Connect with us

দুর্গা পার্বণ

শহুরে জাঁকজমক নেই, আকুই পশ্চিমপাড়ার পুজোয় আছে আত্মিক টান

Published

on

ইন্দ্রাণী সেন

-“ও বিষ্টুদা গণেশের জায়গায় তুমি বসে গেলেই তো পারো। বছর বছর তোমার ভুঁড়ি গণেশের মতো বেড়ে চলেছে। আর কার্তিক তো পুরো হিন্দি সিনেমার মিঠুন।”

-“তোমাদের নিয়ে আর পারি না বাপু। শান্তিতে ঠাকুর গড়তে দাও না।”

-“তা বিষ্টুদা তুমি কুড়িটা রুটি কী করে খাও? মেজমার তো হাত ব্যথা হয়ে যায়।”

স্কুলের শেষে দুর্গামেলায় ঠাকুর-মিস্ত্রিকে খানিক রাগিয়ে এ বার ঘোষপুকুরের পথ ধরল বছর পনেরো-ষোলোর নিমাই, নিতাই আর তপন। পাশ থেকে আবার যোগ দিল মানিক…।

বটতলায় বসে নারকেল নাড়ু, খই নাড়ু আর চালভাজার গল্পে ছেলেবেলা পেরিয়ে প্রবাসী বাঙালি নিমাই এখন বরিষ্ঠ নাগরিক। ইংল্যাণ্ডবাসী নাতনিকে ‘দুর্গাপুজো কার্নিভেলের’ গল্প শোনাচ্ছেন। হালের দুর্গাপুজোর এলাহি আয়োজন ছেড়ে নিজের গাঁয়ের ছেলেবেলার পুজোর স্মৃতিচারণাতেই বর্তমানের এই ষাটোর্ধ-সত্তোরার্ধরা বেশি সুখ পান।

লালমাটির রাস্তা ধরে কিছুটা পথ পেরিয়ে বট-অশ্বত্থের ছায়ানিবিড় কালো পুকুরের টলটলে জলে স্নান সেরে ষষ্ঠীর বোধনের দিন থেকেই শুরু হয়ে যেত পুজো। বাড়ির কাজ করতে করতে পঁচাত্তর বছরের ‘যুবতী’ ঠাকুমা জয়াদেবী বাড়ির নাতনিদের গল্প বলছেন, “আকুইয়ের পশ্চিমপড়ার পুজো সবার সেরা। আমার বাপের দেশের পুজো টাকুকাকা আর মদনকাকা, কুমুদদার মন্ত্র উচ্চারণ আর চণ্ডীপাঠে হাটতলা গমগম করত।”

বছর পঁয়তাল্লিশের সুজাতা চট্টোপাধ্যায়ের কথায়, “বিয়ে হয়েছে বছর ছাব্বিশ। জন্ম থেকে আজ পর্যন্ত আকুইয়ের পুজো বাদ যায়নি। ছেলে মেয়ে, সবাইয়ের গ্রামের পুজোই বেশি পছন্দ। শহর থেকেও এই পুজোর সময় মনটা এই গ্রামেই পড়ে থাকে”।

আবার কলকাতায় জন্ম এবং বেড়ে উঠলেও পুজোর সময় নিজের গ্রাম আকুই আসতেই হবে বছর আঠাশের শ্রয়ণকে। সে বলে, “গ্রামের বাড়িতে সব সময় আসতে ভালো লাগে। এখানকার পুজো দেখলে মনে শান্তি আসে, যে শান্তি কলকাতার কোলাহল-হট্টগোলের মধ্যে পাই না।”

আকুই পল্লিমঙ্গল সমিতির প্রতিষ্ঠাতা-সদস্যরা এখন সবাই সত্তর পেরিয়েছেন। দেখতে দেখতে তাঁদের পুজো এ বার ৫৫-এ পা দিল। সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এককড়ি মুখোপাধ্যায় বলেন, “চেয়ে মেগে পাড়ার ছেলেরা এই পুজো শুরু করেছিল। নামেই বারোয়ারি পুজো আদতে এটা আমাদের প্রাণের পুজো।”

কুমুদবন্ধু মুখোপাধ্যায়ের কথায়, “রাজ্য সরকার তো এ বার পুজোর কমিটিগুলোকে পঁচিশ হাজার টাকা করে দেবে বলেছে। পাড়ার নতুন প্রজন্মের ছেলেদের উৎসাহের অভাব, তাই আমরাই থানায় যাই। আমাদের সমিতির নিজস্ব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট না থাকায় আর টাকা পাওয়া হল না।”

(দুর্গাপুজো সংক্রান্ত যাবতীয় খবরাখবর পড়তে ক্লিক করুন এখানে)

তবে টাকা না পাওয়া গেলেও অনাড়ম্বর ভাবে নিষ্ঠা ভক্তি মেনেই পশ্চিমপাড়ার মানুষ পাঁচ দিন ধরে পুজোয় মাতেন। অষ্টমীর দিন দেবীকে একশো আট পদ্ম তুলসী দূর্বা ও বেলপাতার মালা দেওয়ার নিয়ম। নবমীর দিন আখ আর চালকুমড়ো দেবীকে নিবেদন করা হয়। দশমীর দিন ঠাকুর ভাসানের পর মন্দিরে ছোটোরা বড়োদের আশীর্বাদ নিয়ে মিষ্টিমুখ করলে তবে পুজো সম্পন্ন হয়। দশমীর ভাসানে আবার বিশেষ আকর্ষণ আতসবাজির খেলা।

দশমীতে আতসবাজির খেলা

সমিতির আরও এক প্রতিষ্ঠাতা সদস্য রমাপ্রসাদ সেন বলেন, এ বার পুজোয় সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পের প্রচার থাকবে। তিনি বলেন, “সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ, গাছ লাগাও প্রাণ বাঁচাও, জল ধরো জল ভরো, প্ল্যাস্টিক বর্জন – এই প্রকল্পগুলি তুলে ধরব। আমাদের পাড়ার ছেলেমেয়েরা ঘরে ঘরে ঘুরে এই গুলির প্রচার চালাবে আর সেই সঙ্গে পুজো মণ্ডপেও এর বার্তা থাকবে।”

হতে পারে এই পুজোয় শহুরে কোলাহল নেই, জাঁকজমক নেই, কিন্তু আত্মিক একটা টান রয়েছে। আর সেই টানেই বিদেশবিভুঁয়ে থাকলেও পুজোর ক’টা দিন গ্রামের বাড়িতে আসতেই হবে পাড়ার ছেলেমেয়েদের।

দুর্গা পার্বণ

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: সাংবাদিক বৈঠক ও মানববন্ধন করে ৩ দিন ছুটির দাবি

বর্তমানে বিজয়া দশমীর দিনে ছুটি রয়েছে। সঙ্গে অষ্টমী ও নবমী যোগ করে ৩ দিনের ছুটির দাবি জানান তাঁরা।

Published

on

press conference by hindu mahajot
সাংবাদিক বৈঠকে বক্তব্য রাখেছেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সভাপতি ড. প্রভাস চন্দ্র রায়।

ঋদি হক: ঢাকা

উৎসব মানেই প্রাণের মিলনমেলা। বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এমন স্বপ্নই দেখতেন। বঙ্গবন্ধু কোনো দিনই ধর্ম হিসেবে কাউকে আলাদা করে দেখেননি। এই মহান মানুষটির দৃষ্টি জুড়ে ছিল ‘আমার বাঙলার মানুষ’। তাই তিনি ‘গণনায়ক’ হয়ে উঠতে পেরেছিলেন। বাঙালিকে যে ঐক্যের মন্ত্র তিনি শিখিয়ে গিয়েছেন, যে পথ তিনি দেখিয়ে গিয়েছেন, সেই পথই অনুসরণ করে চলেছেন তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বরাবরই বলে আসছেন, অশুভ শক্তির বিনাশ এবং সত্য ও সুন্দরের আরাধনা শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রধান বৈশিষ্ট্য। দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের উৎসবই নয়, এটি বাংলাদেশের বুকে সার্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি। তিনি এই উৎসব সম্পর্কে বলেন, “’আমার প্রত্যাশা, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’ এ মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে আমরা সবাই একসাথে উৎসব পালন করব।” শেখ হাসিনা শারদ উৎসবে শুভেচ্ছা জানিয়ে বাণী দিয়ে থাকেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “সকলে মিলে যুদ্ধ করে বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছি। তাই এই দেশ আমাদের সকলের। আমাদের সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমানাধিকার সুনিশ্চিত করা হয়েছে।”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই বাণীর রেশ ধরেই সনাতন ধর্মাবলম্বীরা আসন্ন শারদীয় দুর্গোৎসব পালনে তিন দিনের ছুটি দাবি করেছেন। শুক্রবার রাজধানীর ঢাকার সেগুনবাগিচায় এক সাংবাদিক বৈঠক ডেকে এই দাবির কথা তুলে ধরেন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দ।

তাঁরা বলেন, সপ্তমী, অষ্টমী ও নবমী উপলক্ষ্যে দিনরাত পুজো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করতে হয়। বর্তমানে বিজয়া দশমীর দিনে ছুটি রয়েছে। সঙ্গে অষ্টমী ও নবমী যোগ করে ৩ দিনের ছুটির দাবি জানান তাঁরা। ছুটির দাবিতে আগামী ২৩ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচিও ঘোষণা করে সংগঠনটি। একই দিনে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা প্রশাসকের কাছেও স্মারকলিপি প্রদানেরও কর্মসূচি রয়েছে।

সাংবাদিক বৈঠকে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি ড. প্রভাস চন্দ্র রায়, প্রধান সমন্বয়কারী প্রকৌশলী শ্যামল কুমার রায়, সিনিয়র সহসভাপতি ডি সি রায়, মুক্তিযোদ্ধা রনজিৎ মৃধা, মহাসচিব এবং মুখপাত্র পলাশকান্তি দে প্রমুখ।

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের অপর অংশের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিকের নেতৃত্বে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন।

একই দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের অপর অংশ এ দিন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে। সংগঠনের মহাসচিব আইনজীবী গোবিন্দ্র চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, তাঁরা তিন দিনের ছুটির দাবিতে আগেও কর্মসূচি পালন করেছেন। এ ব্যাপারে তাঁদের সাংবিধানিক অধিকারের কথাও তুলে ধরেন। তাঁদের আশা, শেখ হাসিনা অবশ্যই তাঁদের নিরাশা করবেন না।

করোনাকালীন সময়েও বাংলাদেশে প্রায় ৩২ হাজার মণ্ডপে দুর্গোৎসব উদযাপনের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। আয়োজনও চলছে পুরোদমে। কোথাও কোথাও প্রতিমা গড়ার কাজ সম্পন্ন। বাকি রয়েছে রঙ-তুলির আঁচড়।

পূজো উপলক্ষ্যে সর্বোচ্চ সতর্কতা নেওয়া হয়ে থাকে। পূজো শুরুর সপ্তাহখানেক আগে থেকেই আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর তরফে মণ্ডপ পরিদর্শন, অস্থায়ী ক্যাম্প বসানো ছাড়াও পূজা উদযাপন পর্ষদের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন। ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, রমনা কালীমন্দির ও মা আনন্দময়ী আশ্রম, সিদ্ধেশ্বরী  কালীমন্দির, বরদেশ্বরী কালীমাতা মন্দির-সহ বিভিন্ন মন্দিরে পুলিশ ও র‌্যাবের অস্থায়ী ক্যাম্প বসানো হয়ে থাকে।

ঢাকা মহানগর সার্বজনীন পূজা উদযাপন পরিষদের দফতর সম্পাদক বিপ্লব দে  বলেন, ৫ দিনব্যাপী দুর্গোৎসবের শেষ দিন অর্থাৎ বিজয়া দশমীর দিন মাত্র এক দিনের ছুটি রয়েছে। কিন্তু অষ্টমীর দিন উপোসের নিয়ম ছাড়াও নবমীর দিন মায়ের বিদায়ের আয়োজনে ব্যস্ত সময় কাটাতে হয়। এ কারণে মোট তিন দিনের ছুটির দাবি তাঁদের।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির পরিদর্শনে বিএসএফ-এর ডিজি রাকেশ আস্থানা

Continue Reading

দুর্গা পার্বণ

‘দুর্গাপুজোর আনন্দ কোনো ভাবেই মাটি হবে না’, আশ্বস্ত করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

…মহালয়ায় আমি আপনাদের নিশ্চিত করছি, কেউ দুর্গাপুজোর আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবেন না”, বললেন মুখ্যমন্ত্রী।

Published

on

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

কলকাতা: কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যেও আসন্ন দুর্গাপুজোর আনন্দ কোনো ভাবেই মাটি হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ দিন টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, “মহালয়ার শুভক্ষণে প্রত্যেককে শুভেচ্ছা জানাই। করোনার কারণে বিভিন্ন ধরনের বিধিনিষেধ থাকলেও দুর্গাপুজোর আনন্দ কোনো ভাবেই মাটি হবে না। মহালয়ায় আমি আপনাদের নিশ্চিত করছি, কেউ দুর্গাপুজোর আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবেন না”।

একই সঙ্গে তিনি লিখেছেন, “আমি সবাইকে এগিয়ে আসার অনুরোধ করছি, অভাবগ্রস্তদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন এবং সর্বত্র আনন্দ ছড়িয়ে দিন”।

এ বার মহালয়ার দিনেই বিশ্বকর্মা পুজো। শুভেচ্ছা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, “শ্রমিক ভাই ও বোনেদের এবং তাঁদের পরিবার-পরিজনদের বিশ্বকর্মাপুজোর শুভেচ্ছা জানাই। তাঁরা আমাদের গর্ব। সমাজের উন্নয়নের জন্য তাঁরা নিরলস ভাবে পরিশ্রম করেন”।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড রুখতে অনলাইন মাধ্যমকে হাতিয়ার করছে কলকাতার একাধিক পুজো

উল্লেখ্য, করোনার ত্রাসে নাজেহাল সকলেই, ক্রমশ বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। কিন্তু এর মধ্যেই আসছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। আর মাত্র মাসদেড়েকের অপেক্ষা। করোনা আবহের কারণে সামান্য কিছু বিধিনিষেধ থাকতে পারে এ বারের দুর্গাপুজোয়। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: ২০২০-তে দুর্গাপুজো নয়, এ কথা আমরা বলেছি প্রমাণ করুন, ১০০ বার ওঠবোস করব: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading

কলকাতা

কোভিড রুখতে অনলাইন মাধ্যমকে হাতিয়ার করছে কলকাতার একাধিক পুজো

‘দুর্গাফেস্ট ডট কম’ ওয়েবসাইটে প্রায় ১৫০টি পুজোর লাইভ স্ট্রিমিং!

Published

on

শোভাবাজার রাজবাড়ির দুর্গাপ্রতিমা। ফাইল ছবি

কলকাতা: কোভিড মহামারির আবহে এ বারের দুর্গাপুজোয় অতিথি-দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণের পথ ধরছে কলকাতার বারোয়ারি এবং বনেদি বাড়ির একাধিক দুর্গাপুজো। অনেকে আবার সাধারণের সঙ্গে পুজোর আনন্দ ভাগ করে নিতে বেছে নিচ্ছে অনলাইন মাধ্যমকে।

কলকাতার প্রাচীন শোভাবাজার রাজবাড়ি (ছোটো তরফ) এ বারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে দর্শনার্থীদের প্রবেশ সম্পূর্ণ ভাবে সীমাবদ্ধ করবে।

পরিবারের সদস্য দেবাশিসকৃষ্ণ দেব টাইমস অব ইন্ডিয়ার কাছে বলেন, “এটা শুধুমাত্র আমাদের পরিবারের সদস্যদের কথা ভেবে নয়। সকাল থেকেই প্রচুর মানুষ এলে তাঁরাও একে অপরকে সংক্রামিত করতে পারেন”।

তাঁরা স্থির করেছেন ‘কলাবউ স্নান’ থেকে ‘সন্ধিপুজো’র লাইভ স্ট্রিমিং করা হবে। দেবাশিসকৃষ্ণ বলেন, “রাজা নবকৃষ্ণ দেবের সময় থেকে গত ২৩০ বছর ধরে কখনোই বাইরের মানুষের জন্য আমাদের পুজোর দরজা বন্ধ হয়নি”।

হিডকো এবং এনকেডিএ এবং অন্য়ান্যদের যৌথ উদ্যোগে তৈরি ওয়েবসাইট ‘দুর্গাফেস্ট ডট কম’ (Durgafest.com)-এ দুর্গাপুজোর লাইভ স্ট্রিমিংয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

রাজ্যের নারী ও শিশুকল্যাণমন্ত্রী শশী পাঁজা পরামর্শদাতা হিসেবে রয়েছেন এই ওয়েবসাইটটিতে। তিনি বলেন, মহামারির সময় শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে অন্যান্য বনেদি বাড়িও অনলাইন মাধ্যমের সুবিধা নিতে পারে। এই ওয়েবসাইটে দর্শনার্থীরা রেটিং করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটটির অন্যতম অংশীদার আত্রেয়ী নির্মাণের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ইন্দ্রজিত রায় বলেন, “আমরা কলকাতার প্রায় দেড়শো পুজোর অনলাইন স্ট্রিমিং এবং তাদের মণ্ডপ উপস্থাপনের চেষ্টা করছি”।

অন্য দিকে শোভাবাজার রাজবাড়ির ‘বড়ো তরফ’-এর পুজো এ বার ২৬৪ বছরে। দর্শনার্থীদের প্রবেশ পুরোপুরি বন্ধ না করলেও নিয়ন্ত্রণ করছেন তাঁরাও। রাজা স্যার রাধাকান্ত দেব বাহাদুর এস্টেটের ট্রাস্টি তাপস বসু বলেন, দর্শনার্থীরা ‘বাঘ ফটক’ দিয়ে প্রবেশ করবেন, এবং জয়পুরিয়া কলেজের কাছের পথ দিয়ে বেরিয়ে যাবেন।

আরও পড়তে পারেন: বড়িশার আটচালায় কলকাতার প্রথম দুর্গাপুজো শুরু করলেন লক্ষ্মীকান্ত

অন্য দিকে মধ্য কলকাতার লাহা পরিবার এখনও নিজেদের পুজোয় দর্শনার্থীদের প্রবেশ নিয়ে স্থির সিদ্ধান্ত নেননি বলেই জানা গিয়েছে।

Continue Reading
Advertisement
press conference by hindu mahajot
দুর্গা পার্বণ5 hours ago

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: সাংবাদিক বৈঠক ও মানববন্ধন করে ৩ দিন ছুটির দাবি

বিদেশ6 hours ago

টিকটক, উইচ্যাট নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত আমেরিকার

coronavirus
রাজ্য6 hours ago

কলকাতা ও পড়শি জেলায় কোভিড পরিস্থিতি স্থিতিশীল, বেশি উদ্বেগ এখন পশ্চিম মেদিনীপুরকে ঘিরে

দেশ7 hours ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল?

দেশ7 hours ago

ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির পরিদর্শনে বিএসএফ-এর ডিজি রাকেশ আস্থানা

Durgapur Rain
পশ্চিম বর্ধমান8 hours ago

রেকর্ড বর্ষণে বিপর্যস্ত পশ্চিমাঞ্চলের তিন জেলা, জমা জলে নাজেহাল দুর্গাপুর

ভ্রমণ8 hours ago

৬ মাস বন্ধ থাকার পর খুলছে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত চিড়িয়াখানা ও জঙ্গল পর্যটন

Shreyas Iyer
ক্রিকেট8 hours ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

দেশ17 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯৬৪২৪, সুস্থ ৮৭৮৭২

অরন্ধন
ব্র্ত-উৎসব2 days ago

অরন্ধনে নানা বিধ পদ রান্না করে নিবেদন করা হয় মা মনসাকে

covid in kolkata
কলকাতা2 days ago

আগস্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরের প্রথম ১৫ দিনে কলকাতায় কমেছে নতুন কোভিডরোগীর সংখ্যা

শিল্প-বাণিজ্য12 hours ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

Covid situation kolkata
দেশ3 days ago

সক্রিয় কোভিডরোগীর নিরিখে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থান কেরল, ওড়িশা, অসমেরও নীচে

Muthaiah Muralidaran
ক্রিকেট2 days ago

মাঁকড়ীয় আউটের বিকল্প বাতলে দিলেন মুতাইয়া মুরলীধরন

Parliament
দেশ2 days ago

নতুন সংসদ ভবন নির্মাণের বরাত পেল টাটা

কলকাতা1 day ago

রবীন্দ্র সরোবরে করা যাবে না ছটপুজো, খারিজ কেএমডিএর আবেদন

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা1 week ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা1 month ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

নজরে