Students

নয়াদিল্লি: সেন্ট্রাল বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশন (সিবিএসই) দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য পাশের নির্ণায়ক মান হ্রাস করল। বোর্ডের চেয়ারপার্সন অনিতা কারওয়াল বৃহস্পতিবার একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানান, এ বার থেকে দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য পাশের নির্ণায়ক মান হ্রাস করে তাদের স্বস্তি দিতে চাইছে বোর্ড।

আগামী বছর থেকেই চালু হওয়া ওই নিয়মে বলা হয়েছে, এ বার থেকে দশম শ্রেণিতে পাশের জন্য থিওরি এবং প্র্যাকটিক্যাল মিলিয়ে মোট ৩৩ শতাংশ নম্বর পেলেই কোনো পড়ুয়াকে ওই বিষয়ে পাশ হিসাবে গণ্য করা হবে। তবে আগামী ২০১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকে দশম শ্রেণির জন্য চালু হওয়া নতুন নিয়মের কথা জানানোর আগেই বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছিল, কোনো পড়ুয়াকেই থিওরি এবং প্র্যাকটিক্যালের জন্য পৃথক ভাবে পাশ-ফেল হিসাবে গণ্য করা হবে না।

বোর্ড জানায়,”পরীক্ষাগ্রহণের নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী পরীক্ষায় উপস্থিত সমস্ত পরীক্ষার্থীকে অভ্যন্তরীণ মূল্যায়ন এবং বোর্ড পরীক্ষায় পৃথক ভাবে পাশের জন্য মানদণ্ড থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। অভ্যন্তরীণ মূল্যায়ন এবং বোর্ড পরীক্ষায় প্রাপ্ত মিলিত নম্বর যদি ৩৩ শতাংশ হয়, তা হলে ওই পরীক্ষার্থী পাশে হিসাবে গণ্য হবে”। তবে কোনো পরীক্ষার্থী যদি অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নে অনুপস্থিত থাকেন, তা হলে তাঁর প্রাপ্ত মোট নম্বরকেই পাশে মাপকাঠি হিসাবে বিবেচনা করা হবে।

পাশাপাশি জানা গিয়েছে, আগামী ২০১৯ শিক্ষাবর্ষের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা ওই বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে গ্রহণ করা হবে। দিল্লি হাইকোর্টের একটি রায়ে বলা হয়, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনর্গত কলেজগুলিতে ভর্তির সময়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই বোর্ডের পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন