Connect with us

কলকাতা

কাশীবোস লেনে ‘দেবীঘট’, হাতিবাগানে ‘অসমাপ্ত’, নলীন সরকারে ‘পুজো এবার কাঠামোতে’, নর্থ ত্রিধারার ‘শ্রদ্ধার্ঘ্য’, সিকদারবাগানে ‘উৎসব’

হাইকোর্টের নির্দেশমতো কেউ মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারছেন না এবং শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে পুজোর সব কাজ করতে হচ্ছে।

Published

on

কাশীবোস লেন সর্বজনীন।

শুভদীপ রায় চৌধুরী

আজ সপ্তমী, প্রতি বছর সপ্তমীর চেনা রাজপথ কি এ বার দেখা যাবে? নাকি বিগত তিন দিনের মতোই জনস্রোতহীন নগরী দেখা যাবে। এ বছর উৎসবের পার্বণ চললেও মানুষের মনে রয়েছে করোনাভাইরাসের আতঙ্ক। নিষ্ঠার সঙ্গে পুজো হলেও কেউ পুজো সামনে থেকে দেখতে পাচ্ছেন না, হচ্ছে না অঞ্জলিও।

তিলোত্তমার শ্রেষ্ঠ উৎসবের দিনগুলো এ বছর সকলকে ঘরে বসেই কাটাতে হচ্ছে। হাইকোর্টের নির্দেশমতো কেউ মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারছেন না এবং শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে পুজোর সব কাজ করতে হচ্ছে। হাইকোর্টের রায়কে সম্মান জানিয়ে এ বার পুজোর উদ্যোক্তারাও সব কিছু করছেন।

Loading videos...

উত্তর কলকাতার অন্যতম বারোয়ারি পুজো কাশীবোস লেন সর্বজনীন পুজো কমিটির সদস্য সোমেন দত্ত জানালেন, এ বছর তাঁদের থিম ‘দেবীঘট’। তিনি আরও জানান, এ বছর দর্শনার্থীদের দেবীপ্রতিমা দর্শন করতে হবে ভার্চুয়ালি।  তার জন্য রয়েছে এলইডির ব্যবস্থাও। মূল মণ্ডপের সামনে শুধুমাত্র কমিটির পঁচিশ জন সদস্যই যেতে পারবেন।

করোনার জন্য অনেক পুজোকমিটিই ভেবেছিল এ বছর প্রতিমার বদলে দেবীঘটেই পুজো করতে হবে। সেই চিন্তাভাবনা থেকেই কাশীবোস লেন সর্বজনীনের পুজোর থিম হল ‘দেবীঘট’ বা ‘মঙ্গলঘট’। সমগ্র ভাবনাটি শিল্পী রিমল পাল মহাশয়ের।

এ বছর কাশীবোস লেনে সিঁদুরখেলা হচ্ছে না এবং যে সমস্ত মহিলা দেবীকে বরণ করতে আসবেন তাঁরা দূর থেকে মাকে বরণ করে চলে যাবেন। অর্থাৎ উত্তরের কাশীবোস লেন সর্বজনীনের পুজো এ বার নানান বিধিনিষেধের মধ্যেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

হাতিবাগান সর্বজনীন।

কথা হচ্ছিল হাতিবাগান সর্বজনীন পুজো কমিটির সাধারণ সম্পাদক অনিরুদ্ধ রায় চৌধুরীর সঙ্গে। তিনি জানালেন, তাঁদের পুজোতেও রয়েছে নানা সুরক্ষাবিধি এবং তাঁরাও হাইকোর্টের নিয়ম মেনেই পুজো করছেন। মণ্ডপে প্রবেশের অধিকার নেই সাধারণের।

এ বছর হাতিবাগান সর্বজনীনের থিম ‘অসমাপ্ত’, অর্থাৎ সমস্ত পরিকল্পনা নিয়ে এগোনো শুরু হলেও করোনাভাইরাসের প্রভাবে পরিকল্পনা অনেকটাই বাস্তবায়িত করা গেল না। তাই নাম ‘অসমাপ্ত’। এই পুজোমণ্ডপে গেলে আপনি দেখতে পাবেন কারিগররা কাজ করতে করতে ফেলে গিয়েছেন নানা যন্ত্রপাতি। এ বছর হাতিবাগানের দেবীপ্রতিমা কাগজের তৈরি। তাই আনুষ্ঠানিক বিসর্জনের কোনো ব্যবস্থাও নেই।

নলীন সরকার স্ট্রিট সর্বজনীন।

নলীন সরকার স্ট্রিট সর্বজনীন দুর্গোৎসব এ বছর ৮৮তম বর্ষে পদার্পণ করল। কথা হচ্ছিল কমিটির সভাপতি জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। তিনি জানালেন, এ বছর তাঁদের পুজোর থিম ‘পুজো এবার কাঠামোতে’, অর্থাৎ মহামারির সঙ্কটের সময়ে বিগ্রহ সম্পূর্ণ করে উঠতে পারেননি শিল্পী। তাই আপনি মণ্ডপের সামনে গেলে দেখতে পাবেন নানা অসমাপ্ত প্রতিমা রয়েছে। এমনকি মণ্ডপের মূল প্রতিমার শুধুমাত্র চক্ষুদান করা সম্ভব হয়েছে। সমগ্র পরিকল্পনাটি শিল্পী মানস দাঁ মহাশয়ের এবং মূর্তি তৈরি করেছেন সৈকত বসু।

হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে নলীন সরকার স্ট্রিটের পুজো এ বছর পরিচালিত হচ্ছে। স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রয়েছে। এ ছাড়া দর্শনার্থীদের মাস্কও দেওয়া হচ্ছে। এ বছর দশমীতে কোনো শোভাযাত্রার আয়োজন করা হচ্ছে না এবং সিঁদুরখেলাও হবে না।

নর্থ ত্রিধারা সর্বজনীন।

উত্তর কলকাতার আরও একটি জনপ্রিয় বারোয়ারি পুজো হল ‘নর্থ ত্রিধারা সর্বজনীন’। এ বছর তাঁদের ভাবনা ‘শ্রদ্ধার্ঘ্য’। অর্থাৎ কোভিড থেকে সুরক্ষার ব্যবস্থা যাঁরা করছেন তাঁদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছে নর্থ ত্রিধারা পুজো কমিটি। তার জন্য গোটা পুজোমণ্ডপে এক হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সমগ্র পরিকল্পনাটি শিল্পী সম্রাট ভট্টাচার্যের।

পুজো কমিটির সদস্য রহিত মণ্ডলের সঙ্গে কথা হচ্ছিল। তিনি জানালেন, মূল মণ্ডপে এ বছর প্রবেশ করতে পারবেন না দর্শনার্থীরা। তাঁদের দূর থেকেই দেবীকে দর্শন করতে হবে এবং অবশ্যই মাস্ক পরে। তা ছাড়া পুজো কমিটির উদ্যোগে স্যনিটাইজারের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। অর্থাৎ হাইকোর্টের নির্দেশ মেনেই তারা এ বছর নিষ্ঠার সঙ্গে পুজো করছেন।

সিকদারবাগান সর্বজনীন।

কলকাতার তৃতীয় প্রাচীনতম বারোয়ারি পুজো হল সিকদারবাগান সর্বজনীন। পুজো কমিটির পক্ষ থেকে জয়দীপ সেন, এ বছর তাঁদের থিম ‘উৎসব’। এ বার সকলের মধ্যে প্রশ্ন হতেই পারে যে করোনাভাইরাসে উৎসব কি ভাবে সম্ভব? তাঁদের বক্তব্য, পরিস্থিতি যা-ই হোক, মানুষের মধ্যে আত্মিক যোগাযোগই বড়ো কথা। এই আত্মিক যোগাযোগই তো ‘উৎসব’।

এ বছর তাঁরা মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশ মেনেই পুজো করছেন। করোনাভাইরাসে যাঁরা আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁদের সমস্ত রকম ভাবে সাহায্য করেছেন এবং যাঁরা করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরেছেন তাঁদের দিয়েছেন সম্মান। সাধারণ মানুষকে দূর থেকেই দেখতে হবে পুজো এবং এ বছর কোনো ভোগ বিতরণ হচ্ছে না সিকদার বাগান সর্বজনীনের পুজোমণ্ডপ থেকে।

কলকাতা

পাইপ ফেটে বিপত্তি, শনিবার সকাল থেকে রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ টালা থেকে জল সরবরাহ

পাইপ মেরামতের জন্য বন্ধ থাকবে পরিষেবা।

Published

on

টালা ট্যাঙ্ক। ফাইল ছবি

কলকাতা: শনিবার সকালের পর থেকে টালা ট্যাঙ্কের পাম্পিং স্টেশন থেকে জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকায়। ফেটে যাওয়া পাইপ মেরামতের জন্যই রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে জল সরবরাহ।

জানা গিয়েছে, শনিবার সকালে জল দেওয়ার পর পরিষেবা বন্ধ থাকবে। প্রায় ২৪ ঘণ্টা পরে রবিবার বিকেলে ফের পরিষেবা শুরু হবে।

পুরসভা সূত্রে খবর, উত্তর এবং মধ্য কলকাতায় টালা ট্যাঙ্কের উপর নির্ভরশীল অংশটি এই সময়ে জল পাবে না। তবে দক্ষিণ কলকাতায় আংশিক ভাবে এই পরিষেবা বন্ধ থাকবে।

Loading videos...

কয়েক দিন আগেই উত্তর কলকাতার নীলমণি মিত্র রো সংলগ্ন এলাকায় ভূগর্ভস্থ পানীয় জলের পাইপ ফেটে বিপত্তি ঘটে। এর আগেও পাইপ ফেটে বিপত্তি বাঁধে। ফলে এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানে মেরামতের কাজ করা হবে। যে কারণে ২৪ ঘণ্টার জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে। যদিও ঠিক কখন, ক’টা থেকে জল সরবরাহ বন্ধ থাকবে, সে বিষয়ে পুরসভার বিজ্ঞপ্তি এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।

তবে কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম জানান, স্থানীয় ভাবে বিষয়টির সমাধানের কারণে নির্দিষ্ট অঞ্চলে জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে। পাইপটিতে সিবিআর লিকেজ হয়েছে। এর জন্য শুধু উত্তর কলকাতাতেই সমস্যা হতে পারে।

আরও পড়তে পারেন: মালদহের গঙ্গাবক্ষে লরি: সাঁতার কেটে পাড়ে ১২ জন, এখনও নিখোঁজ ২

Continue Reading

কলকাতা

অতিমারির শিকল ভেঙে ঘরেই দক্ষ মৃৎশিল্পীর মতো জগদ্ধাত্রী প্রতিমা বানিয়ে ফেলল নবম শ্রেণির প্রীতাংশু

লকডাউন মিটলেও খোলেনি স্কুল। বন্ধ টিউশন, খেলাধুলো। সেভাবে যোগাযোগ নেই সহপাঠী ও বন্ধুদের সঙ্গে।

Published

on

জগদ্ধাত্রী প্রতিমা বানিয়ে ফেলল নবম শ্রেণির প্রীতাংশু

কলকাতা : লকডাউনে যখন বড়দের হাঁসফাঁস অবস্থা তখন ছোটদের অবস্থা তো  বলাই বাহুল্য। লকডাউন মিটলেও খোলেনি স্কুল। বন্ধ টিউশন, খেলাধুলো। সেভাবে যোগাযোগ নেই সহপাঠী ও বন্ধুদের সঙ্গে। এই পরিস্থিতিতে ঘরবন্দি শিশুমন যে খাঁচাবন্দি পাখির মতো ছটফট করবে সেটাই স্বাভাবিক।

এমনই একটা ‘অসহ্য’ পরিস্থিতিতে ঘরেই নিজেকে ব্যস্ত রাখতে বিকল্প ব্যবস্থা খুঁজে নিয়েছে বাগবাজারের বাসিন্দা নবম শ্রেণির ছাত্র প্রীতাংশ (১৪)। পড়াশুনার বাইরে অবসর সময়ে সৃজনশীলতা চর্চাকেই বেছে নিয়েছে সে।  

প্রীতাংশু
[প্রীতাংশুর তৈরি জগদ্ধাত্রী প্রতিমা]

ছোটবেলা থেকেই হস্তশিল্পে আগ্রহী প্রীতাংশ। অবসর সময় পেলেই তুলি-কাঁচি নিয়ে বসে যায় নানা রকম জিনিস বানাতে।অভিভাবকদের উৎসাহ রয়েছে সর্বদা।

Loading videos...

তাই করোনা আবহে সেই হস্তশিল্পকে হাতিয়ার করে নিজেকে ব্যস্ত রাখার রাস্তা খুঁজে পেয়েছে সে। জগদ্ধাত্রী পুজোর আগেই সে মাটি দিয়ে বানিয়ে ফেলেছে জগদ্ধাত্রীর প্রতিমা। তার কাজে রয়েছে দক্ষ মৃৎশিল্পীর ছোঁয়া।    

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন : পারদের রেকর্ড পতন কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে, পানাগড়ে তাপমাত্রা দশের নীচে  

Continue Reading

কলকাতা

৭২ ঘণ্টার মধ্যেই একবালপুরে তরুণী খুনের কিনারা, গ্রেফতার দম্পতি

ফোন থেকেই মিলল সূত্র, ‘পরকীয়া’র জেরেই কি খুন?

Published

on

কলকাতা: বুধবার রাতে একবালপুর থানার এমএম আলি রোডে বস্তাবন্দি অবস্থায় ২২ বছরের যুবতী সাবা খাতুনের দেহ উদ্ধার হয়েছিল। সেই ঘটনায় এক দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, ধৃতদের নাম অভিযুক্ত শেখ সাজিদ এবং তার স্ত্রী অঞ্জুমা বেগম। সাজিদ নিজেই ফোন করে পুলিশকে ডাকে। সাজিদই বস্তা খুলতে সাহায্য করে পুলিশকে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শেখ সাজিদের বাড়িতে যাতায়াত ছিল তরুণীর। ত্রিকোণ প্রেমের জেরে খুন কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Loading videos...

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে সাজিদকে সন্দেহ করা হয়নি। কিন্তু পরবর্তীতে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ-সহ একাধিক বিষয় খতিয়ে দেখে পুলিশের সন্দেহের তালিকায় উঠে আসে সাজিদ। এর পর তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর ভোরের দিকে স্বামী-স্ত্রী অপরাধের কথা কবুল করে নিলে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আজ তাদের আলিপুর আদালতে তোলা হবে।

পুলিস সূত্রে আরও জানা যায়, নিহত সাবা খাতুনের ফোন ঘেঁটে শেখ সাজিদের নাম পাওয়া যায়। সেই সূত্র ধরেই তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে শেখ সাজিদের সঙ্গে বন্ধুত্ব ছিল সাবার। ধীরে ধীরে সেই বন্ধুত্ব সম্পর্কের দিকে গড়ায়। সাবার সঙ্গে স্বামীর ‘পরকীয়া’র কথা জেনে ফেলেছিলেন শেখ সাজিদের স্ত্রী অঞ্জুম বেগম। এরপরই সাবাকে খুনের ছক কষে স্বামী-স্ত্রী। এর পরই খুনের ঘটনায় সরাসরি যোগ থাকার অভিযোগে দম্পতিকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, সাবা ওয়াটগঞ্জে দিদার কাছে থাকতেন। তবে গত দু’মাস ধরে ওয়ারিশ লেনে রেশমা নামে এক বন্ধুর বাড়িতে পেইং গেস্ট হিসেবে থাকছিলেন তিনি। একটি সূত্রের দাবি, রেশমা মাদকাসক্ত। বহু মানুষের আনাগোনা ছিল ওই বাড়িতে।

আরও পড়তে পারেন: কে বা কারা একবালপুরের তরুণীকে খুন করে বস্তায় ভরে রাস্তায় ফেলে গেল

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
রাজ্য2 hours ago

রাজ্যে আরও কমল নতুন সংক্রমণ, কমল তার হারও, তবে কলকাতা-উত্তর ২৪ পরগণায় সংক্রমণ কমল না

শিল্প-বাণিজ্য2 hours ago

স্থায়ী ভাবে বাড়ি থেকে কাজের সুবিধার বিনিময়ে আপনি কি বেতন ছাঁটাইয়েও রাজি? সমীক্ষায় উঠে এল চমকপ্রদ তথ্য

প্রবন্ধ3 hours ago

মারাদোনা – গোল করা আর ভুল করা যাঁর কাছে দু’টোই সমান!

দঃ ২৪ পরগনা3 hours ago

দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ এলাকায় কার্যত বন্‌ধের আকার নিল সাধারণ ধর্মঘট

bank strike
শিল্প-বাণিজ্য4 hours ago

ডিসেম্বর মাসে কোন কোন দিন ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে, এখানে দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা

ক্রিকেট5 hours ago

ক্রিকেট ও ফুটবলে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের লড়াই, বাঙালি ক্রীড়াপ্রেমীদের ব্লকবাস্টার শুক্রবার

ক্রিকেট6 hours ago

অধিনায়ক হিসেবে দুর্দান্ত এই রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে বিরাট কোহলি

দেশ6 hours ago

ধর্মঘট সফল, দাবি বামফ্রন্টের, নীতিগত ভাবে সমর্থন মমতার

দেশ14 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৪৪৪৮৯, সুস্থ ৩৬৩৬৭

দেশ6 hours ago

ধর্মঘট সফল, দাবি বামফ্রন্টের, নীতিগত ভাবে সমর্থন মমতার

শিক্ষা ও কেরিয়ার2 days ago

টেট-২০১৪ পাশ যোগ্য প্রার্থীদের শিক্ষকপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি

দেশ1 day ago

সংক্রমণে লাগাম টানতে ১ ডিসেম্বর থেকে নতুন বিধিনিষেধ, নির্দেশিকা জারি কেন্দ্রের

ফুটবল2 days ago

পিকে-চুণী স্মরণে ডার্বি শুরুর আগে নীরবতা পালন হোক, আইএসএল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাল ইস্টবেঙ্গল

ফুটবল3 days ago

পেনাল্টি কাজে লাগিয়ে প্রথম ম্যাচে ৩ পয়েন্ট ঘরে তুলল হায়দরাবাদ

শরীরস্বাস্থ্য1 day ago

২৪ ঘণ্টা ব্রা পরার ফল মারাত্মক হতে পারে

শরীরস্বাস্থ্য1 day ago

কেন খাবেন মৌরি? জেনে নিন ১ ডজন উপকারিতা

কেনাকাটা

কেনাকাটা13 hours ago

শীতের নতুন কিছু আইটেম, দাম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: শীত এসে গিয়েছে। সোয়েটার জ্যাকেট কেনার দরকার। কিন্তু বাইরে বেরিয়ে কিনতে যাওয়া মানেই বাড়ি এসে এই ঠান্ডায়...

কেনাকাটা2 days ago

ঘর সাজানোর জন্য সস্তার নজরকাড়া আইটেম

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরকে একঘেয়ে দেখতে অনেকেরই ভালো লাগে না। তাই আসবারপত্র ঘুরিয়ে ফিরে রেখে ঘরের ভোলবদলের চেষ্টা অনেকেই করেন।...

কেনাকাটা5 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা1 week ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

নজরে