bengaluru durga puja

বেঙ্গালুরু: শহরের নামের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে ‘বেঙ্গল’। এই বেঙ্গালুরু এখন বাংলার বাইরে বাঙালিদের সব থেকে বড়ো ডেরা। দিল্লি, মুম্বই, পুণে, হায়দরাবাদ ছাড়িয়ে, নিঃসন্দেহে এখন সব থেকে বেশি প্রবাসী বাঙালির বসবাস এই শহরে।

যেখানেই বাঙালি, সেখানেই দুর্গাপুজো। পিছিয়ে নেই বেঙ্গালুরুও। অসংখ্য পুজোর আয়োজন করেছে শহরের বিভিন্ন বাঙালি সংগঠন। শুধু কী পুজো!,থাকছে পেটপুজোর ব্যবস্থা এবং সেই সঙ্গে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। লোকসংগীত, রবীন্দ্রসংগীত, রবীন্দ্রনৃত্যের মাধ্যমে আগামী পাঁচ দিন শহর হয়ে উঠবে বাঙালিময়। বাঙালিদের সঙ্গে এই পুজোর স্বাদ নেবেন স্থানীয় মানুষজনও।

একবার দেখে নিই বেঙ্গালুরু সেরা সাতটা দুর্গাপুজো।

১) শ্রীশ্রী দুর্গাপুজো, উলসুর

বেঙ্গালুরুর সব থেকে পুরোনো দুর্গাপুজো, এ বার ৬৮তম বর্ষে পদার্পণ করল। শহরের সব থেকে বৃহত্তম মণ্ডপও এখানেই তৈরি হয়। এই পুজো আয়োজন করে ‘উলসুর বেঙ্গলি াএ্যাসোসিয়েশন’। উদ্যোগতাদের মতে প্রতি বছর অন্তত কুড়ি হাজার মানুষ এই পুজো দর্শন করেন।

নাগওয়ারা রিং রোডে মান্যতা টেক পার্কের কাছে এই পুজো আয়োজন করা হয়।

২) জয়মহল দুর্গোৎসব

বেঙ্গালুরু শহরের অন্যতম প্রাচীন এই দুর্গাপুজো এ বার ৬৩তম বর্ষে পদার্পণ করল। এই পুজো আয়োজন করে জয়মহল সর্বজনীন দুর্গা চ্যারিটেবল সমিতি। শহরের একমাত্র থিম পুজো এটি। এ বার দক্ষিণেশ্বরের ভবতারিণী মন্দিরের রূপ পেয়েছে মণ্ডপ।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি থাকছে বাড়ির তৈরি খাবারের সম্ভারও। জয়মহল পার্ক গ্রাউন্ডে এই পুজো আয়োজিত হয়।

৩) সোশিওকালচারাল অ্যাসোসিয়েশন দুর্গাপুজো

৪৯তম বর্ষে পদার্পণ করল এই দুর্গাপুজো। মাতৃবন্দনার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও মেতে উঠবে এই পুজো। এখানে নৃত্য পরিবেশন করবেন নৃত্যশিল্পী সাথী চক্রবর্তী এবং তাঁর দলবল। রবীন্দ্রসঙ্গীত পরিবেশন করবেন শিল্পী শৌনক চক্রবর্তী। লোকসংগীতে মঞ্চ মাতাবেন রিনা দাস এবং দিবাকর দাস বাউল।

৪) সোর্বা দুর্গোৎসব, সর্জাপুর

২০০৮ থেকে এই পুজো আয়োজন করছে সর্জাপুর আউটার রিং রোড বেঙ্গলি অ্যাসোসিয়েশন ওরফে সোর্বা। গত বছর এই পুজোয় মঞ্চ মাতিয়েছে ক্রসউইন্ডজ ব্যান্ড। এ বারও চার দিন ধরেই নাচ-গান-নাটকে মেতে থাকবে এই অঞ্চলের বাঙালিরা। মঞ্চ মাতাবে কলকাতার ফোক ফাউন্ডেশনও।

৫) উৎসব ব্যাঙ্গালোর, জেপি নগর

ছ’বছর ধরে পুজো আয়োজন করছে উৎসব ব্যাঙ্গালোর। শহরের দুঃস্থ শিশুরা যাতে এই পুজোয় মেতে উঠতে পারে সে জন্য বিভিন্ন এনজিও-এর সঙ্গে কথাবার্তা বলেছেন উদ্যোক্তারা। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও হবে এই পুজোয়। সংগীতশিল্পী শমীক পালের এই পুজোয় পারফর্ম করার কথা রয়েছে।

জেপি নগরের শ্রীকলা মন্টপে এই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে।

৬) শ্রীশ্রী দুর্গাপুজো, কোরামঙ্গলা

লোকসংগীতের পাশাপাশি রেট্রো এবং আধুনিক বাংলা গানের সম্ভার থাকছে এই পুজোয়। এই পুজোর এ বারের বিশেষ আকর্ষণ লোকসংগীত শিল্পী তীর্থ ভট্টাচার্য। তীর্থর সঙ্গে মঞ্চ মাতানোর কথা অন্বেশা দত্তেরও।

কোরামঙ্গলার গণপতি টেম্পল রোডে এই পুজো আয়োজন করা হচ্ছে।

৭) আমাদের পুজো, কনকপুরা

দক্ষিণ বেঙ্গালুরুর সব থেকে জনপ্রিয় ‘আমাদের পুজো’। এখানকার বিশেষ আকর্ষণ ঢাকিয়া। বাংলার ঢাকের তালে গুজরাতি ডান্ডিয়ায় কোমর দোলে এখানকার বাঙালিদের। জেপি নগরের এলান কনভেনশন রোডে এই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here