিজয়গড়ের শ্রী কলোনির মৈনাক ক্লাবের এ বারের থিম ‘শুদ্ধি’।

যে কোনো পুজোর একটি অন্যতম অঙ্গ শুদ্ধিকরণ। সেই বিষয়টির সঙ্গেই এ বার জুড়েছে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিজেকে ‘সাফসুতরো’ রাখার অভ্যেস!

মৈনাক ক্লাবের কালীপুজো এ বারে ৪৬তম বর্ষে পদার্পণ করল। ১৩ নভেম্বর সকাল সাড়ে ১২টায় উদ্বোধন হয় এই পুজোর।

Loading videos...

দুই শিল্পী রাজকুমার প্রামাণিক এবং শুভ এ বারে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলছেন গোটা বিষয়টিকে। সঙ্গে এ বারের আবহ সঙ্গীত এবং থিম সং তৈরি করেছেন অসীম সর্দার, সঙ্গে নীলাভজা নিয়োগীর আবহ সহযোগিতায় কণ্ঠস্বর দিয়েছেন সিধু।

পুজোর এক উদ্যোক্তা শুভঙ্কর অভি দাস বলেন, “স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এ বার পুজোর আয়োজন করেছি আমরা। সঠিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এ বারের দীপাবলি উৎসব পালিত হচ্ছে”।

আরও পড়তে পারেন: আজ কালীপুজো: কলকাতার ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সঙ্গে জড়িয়ে কালীক্ষেত্র কালীঘাট

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
কলকাতা2 seconds ago

আজ থেকে আর প্রয়োজন নেই ই–পাসের, খুলছে বিভিন্ন মেট্রো স্টেশনের একাধিক গেটও

antonio lopez habas
ফুটবল16 mins ago

জিততে না পারলেও হতাশ নন আন্তোনিও লোপেজ আবাস

দেশ24 mins ago

রবিবার ভারতে ১৭ হাজার জনকে টিকা, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঘটনা কম, জানাল স্বাস্থ্য মন্ত্রক

ফুটবল8 hours ago

এগিয়ে থেকেও ড্র করে পয়েন্ট খোয়াল এটিকে মোহনবাগান

রাজ্য11 hours ago

রাজ্যে ছ’শোর নীচে নামল দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা

রাজ্য12 hours ago

‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে কলকাতায় আসছেন শিবসেনা নেতৃত্ব

দেশ14 hours ago

দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিতরা কি বিনামূল্যে করোনা টিকা পাবেন? উঠল প্রশ্ন

দঃ ২৪ পরগনা15 hours ago

করোনা, উম্পুন যাঁর ১২ বছরের দায়িত্বপালনে ছেদ ফেলতে পারেনি

রাজ্য2 days ago

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করতে সিপিএমের লাইনেই খেলছেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ3 days ago

নবম দফার বৈঠকেও কাটল না জট, ফের কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে কেন্দ্র

প্রযুক্তি3 days ago

হোয়াটসঅ্যাপে এ ভাবে সেটিং করলে আপনার আলাপচারিতা কেউ দেখতে পাবে না এবং তথ্যও থাকবে নিরাপদে

ক্রিকেট3 days ago

অভিষেকে লড়াকু নটরাজন, সুন্দর, অস্ট্রেলিয়া ২৭৪

রাজ্য3 days ago

দিল্লি যাচ্ছেন শতাব্দী রায়, জিইয়ে রাখলেন অমিত শাহের সঙ্গে সাক্ষাতের সম্ভাবনা

রাজ্য3 days ago

রোজভ্যালি-কাণ্ডে শুভ্রা কুণ্ডুকে গ্রেফতার করল সিবিআই

election commission of india
রাজ্য3 days ago

ভোট প্রস্তুতি তুঙ্গে! রাজ্যে আসছে নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ

রাজ্য2 days ago

রাজ্যে আরও কমল দৈনিক সংক্রমণের হার, ১৩ জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা এক অঙ্কে

কেনাকাটা

কেনাকাটা6 days ago

৯৯ টাকার মধ্যে ব্র্যান্ডেড মেকআপের সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : ব্র্যান্ডেড সামগ্রী যদি নাগালের মধ্যে এসে যায় তা হলে তো কোনো কথাই নেই। তেমনই বেশ কিছু...

কেনাকাটা1 week ago

কয়েকটি ফোল্ডিং আইটেম খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি সঙ্গে থাকলে অনেক সুবিধে হত বলে মনে হয়, কিন্তু সব সময় তা পাওয়া...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের কাজ এগুলি সহজ করে দেবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের কাজ অনেক বেশি সহজ করে দিতে পারে যে সমস্ত জিনিস, তারই কয়েকটির খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 weeks ago

ম্যাক্সিড্রেসের নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সুন্দর ম্যাক্সিড্রেসের চাহিদা এখন তুঙ্গে। সামনেই কোনো আনন্দ অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ থাকলে ম্যাক্সি পরতে পারেন। বাছাই করা কয়েকটি ড্রেসের...

কেনাকাটা2 weeks ago

রকমারি ডিজাইনের ৯টি পুঁটলি ব্যাগের কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুমে নিমন্ত্রণে যেতে সাজের সঙ্গে মিলিয়ে ব্যাগ নেওয়ার চল রয়েছে। অনেকেই ডিজাইনার ব্যাগ পছন্দ করেন। তেমনই কয়েকটি...

কেনাকাটা2 weeks ago

কস্টিউম জুয়েলারির দারুণ কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুম আসছে। নিমন্ত্রণবাড়ি তো লেগেই থাকে। সেখানে আজকাল সোনার গয়নার থেকে কস্টিউম বা জাঙ্ক জুয়েলারি পরে যাওয়ার...

কেনাকাটা3 weeks ago

রুম হিটারের কালেকশন, ৬৫০ থেকে শুরু

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভালোই শীত চলছে। এই সময় রুম হিটারের প্রয়োজনীয়তা খুবই। তা সে ঘরের জন্যই হোক বা অফিস, বা কোথাও...

কেনাকাটা3 weeks ago

চোখের যত্ন নিতে কিনুন এগুলি, খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অনেকেই আছেন সারা দিনের ব্যস্ততার মাঝে যদিও বা পা, হাত বা মুখের টুকটাক যত্ন নেন, কিন্তু চোখের বিশেষ...

কেনাকাটা4 weeks ago

ফিলগুড প্রোডাক্ট! পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দিনের মধ্যে কিছু সময় যদি নিজের মতো করে নিজের জন্য দেওয়া যায় তা হলে মন যেমন ভালো থাকে...

কেনাকাটা4 weeks ago

জায়গা বাঁচানোর জন্য বিভিন্ন রকমের অর্গানাইজার, দেখে নিন খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রোজকার ঘরে ব্যবহারের জন্য এমন অনেক জিনিস আছে যেগুলি থাকলে যেমন জায়গার সাশ্রয় হয় তেমনই সময়েরও। জায়গা বাঁচানোর...

নজরে