hyderabad puja

হায়দরাবাদ: যেখানে বাঙালি, সেখানেই দুর্গাপুজো। বেঙ্গালুরুর মতো বিপুল সংখ্যক না হলেও, বাঙালির দুর্গাপুজোয় পিছিয়ে নেই হায়দরাবাদও। সারা দিন হইহুল্লোড়, খাওয়াদাওয়ার পর সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এই ক’দিন মেতে থাকবে তেলেঙ্গনার রাজধানীর বঙ্গব্রিগেড।

শহরে বিভিন্ন প্রান্তে অনেক পুজো হয়। তার মধ্যে সেরা পাঁচটি তুলে ধরা হল। এই পুজোয় যদি হায়দরাবাদ ভ্রমণের পরিকল্পনা থাকে, তা হলে এই মণ্ডপে ঢুঁ মারতে ভুলবেন না কিন্তু।

১) হায়দরাবাদ বাঙালি সমিতি

হায়দরাবাদের সব থেকে প্রাচীন দুর্গাপুজো। ১৯৪২-এ অর্থাৎ স্বাধীনতার পাঁচ বছর আগে এই পুজো যাত্রা শুরু করেছিল। হায়দরাবাদের ওয়াইএমসিএতে একটি বৈঠকের মাধ্যমে এই পুজোর যাত্রা শুরু। মণ্ডপের সাজসজ্জায় বিশেষ কোনো জাঁকজমক থাকে না এখানে।

রামকৃষ্ণ মঠ মার্গের পিভিআর কনভেনশন সেন্টরে এই পুজো আয়োজিত হচ্ছে।

২) কালীবাড়ি

শিমলা হোক, কি দিল্লি! যেখানেই বাঙালি, সেখানেই কালীবাড়ি। হায়দরাবাদও ব্যতিক্রম নয়। বিবেকানন্দপুরী অঞ্চলে এই মন্দির যেন এক টুকরো বাংলা। বাঙালিদের সব পুজোর মতোই দুর্গাপুজোও ধুমধাম করে পালন করা হয় এই মন্দিরে।

৩) বঙ্গীয় সাংস্কৃতিক সংঘ

হায়দরাবাদের অন্যতম প্রাচীন এই পুজো এ বার ৫২ বছরে পা রাখল। সেকেন্দরাবাদের কায়েস গার্লস হাইস্কুলের মাঠে এই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে।

৪) সাইবারাবাদ বাঙালি অ্যাসোসিয়েশন

২০০৭-এ এই পুজোর সূচনা করেন হায়দরাবাদে কাজ করতে আসা তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী এবং তাঁদের পরিবাররা। উদ্যোক্তাদের মূল উদ্দেশ্য, পুজোর পাঁচ দিন এক টুকরো বাংলাকে নিয়ে আসা। পুজার্চনার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও মেতে থাকবে মানুষজন। মিয়াপুরের নরেন গার্ডেন্সে এই পুজোর আসর বসেছে।

৫) উৎসব কালচারাল এ্যাসোসিয়েশন

হায়দরাবাদের সব থেকে কনিষ্ঠ দুর্গাপুজো। এ বছর তারা পঞ্চম বর্ষে পদার্পণ করল। মাধপুরের মেরিডিয়ান স্কুলের মাঠে এই পুজোর আয়োজন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here