Connect with us

কলকাতা

বন্দুকওয়ালা দাঁ বাড়িতে সন্ধিপূজার সময় পুরুষ সদস্যরা নৈবেদ্য সাজান

এই পরিবারের ব্যবসা ছিল বন্দুকের, তাই উত্তর কলকাতার এই ঐতিহ্যমণ্ডিত বনেদিবাড়িকে অনেকেই ‘বন্দুকওয়ালা বাড়ি’ বলেই চেনেন।

Published

on

মায়ের মুখ। বন্দুকওয়ালা দাঁ বাড়িতে।

শুভদীপ রায় চৌধুরী

শুরু হয়ে গিয়েছে বাঙালির প্রাণের উৎসব শারদীয়া, যার জন্য সারা বছর অপেক্ষা করে বসে থাকা। এ বছর করোনা মহামারির ভয়ংকর পরিস্থিততে মানুষ কিছুটা ভীত হলেও পুজোর সবটুকু আনন্দ উপভোগ করতে তারা তৈরি। মণ্ডপে মণ্ডপে উমা আসতে শুরু করেছেন।

ও দিকে বনেদিবাড়ির ঠাকুরদালান সাজানোর কাজও একেবারে শেষের দিকে। সে সব বাড়ির পরম্পরাগত রীতিপালন শুরু হয়ে গিয়েছে, যা বঙ্গের সংস্কৃতিকে আরও গৌরবান্বিত করে। তেমনই এক পরিচিত বনেদিবাড়ি রয়েছে কলকাতায়, যেখানে লোকশ্রুতি বলে স্বয়ং উমা গহনা পরতে আসেন। জোড়াসাঁকোর দাঁ বাড়ির ঐতিহ্য এবং বনেদিয়ানা আজও পুরো মাত্রায় পাওয়া যায় ঠাকুরদালানে দাঁড়ালে।

Loading videos...
বন্দুকওয়ালা দাঁ বাড়ির দুর্গাপ্রতিমা।

এই পরিবারের ব্যবসা ছিল বন্দুকের, তাই উত্তর কলকাতার এই ঐতিহ্যমণ্ডিত বনেদিবাড়িকে অনেকেই ‘বন্দুকওয়ালা বাড়ি’ বলেই চেনেন। আনুমানিক অষ্টাদশ শতকে এই অঞ্চলে বসবাস শুরু করেন ঠাকুর, মল্লিক এবং দাঁ পরিবার। গণেশ টকিজ মোড় থেকে কিছুটা দূরে গেলেই আপনি দেখতে পাবেন সেই ঐতিহ্যপূর্ণ বাড়িটি, যার স্থাপত্য সকলের নজর কাড়ে।

বাঁকুড়ার কোতলপুর থেকে এসেছিলেন দাঁ বাড়ির পূর্বপুরুষ। দাঁ পরিবারের সুসন্তান নরসিংহ দাঁ ১৮৩৫ সাল নাগাদ বন্দুকের ব্যাবসা শুরু করেছিলেন। এই বন্দুকের ব্যাবসায় তিনি প্রভূত সম্পত্তির মালিক হয়ে ওঠেন এবং ১৮৫৯ সালে শুরু করেন দুর্গোৎসব। এই বাড়ির প্রতিমা একচালার ডাকের সাজের এবং সঙ্গে থাকে বিভিন্ন রকমের প্রাচীন গহনা। দাঁ বাড়ির দুর্গাপুজো শুরু হয় রাসযাত্রার দিন কাঠামোপুজোর মাধ্যমে। তার পর মৃন্ময়ী প্রতিমার নির্মাণ শুরু হয় ঠাকুরদালানেই।

এই বাড়িতে সম্পূর্ণ বৈষ্ণবমতে পুজো হয়, তাই বলিদানের প্রথা নেই। দাঁ বাড়ির পুজোর বোধন হয় ষষ্ঠীর দিন এবং এই বাড়িতে অন্নভোগের প্রচলন নেই। এখানে দেবীকে নানান রকমের মিষ্টান্ন (গজা, পানতুয়া, মিহিদানা ইত্যাদি) ও লুচিভোগ নিবেদন করা হয়। দুর্গাপুজোয় সন্ধিপুজোর সময় দেবীকে নিবেদন করা হয় এক মণ চালের নৈবেদ্য, যা বাড়ির পুরুষ সদস্যরা সাজান এবং সন্ধিপূজা শুরুর আগে গোটা বাড়ি পরিষ্কার করেন পরিবারের সদস্যরা।

সন্ধিপুজোয় নৈবেদ্য।

সপ্তমীর দিন রুপোর ছাতা মাথায় দিয়ে নবপত্রিকা গঙ্গাস্নানে যায় এবং মহানবমীর দিন হয় কুমারীপুজো। অতীতে এই বাড়িতে পুজোর সময় নরনারায়ণ সেবার আয়োজন করা হত। এখন তা আর হয় না। দাঁ পরিবারের পুজোর আরও একটি  বৈশিষ্ট্য হল, সন্ধিপূজার সময় গর্জে ওঠে কামান। প্রায় ১৭ ইঞ্চি লম্বা কামানটি তৈরি করেছিল ‘উইনচেস্টার রিপিটিং আর্মস কোম্পানি’।

শুধু সন্ধিপুজোতেই নয়, দশমীর দিন বাড়ি থেকে যখন প্রতিমা বের হয় তখনও বন্দুক দাগা হয়। দশমীর দিন কনকাঞ্জলিপ্রথা রয়েছে পরিবারে, উমা শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছেন তাই দাঁ বাড়ির সদস্যরা অশ্রুজলে বাড়ির মেয়েকে বিদায় জানান। দশমীর দিন অতীতে নীলকণ্ঠ পাখি ওড়ানো হলেও বর্তমানে তা হয় না।

দাঁ পরিবারের মহিলা সদস্যরা।

তবে পরিবার সূত্রে জানা গেল যে, এই বছর করোনা ভাইরাসের কারণে পুজোটি কেবলমাত্র পরিবারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে। প্রতিমার উচ্চতাও কমানো হয়েছে এ বার। এই ভাবে ঐতিহ্যের সঙ্গে আজও পুজো করে আসছেন বন্দুকওয়ালা দাঁ বাড়ির সদস্যরা।

খবর অনলাইনে আরও পড়ুন

দর্জিপাড়া দাঁ বাড়িতে দশমীতে দেবীকে বরণ করেন পুরোহিতমশাই

কলকাতা

পাইপ ফেটে বিপত্তি, শনিবার সকাল থেকে রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ টালা থেকে জল সরবরাহ

পাইপ মেরামতের জন্য বন্ধ থাকবে পরিষেবা।

Published

on

টালা ট্যাঙ্ক। ফাইল ছবি

কলকাতা: শনিবার সকালের পর থেকে টালা ট্যাঙ্কের পাম্পিং স্টেশন থেকে জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকায়। ফেটে যাওয়া পাইপ মেরামতের জন্যই রবিবার বিকেল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে জল সরবরাহ।

জানা গিয়েছে, শনিবার সকালে জল দেওয়ার পর পরিষেবা বন্ধ থাকবে। প্রায় ২৪ ঘণ্টা পরে রবিবার বিকেলে ফের পরিষেবা শুরু হবে।

পুরসভা সূত্রে খবর, উত্তর এবং মধ্য কলকাতায় টালা ট্যাঙ্কের উপর নির্ভরশীল অংশটি এই সময়ে জল পাবে না। তবে দক্ষিণ কলকাতায় আংশিক ভাবে এই পরিষেবা বন্ধ থাকবে।

Loading videos...

কয়েক দিন আগেই উত্তর কলকাতার নীলমণি মিত্র রো সংলগ্ন এলাকায় ভূগর্ভস্থ পানীয় জলের পাইপ ফেটে বিপত্তি ঘটে। এর আগেও পাইপ ফেটে বিপত্তি বাঁধে। ফলে এই সমস্যার স্থায়ী সমাধানে মেরামতের কাজ করা হবে। যে কারণে ২৪ ঘণ্টার জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে। যদিও ঠিক কখন, ক’টা থেকে জল সরবরাহ বন্ধ থাকবে, সে বিষয়ে পুরসভার বিজ্ঞপ্তি এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।

তবে কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম জানান, স্থানীয় ভাবে বিষয়টির সমাধানের কারণে নির্দিষ্ট অঞ্চলে জল পরিষেবা বন্ধ থাকবে। পাইপটিতে সিবিআর লিকেজ হয়েছে। এর জন্য শুধু উত্তর কলকাতাতেই সমস্যা হতে পারে।

আরও পড়তে পারেন: মালদহের গঙ্গাবক্ষে লরি: সাঁতার কেটে পাড়ে ১২ জন, এখনও নিখোঁজ ২

Continue Reading

কলকাতা

অতিমারির শিকল ভেঙে ঘরেই দক্ষ মৃৎশিল্পীর মতো জগদ্ধাত্রী প্রতিমা বানিয়ে ফেলল নবম শ্রেণির প্রীতাংশু

লকডাউন মিটলেও খোলেনি স্কুল। বন্ধ টিউশন, খেলাধুলো। সেভাবে যোগাযোগ নেই সহপাঠী ও বন্ধুদের সঙ্গে।

Published

on

জগদ্ধাত্রী প্রতিমা বানিয়ে ফেলল নবম শ্রেণির প্রীতাংশু

কলকাতা : লকডাউনে যখন বড়দের হাঁসফাঁস অবস্থা তখন ছোটদের অবস্থা তো  বলাই বাহুল্য। লকডাউন মিটলেও খোলেনি স্কুল। বন্ধ টিউশন, খেলাধুলো। সেভাবে যোগাযোগ নেই সহপাঠী ও বন্ধুদের সঙ্গে। এই পরিস্থিতিতে ঘরবন্দি শিশুমন যে খাঁচাবন্দি পাখির মতো ছটফট করবে সেটাই স্বাভাবিক।

এমনই একটা ‘অসহ্য’ পরিস্থিতিতে ঘরেই নিজেকে ব্যস্ত রাখতে বিকল্প ব্যবস্থা খুঁজে নিয়েছে বাগবাজারের বাসিন্দা নবম শ্রেণির ছাত্র প্রীতাংশ (১৪)। পড়াশুনার বাইরে অবসর সময়ে সৃজনশীলতা চর্চাকেই বেছে নিয়েছে সে।  

প্রীতাংশু
[প্রীতাংশুর তৈরি জগদ্ধাত্রী প্রতিমা]

ছোটবেলা থেকেই হস্তশিল্পে আগ্রহী প্রীতাংশ। অবসর সময় পেলেই তুলি-কাঁচি নিয়ে বসে যায় নানা রকম জিনিস বানাতে।অভিভাবকদের উৎসাহ রয়েছে সর্বদা।

Loading videos...

তাই করোনা আবহে সেই হস্তশিল্পকে হাতিয়ার করে নিজেকে ব্যস্ত রাখার রাস্তা খুঁজে পেয়েছে সে। জগদ্ধাত্রী পুজোর আগেই সে মাটি দিয়ে বানিয়ে ফেলেছে জগদ্ধাত্রীর প্রতিমা। তার কাজে রয়েছে দক্ষ মৃৎশিল্পীর ছোঁয়া।    

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন : পারদের রেকর্ড পতন কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে, পানাগড়ে তাপমাত্রা দশের নীচে  

Continue Reading

কলকাতা

৭২ ঘণ্টার মধ্যেই একবালপুরে তরুণী খুনের কিনারা, গ্রেফতার দম্পতি

ফোন থেকেই মিলল সূত্র, ‘পরকীয়া’র জেরেই কি খুন?

Published

on

কলকাতা: বুধবার রাতে একবালপুর থানার এমএম আলি রোডে বস্তাবন্দি অবস্থায় ২২ বছরের যুবতী সাবা খাতুনের দেহ উদ্ধার হয়েছিল। সেই ঘটনায় এক দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, ধৃতদের নাম অভিযুক্ত শেখ সাজিদ এবং তার স্ত্রী অঞ্জুমা বেগম। সাজিদ নিজেই ফোন করে পুলিশকে ডাকে। সাজিদই বস্তা খুলতে সাহায্য করে পুলিশকে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শেখ সাজিদের বাড়িতে যাতায়াত ছিল তরুণীর। ত্রিকোণ প্রেমের জেরে খুন কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Loading videos...

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে সাজিদকে সন্দেহ করা হয়নি। কিন্তু পরবর্তীতে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ-সহ একাধিক বিষয় খতিয়ে দেখে পুলিশের সন্দেহের তালিকায় উঠে আসে সাজিদ। এর পর তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পর ভোরের দিকে স্বামী-স্ত্রী অপরাধের কথা কবুল করে নিলে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আজ তাদের আলিপুর আদালতে তোলা হবে।

পুলিস সূত্রে আরও জানা যায়, নিহত সাবা খাতুনের ফোন ঘেঁটে শেখ সাজিদের নাম পাওয়া যায়। সেই সূত্র ধরেই তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে শেখ সাজিদের সঙ্গে বন্ধুত্ব ছিল সাবার। ধীরে ধীরে সেই বন্ধুত্ব সম্পর্কের দিকে গড়ায়। সাবার সঙ্গে স্বামীর ‘পরকীয়া’র কথা জেনে ফেলেছিলেন শেখ সাজিদের স্ত্রী অঞ্জুম বেগম। এরপরই সাবাকে খুনের ছক কষে স্বামী-স্ত্রী। এর পরই খুনের ঘটনায় সরাসরি যোগ থাকার অভিযোগে দম্পতিকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, সাবা ওয়াটগঞ্জে দিদার কাছে থাকতেন। তবে গত দু’মাস ধরে ওয়ারিশ লেনে রেশমা নামে এক বন্ধুর বাড়িতে পেইং গেস্ট হিসেবে থাকছিলেন তিনি। একটি সূত্রের দাবি, রেশমা মাদকাসক্ত। বহু মানুষের আনাগোনা ছিল ওই বাড়িতে।

আরও পড়তে পারেন: কে বা কারা একবালপুরের তরুণীকে খুন করে বস্তায় ভরে রাস্তায় ফেলে গেল

Continue Reading
Advertisement
শিল্প-বাণিজ্য15 mins ago

৫০০তম ‘ওয়ার্ল্ড অব টাইটান’ স্টোর খুলল কলকাতায়

ফুটবল26 mins ago

জীবনের প্রথম ডার্বিতে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন সন্দেশ জিঙ্ঘান

ক্রিকেট48 mins ago

প্রথম দুটি টেস্ট থেকে বাদ রোহিত-ইশান্ত, সংশয়ে শেষ দুটি টেস্টে উপস্থিতি নিয়েও

শিক্ষা ও কেরিয়ার1 hour ago

টেট-২০১৪ পাশ যোগ্য প্রার্থীদের শিক্ষকপদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি

রাজ্য2 hours ago

“এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

Feni Railway Station
দেশ2 hours ago

ফেনী-বিলোনিয়া রেলপথের কাজ শুরু হচ্ছে শিগগিরই, দাউদকান্দি-সোনামুড়া জলপথ খননে হাত লাগাবে বাংলাদেশ

দেশ2 hours ago

দুর্ভাগ্য! ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য3 hours ago

টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে