দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে পশ্চিমবঙ্গ পর্যটনের আরও কয়েকটি প্যাকেজ

0
808

কলকাতা দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে পশ্চিমবঙ্গ পর্যটনের বিভিন্ন প্যাকেজের খবর গত সপ্তাহেই আমরা আপনাদের জানিয়েছিলাম। ওই প্যাকেজগুলির পাশাপাশি আরও কয়েকটি প্যাকেজ ঘোষণা করেছে রাজ্য পর্যটন উন্নয়ন নিগম। সেই সঙ্গে অন্য আরও কয়েকটি প্যাকেজও রয়েছে। একবার দেখে নিই সেই সব প্যাকেজগুলি।

১) মহালয়া প্যাকেজ- গঙ্গাবক্ষে ভেসেলে ভ্রমণ

মহালয়ার দিন অর্থাৎ ১৯ সেপ্টেম্বর এই গঙ্গাবক্ষে তর্পণ দেখার সুযোগ করেছে রাজ্য পর্যটন। ওই দিন সকাল ৯টায় বাবুঘাট থেকে ভেসেল ছাড়বে। গঙ্গায় তর্পণ দর্শন করিয়ে তারপর দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের পাশ দিয়ে যাওয়া হবে বেলুর মঠ। মঠ দর্শন করে ফেরার সময়, প্রতিমা গড়া দেখার জন্য নিয়ে যাওয়া হবে কুমোরটুলি। প্রাতঃরাশ, মধ্যাহ্নভোজন নিয়ে মোট খরচ জনপ্রতি ১৬০০ টাকা।

২) গঙ্গাবক্ষে দুর্গোৎসব উদযাপন

সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী এবং দশমীর দিন সকাল এবং বিকেলে তিন ঘণ্টা করে গঙ্গাবক্ষে ভেসেলে ভ্রমণ। সকালের প্যাকেজটি শুরু হবে সকাল দশটায় এবং বিকেলেরটি সন্ধ্যা ছ’টায়। বিনোদনমূলক ব্যবস্থাও থাকবে ভেসেলে। মধ্যাহ্নভোজন-সহ সকালের প্যাকেজ জনপ্রতি ১৫০০ টাকা এবং নৈশভোজ-সহ রাতের প্যাকেজ জনপ্রতি ১৭০০টাকা।

৩) রাঢ়বঙ্গের পুজো ২

২৭ এবং ২৯ সেপ্টেম্বর সকাল ৭টায় বিবিডি বাগে নিগমের অফিস থেকে যাত্রা শুরু। যাওয়া হবে গুসকরা। দেখানো হবে সেখানকার কয়েকটি বনেদি বাড়ির পুজো। ফেরার পথে দেখানো হবে কয়রা দেবীতলার ত্রৈলোক্য তারিণী মন্দির এবং বর্ধমানের ১০৮ শিব মন্দির। জনপ্রতি খরচ ২৪০০ টাকা। দেওয়া হবে প্রাত‌ঃরাশ এবং মধ্যাহ্নভোজন।

৪) সুরুল রাজবাড়ির পুজো

২৮ এবং ২৯ সেপ্টেম্বর। সকাল ৭টায় বিবিডি বাগে নিগমের অফিস থেকে যাত্রা শুরু। যাওয়া হবে শান্তিনিকতনের কাছে সুরুলের সরকার বাড়ির পুজোতে। সেই সঙ্গে দেখানো হবে শান্তিনিকতনের সোনাঝুরির পুজো। জনপ্রতি খরচ ২৫০০ টাকা। দেওয়া হবে প্রাত‌ঃরাশ এবং মধ্যাহ্নভোজন।

৫) কাশিমবাজার ভ্রমণ

মুর্শিদাবাদ সফর। ২৮ সেপ্টেম্বর সকাল ৭টায় বিবিডি বাগে নিগমের অফিস থেকে যাত্রা শুরু। কাশিমবাজার রাজবাড়ির পুজো এবং মুর্শিদাবাদের কিছু দ্রষ্টব্য স্থান দেখানো হবে। রাত্রিবাস বহরমপুর টুরিস্ট লজে। পরের দিন অর্থাৎ ২৯ সেপ্টেম্বর ফেরা। এসি ঘরের জন্য জনপ্রতি ৪০০০ টাকা, নন-এসি ঘরের জন্য জনপ্রতি ৩৮০০ টাকা। দেওয়া হবে প্রাতঃরাশ এবং মধ্যাহ্নভোজন।

৬) সনাতনী

দুটো প্যাকেজ রয়েছে। একটি হবে সপ্তমী, অষ্টমী এবং নবমীর দিন সকাল সাড়ে আটটা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত। অন্যটি হবে দুপুর আড়াইটে থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টা পর্যন্ত। কলকাতার বেশ কয়েকটি বনেদি বাড়ির পুজো দেখানো হবে এই প্যাকেজে। সকালের প্যাকেজে দেওয়া হবে প্রাতঃরাশ এবং শোভাবাজার রাজবাড়ির ভোগ, বিকেলের প্যাকেজে দেওয়া হবে মুখরোচক খাবার। সকালে প্যাকেজ জনপ্রতি ১৫০০ টাকা, বিকেলের প্যাকেজ জনপ্রতি ১১৫০ টাকা।

৭) বিজয়ায় বিষ্ণুপুর ভ্রমণ

পুজো শেষের বিষাদ কাটাতে চলুন বিষ্ণুপুর। দু’রাত তিনদিনের এই প্যাকেজটি শুরু ৩০ সেপ্টেম্বর। যাওয়া হবে জয়রামবাটি, কামারপুকুর, বিষ্ণুপুর এবং মুকুটমনিপুর। রাত্রিবাস বিষ্ণুপুর টুরিস্ট লজে। এসি ঘরের জন্য জনপ্রতি ৫০০০ টাকা, নন-এসির জন্য ৪৫০০ টাকা। দেওয়া হবে প্রাতঃরাশ।

৮) গঙ্গাবক্ষে বিসর্জন

২ অক্টোবর অর্থাৎ দ্বাদশীর দিন দুটি প্যাকেজ করেছে পশ্চিমবঙ্গ পর্যটন। একটি সন্ধ্যা ৬ টা থেকে সাড়ে সাতটা, অপরটি রাত আটটা থেকে সাড়ে ন’টা। বাবুঘাট থেকে যাত্রা শুরু করে গঙ্গার কয়েকটি ঘাটি দেখিয়ে আবার বাবুঘাট ফেরা। জনপ্রতি সাতশো টাকা। দেওয়া হবে মুখরোচক খাবার।

বিশদ তথ্য এবং অনলাইনে বুক করার জন্য লগইন করুন নিগমের নতুন ওয়েবসাইট www.wbtdcl.com-এ।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here