smita das
স্মিতা দাস

যুগ যুগ থেকে মানুষকে মনে রাখার পথ একটাই। মানুষের কর্মই মানুষকে অন্ধকার থেকে বের করে আনে, আবার খ্যাতির শিখরেও পৌঁছে দেয়। কর্মহীন জন্ম তাই বৃথা। তা কল্পনাতীতও বটে। সেই কথাই মণ্ডপের আনাচেকানাচে সাজিয়ে তুলছে নলিন সরকার স্ট্রিট সর্বজনীন।

৮৭তম বর্ষে নলিন সরকার স্ট্রিট। এই বছরের থিম ‘কর্মই ধর্ম’। ভাবনা ও সৃজনে মানস দাস। প্রতিমা গড়ার দায়িত্বে রয়েছেন সৈকত বোস। আলোকসজ্জায় মা মনসা ইলেকট্রিক। এই বছরের থিমের সঙ্গে মিলিয়ে আবহ তৈরি করছেন শিল্পী মানস দাস নিজেই।

পুজো কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গোটা মণ্ডপে ব্যবহার করা হবে প্রাচীন থেকে বর্তমান যুগ পর্যন্ত চলে আসা চিরাচরিত নানান যন্ত্রপাতি। তার মধ্যে থাকবে পেরেক, কুড়ুল, কোদাল, গাঁইতি, হাতুড়ি থেকে শুরু করে নানা যন্ত্রপাতি। থাকতে পারে খাতাকলমের ব্যবহারও। থিমটি ফুটিয়ে তুলতে ব্যবহার করা হবে বিভিন্ন মডেল। কর্মের জন্য ব্যবহৃত চিরাচরিত এই সব যন্ত্রপাতি এখানে ব্যবহার করা হয়েছে কর্মের প্রতীক হিসাবে।

এই বছরের মণ্ডপ তৈরির কাজ চলছে

গত বছরের থিম ছিল ‘মগ্ন চৈতন্য’। বিষয়বস্তু ছিল মোবাইল কেন্দ্রিক আত্মকেন্দ্রিক জীবন। পাঁচ জনে এক সঙ্গে থাকলেও তার মধ্যে কেউ না কেউ মোবাইলে নিজেকে আবদ্ধ করে রাখে বাইরের সঙ্গে যোগাযোগ তার কম থাকে, এমন একটি বর্তমান সামাজিক ও মানসিক ব্যধিকে তুলে ধরা হয়েছিল।

পুজোর আরও খবর পড়তে ক্লিক করুন

শ্যামবাজারের দিকে যেতে খান্না সিনেমা বাসস্টপে নেমেই পেন্টালুনসের উলটো দিকের গলির ভেতরে মণ্ডপ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.