Connect with us

দঃ ২৪ পরগনা

মা ও শিশুসন্তানদের জন্য কাপড় ও খাবার নিয়ে হাওড়ার বালিতে ‘সহমর্মী’

মৃন্ময়ী ‘মা’ যখন মণ্ডপে ২৫ লক্ষ টাকার গয়নায় সুসজ্জিত, তখন তাঁর সন্তানেরা দু’ মুঠো অন্নের আশায় ঝাড়খণ্ড থেকে এসে বালির ইটভাটায় লড়াই করে চলেছে।

Published

on

বালিতে সহমর্মীর ত্রাণ।

সুব্রত গোস্বামী

রাস্তায় একটা ব্যানারে হঠাৎ চোখ পড়ল। তাতে লেখা – ‘প্রতিমাতেই শুধু মা দুর্গা নন, প্রতি-মাতেই মা দুর্গা’। এই অনুভবেই বিশ্বাসী গড়িয়া সহমর্মী সোসাইটি (Garia Sahamarmi Society)।  

Loading videos...

পুজো উপলক্ষ্যে মায়েদের হাতে নতুন কাপড় তুলে দেওয়ার জন্য সহমর্মী হাজির হয়ে গিয়েছিল বালির কিছু ইটভাটা-সহ কাছাকাছি কয়েকটি অঞ্চলে। মৃন্ময়ী ‘মা’ যখন মণ্ডপে ২৫ লক্ষ টাকার গয়নায় সুসজ্জিত, তখন তাঁর সন্তানেরা দু’ মুঠো অন্নের আশায় ঝাড়খণ্ড থেকে এসে বালির ইটভাটায় লড়াই করে চলেছে।

সহমর্মী পৌঁছে গিয়েছিল বালিতে।

ইটভাটায় গিয়ে যা দেখা গেল, তা কোনো ভাবেই ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। ৬ ফুট বাই ৮ ফুট একটা ছোট্ট ঘরে কোনো রকমে এঁরা বাস করছেন। করোনাকালে শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে চলার কথা বলা হচ্ছে। শারীরিক দূরত্ববিধি মানা এঁদের কাছে বিলাসিতা।

সেই ছোট্ট ঘরে একটাও জানলা নেই। মেঝেতে পড়ে আছে ছোট্ট শিশুর দল।  দেখলে মনে হয়, আফ্রিকার কোন দেশ থেকে এসেছে। এই আমাদের আধুনিক ভারত! চাঁদের মাটিতে আমরা যখন চন্দ্রযান পাঠাতে ব্যস্ত, তখন আমারই দেশের মানুষের এই চরম দুর্ভোগ।

বালির বিআইভিএ (BIVA), তার পর বিবিএ (BBA), বিএনএস (BNS) ও বিবিএ২ (BBA2) ইটভাটা এবং বিদ্যাসাগর কলোনিতে পৌঁছে গিয়েছিল ‘সহমর্মী’। ‘সহমর্মী’ পৌঁছে গিয়েছিল বেলানগরের ভগবানের ভাণ্ডারে।

বালির ওই সব জায়গায় ইটভাটায় ৫০ জন মহিলার হাতে শাড়ি ও খাবার এবং ১০০ জন শিশুর মুখে খাবার তুলে দেওয়া হল ‘সহমর্মী’র পক্ষ থেকে।

গড়াগাছায় সহমর্মীর ত্রাণ।

শুধুই বালির ইটভাটাই নয়, ‘সহমর্মী’-র আয়োজনে মহাষ্টমীর দিন গড়িয়া গড়াগাছায় ১৪০ জন শিশুর হাতে দুপুরের খাবার তুলে দেওয়া হল। এখানকার ছোট্ট দুগ্গা, লক্ষ্মী, সরস্বতী, কার্তিক, গণেশদের হাতে পুজোর নৈবেদ্য তুলে দিতে পেরে ‘সহমর্মী’ ধন্য ও ঋদ্ধ হল।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

পিতৃমাতৃহীন শিশুদের নিয়ে পুজোর দিনে ‘দুর্গা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’-এর অভিনব উদ্যোগ

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবনের পিঁপড়েখালি সেতু ভেঙে গুরুতর জখম ১

ভেঙে গেল দুই ২৪ পরগনার মধ্যে সংযোগকারী সুন্দরবনের পিঁপড়েখালি সেতু।

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: আচমকাই ভেঙে পড়ল উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার মধ্যে সংযোগকারী সুন্দরবনের পিঁপড়েখালি সেতু। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানার চড়াবিদ্যা গ্রাম পঞ্চায়েতের ৯ নম্বর কুমড়োখালিতে।

উত্তর ২৪ পরগনার সন্দেশখালি থানার অন্তর্গত রামপুরবাজার সংলগ্ন বিদ্যাধরী নদীর শাখা নদী এই পিঁপড়েখালি। যোগাযোগের পথকে সুগম করতে এই পিঁপড়েখালি নদীর উপর একটি লোহার সেতু তৈরি করা হয়েছিল ১৯৯৯ সালে বাম আমলে। ২০০০ সালে এই সেতুটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন মন্ত্রী গণেশ মণ্ডল, কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় এবং তৎকালীন বাসন্তীর বিধায়ক সুভাষ নস্কর।

Loading videos...

রামপুরবাজার সংলগ্ন পিঁপড়েখালি সেতুটি দিয়ে প্রতিদিন পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষ যাতায়াত করেন। এ ছাড়া সাইকেল ও ভ্যান যোগে বহু মানুষ যাতায়াত করেন এই সেতু দিয়ে। আচমকা এই গুরুত্বপূর্ণ সেতুটি ভেঙে পড়ায় চরম অসুবিধায় পড়লো দুই জেলার মানুষ।

সেতু ভেঙে কুমড়োখালি গ্রামের বাসিন্দা অশোক মুখোপাধ্যায় গুরুতর জখম হন। স্থানীয় মানুষ গুরুতর জখম অশোকবাবুকে উদ্ধার করে স্থানীয় সরবেড়িয়া শ্রমজীবী হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভরতি করেন।

এই ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে চলে আসেন বাসন্তী থানার আইসি আবদুর রব খান-সহ ব্লক প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিরা। শনিবার সকালেই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন রাজ্যের প্রাক্তন সেচমন্ত্রী তথা বাসন্তীর প্রাক্তন বিধায়ক সুভাষ নস্কর। ঘটনাস্থলে দাঁড়িয়ে সুভাষবাবু বলেন, “দীর্ঘদিন কোনো মেরামতি না হওয়ার ফলে সেতুটি ভেঙে পড়েছে। এখন নৌকায় করে মানুষজন পারাপার হচ্ছে দেখলাম। মঙ্গলবার ও শনিবার রামপুর বাজারে হাট বসে। বহু দূর-দূরান্ত থেকে মানুষজন মালপত্র নিয়ে এই হাটে আসেন। তবে রামপুর বাজারে মালপত্র নিয়ে যেতে সাধারণ মানুষের খুবই অসুবিধা হচ্ছে। আমি এ বিষয়ে প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি, সেতুটি আবার নতুন করে তৈরি করার কথা হয়েছে”।

তবে আপাতত সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য একটি কাঠের সেতু তৈরির করা হবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: হাসপাতালে ভরতির জন্য রোগীর কোভিড পজিটিভ রিপোর্টের দরকার নেই, নতুন নির্দেশিকা

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় সুন্দরবনের কাঁকড়া চাষিরা দিশেহারা

আগেই মুখ ফিরিয়েছে চিন-সহ অন্য়ান্য দেশ। এখন জলের দরে বেচতে হচ্ছে…

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় এ বারে কপালে হাত পড়েছে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কাঁকড়া চাষিদের। করোনার এই প্রকোপ মহামারির আকার নিতেই চিন কাঁকড়া আমদানি বন্ধ করে দিয়েছিল। ফলে সুন্দরবনের আটটি ব্লকের চাষিরা এখন পড়েছেন চরম সমস্যায়।

রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চাষিদের পাশাপাশি সমস্যায় পড়েছেন খুচরো ও পাইকারি কাঁকড়া ব্যবসায়ীরাও। কাকদ্বীপের শ্যামল গুছাইত, নিমাই মাল-সহ কয়েকজন কাঁকড়া চাষি বলেন, “মরশুমের শুরুতে বিভিন্ন ফিসারিতে সামুদ্রিক কাঁকড়া চাষ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। সেগুলি রফতানি না হওয়ায় কী হবে বুঝতে পারছি না”।

Loading videos...

এমনকি আদিবাসী পরিবারগুলিও জঙ্গলে কাঁকড়া সংগ্রহ করতে যেতে পারছে না। যেটুকু সংগ্রহ হচ্ছে, রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তা স্থানীয় বাজারেই বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের। ফলে ঠিকঠাক দাম না পাওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়ছেন ব্যবসায়ীরা। কুলতলির মেরিগঞ্জের খাদিজা, সালমা,পারভিনা,খুশবু কিংবা মৈপীঠের সোনালি, রুমাইয়া,কাজল-সহ স্থানীয় কয়েকজন জানালেন, কাঁকড়ার বিক্রি এ ভাবে মার খেলে তাঁদের অন্ন সংস্থান আটকে পড়েছে। কী হবে বুঝতে পারছেন না।

কুলতলির কাঁটামারি বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, জেলার সবচেয়ে বেশি কাঁকড়া চাষ হয় পাথর প্রতিমা ব্লকে। এ ছাড়া কুলতলি, নামখানা, কাকদ্বীপ, গোসাবা-সহ সুন্দরবনের আটটি ব্লকে এর চাষ করা হয়। পাথরপ্রতিমা ব্লকের ১৫টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে বেশির ভাগই নদী প্রধান। কে প্লট, এল প্লট, পাথরপ্রতিমা, জি প্লট, সীতারামপুর, বরদাপুর, ভাগবতপুর, লক্ষ্মীপুর, অচিন্ত্যনগর এলাকায় চাষ হয় কাঁকড়া।

সুন্দরবনের নদীর ধারের বাসিন্দারাই জঙ্গলে পাড়ি দেয় কাঁকড়া ধরতে। সমুদ্র কাঁকড়ার ব্যবসার মরশুম ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত। কিন্তু ওই সময় থেকেই করোনার দ্বিতীয় প্রকোপ দেখা দিতে থাকে। ফলে চিন কাঁকড়া আমদানী বন্ধ করে দেয়। চিনের বাজারে কাঁকড়ার দাম থাকলেও ছোটো, মাঝারি, বড় প্রকার সমুদ্র কাঁকড়া যাচ্ছে না সেখানে। ফলে যে কাঁকড়া ইতিমধ্যেই উৎপাদন হয়েছে সেগুলোই বিক্রি হচ্ছে স্থানীয় বাজারে। যে কাঁকড়ার পাইকারি বাজারদর ১৬০০ থেকে ১৮০০ টাকা। তা এখন ৬০০ টাকাতেও বিক্রি হচ্ছে না। আবার যে কাঁকড়া ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায় কিলো প্রতি পাইকারি দরে বিক্রি হওয়ার কথা, সেই কাঁকড়া এখন মাত্র কিলো প্রতি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সব মিলিয়ে এই সুন্দরবনের অর্থনীতিতে গতবারের থেকেও খারাপ প্রভাব পড়েছে এই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে। গত বারের ধাক্কা সামলে ওঠার মাঝেই আবার এ বারের ধাক্কায় বিপুল লোকসানের বোঝা কী ভাবে সামলাবেন? এই চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কাঁকড়া চাষি ও ব্যবসায়ীদের।

আরও পড়তে পারেন: দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তৃত পর্যালোচনা বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী, সব থেকে খারাপ অবস্থা ১২টি রাজ্যে

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

বিধায়ক নির্বাচিত হয়েই কোভিড মোকাবিলায় তৎপর অভিনেত্রী লাভলি মৈত্র

রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পুরপ্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা করে নিলেন একাধিক পরিকল্পনা!

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সোনারপুর: জীবনে প্রথম বার বিধায়ক নির্বাচিত হয়েই এ বার কোভিড মোকাবিলার কাজে নেমে পড়লেন সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের নবনির্বাচিত প্রার্থী অভিনেত্রী লাভলি মৈত্র।

তিনি কোভিড মোকাবিলায় রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পুরপ্রশাসক পল্লব দাস-সহ অন্যান্য দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করেন। প্রাথমিক ভাবে ঠিক করা হয়েছে, সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় কোভিড মোকাবিলায় সেফ হোম তৈরি করা হবে। এর জন্য চারটি জায়গা তাঁরা পরিদর্শন করেছেন।

Loading videos...

বিষয়টি জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য দফতরকেও। তারা আগামী দু’-এক দিনের মধ্যে এসে এর পরিকাঠামো ঘুরে দেখবে। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী সেফ হোম তৈরির কাজ শুরু হবে।

এ ছাড়া সাধারণ মানুষকে সাহায্যের জন্য ও অক্সিজেন সরবরাহ করার জন্য বিধায়কের পক্ষ থেকে একটি হেল্প লাইন নম্বরও চালু করা হবে। এই বিধানসভা এলাকার প্রত্যেকে যাতে কোভিডের টিকা পান তারও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি করোনা নমুনা পরীক্ষার পরিকাঠামো কী করে বাড়ানো যায় ও বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে কোভিড টেস্ট করা যায় সেটিও দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এই তারকা বিধায়ক। বিধায়কের এই উদ্যোগে খুশি স্থানীয় বাসিন্দারা। সোনারপুরে ইতিমধ্যে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন বহু মানুষ। এই পরিকাঠামো উন্নয়ন হলে তাঁরা উপকৃত হবেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়তে পারেন: বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ8 hours ago

ভারতের সঙ্গে স্থলসীমান্ত আরও ১৪ দিন বন্ধ রাখছে বাংলাদেশ

রাজ্য10 hours ago

ভোট মিটতেই দিব্যেন্দু অধিকারীকে নিয়ে ‘সক্রিয়’ জেলা তৃণমূল

রাজ্য11 hours ago

Bengal Corona Update: সংক্রমণের হার ফের ৩০ শতাংশ পার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও, তবে কলকাতা-সহ ৯ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

Car dealer
গাড়ি ও বাইক11 hours ago

মৃত্যুর পর গাড়ির মালিক কে? এ বার আগে থেকেই তা নির্ধারণ করা যাবে

insurance
শিল্প-বাণিজ্য12 hours ago

জীবন বিমা পলিসি কত রকমের হয়? কেনার সময় নিজের প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রাখুন

দেশ12 hours ago

কোভিডের মধ্যে অক্সিজেন বণ্টনে নজর রাখতে টাস্কফোর্স গঠন করল সুপ্রিম কোর্ট

রাজ্য13 hours ago

Covid Crisis: রাজ্যকে সাহায্য করুক কেন্দ্র, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী

দেশ13 hours ago

Covid Crisis: জলে গুলে খেতে হবে, করোনারোধী ওষুধে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই

sourav ganguly
ক্রিকেট3 days ago

Covid Crisis in IPL: জৈব সুরক্ষা বলয়ে কোনো ফাঁক ছিল বলে মনে করেন না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

দেশ3 days ago

Corona Update: দু’তিনটে রাজ্যে সংক্রমণবৃদ্ধির জের, ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ভেঙে দিল অতীতের রেকর্ড

ক্রিকেট2 days ago

England vs India 2021: ঋদ্ধি, শামি ছাড়াও ইংল্যান্ডগামী টেস্ট দলে ঠাঁই পেলেন বাংলার আরও এক

রাজ্য3 days ago

Post-Poll Violence: ইন্ডিয়া টুডে-র সাংবাদিকের ছবি পোস্ট করে হিংসায় মৃত হিসেবে বর্ণনা বিজেপির

রাজ্য2 days ago

সুখবর! রাজ্য সরকারি কর্মীরা পাচ্ছেন অ্যাড-হক বোনাস

দেশ2 days ago

Coronavirus Second Wave: নয়টি রাজ্যে চূড়ায় পৌঁছে গিয়েছে সংক্রমণ, জানাল স্বাস্থ্য মন্ত্রক

রাজ্য2 days ago

‘যা বলার পরে ডেকে বলব’, জল্পনা বাড়ালেন মুকুল রায়

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, কলকাতায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো পতন

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে