৯১ হাজার ফ্রেশার নিয়োগ করতে পারে বৃহত্তম চার তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা

0

বেঙ্গালুরু: করোনাভাইরাস অতিমারি এবং লকডাউনের ধাক্কা কাটিয়ে ধীরে ধীরে আগের অবস্থায় ফিরছে ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি। সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, ২০২১-২২ অর্থবর্ষে প্রায় ৯১ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ করতে পারে টিসিএস, ইনফোসিস, এইচসিএল টেকনোলজিস এবং উইপ্রোর মতো বৃহত্তম তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলি।

চলতি আর্থিক বছরে ক্যাম্পাস থেকে নিয়োগে বড়োসড়ো প্রভাব ফেলেছে করোনা অতিমারি। যে কারণে চাহিদা বেড়েছে। সব মিলিয়ে আগের বছরের তুলনায় এ বার সরাসরি ক্যাম্পাস থেকে নিয়োগের সংখ্যাও অনেকটা বাড়তে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। কারণ, এ ধরনের অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানই ফ্রেশারদের সুযোগ দেয়।

টিএসএস (TCS)-এর এগজিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মিলিন্দ লক্কড় সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানান, সংস্থা এ বছরের মতো সামনের বছরেও একই সংখ্যক (প্রায় ৪০ হাজার) ফ্রেশার নিয়োগ করতে পারে।

ইনফোসিস (Infosys) জানিয়েছে, আগামী অর্থবর্ষে কলেজ থেকে স্নাতক পর্যায়ের ২৪ হাজার কর্মী নিয়োগ করা হতে পারে। যা চলতি বছরের থেকে প্রায় ১৫ হাজার বেশি।

এইচসিএল টেকনোলজিসের (HCL Technologies) মানবসম্পদ আধিকারিক আপ্পারাও ভিভি বলেছেন, একাধিক কারণে আগামী অর্থবর্ষে ফ্রেশার নিয়োগ বাড়তে পারে। সংস্থার পরিকল্পনা রয়েছে, ভারতে প্রায় ১৫ হাজার ফ্রেশার নিয়োগের। আবার অন-সাইটে দেড়-দু’হাজার কর্মী নিয়োগের চিন্তাভাবনাও রয়েছে।

অন্যদিকে উইপ্রো (Wipro) প্রত্যাশা করছে, তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে (IT sector) আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ‘প্রতিভা অন্বেষণের যুদ্ধ’-এর সূচনা হতে পারে। কারণ কয়েক মাসের বিরতির পর সংস্থাগুলি শেষ দু’টি ত্রৈমাসিকে কর্মী নিয়োগের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সংস্থার মানবসম্পদ আধিকারিক সৌরভ গোভিল জানান, পুরোটাই নির্ভর করছে চাহিদার উপর। শেষ কয়েক মাসে তাঁরা যে ভাবে নিয়োগ করছেন, তাতে আরও চাহিদা এবং সুযোগ বৃদ্ধিরই কথা।

আরও পড়তে পারেন: ডেটা এন্ট্রি অপারেটর চাইছে কলকাতা হাইকোর্ট, আবেদন জানাবেন কী ভাবে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন