জানুয়ারি থেকেই প্রাথমিকে আসছে পঞ্চম শ্রেণি

0

কলকাতা: আগামী জানুয়ারি থেকেই প্রাথমিক স্তরে যুক্ত হতে চলেছে পঞ্চম শ্রেণি। এ ব্যাপারে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছিল আগেই। এ বার স্কুলের পরিকাঠামো দেখে দেখে তা ধাপে ধাপে কার্যকর করতে চায় সরকার। এ ছাড়াও বিষয় হিসাবে পাঠক্রমে যুক্ত হচ্ছে কমপিউটার।

জানুয়ারি থেকে পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণিতে পাশ-ফেল প্রথা চালু হচ্ছে। এখন পঞ্চম শ্রেণি রয়েছে মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের অধীনে। পাশ-ফেল প্রথা চালুর অঙ্গ হিসাবে পঞ্চম শ্রেণিকে প্রাথমিকে ফেরানোর পরিকল্পনা আগেই গ্রহণ করেছে সরকার। এখন স্কুলের পরিকাঠামো দেখে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা হবে।

বর্তমানে রাজ্যে প্রায় ৫৬ হাজার প্রাথমিক স্কুল রয়েছে। এর মধ্যে যে সমস্ত স্কুলে উপযুক্ত পরিকাঠামো রয়েছে, সে সবই স্কুল তাদের প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণি খোলার অধিকার পাবে।

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “এই বিষয়টি নিয়ে অনেক মদিন ধরেই ভাবছি। আপাতত প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণি যুক্ত হয়েছে ২ হাজার স্কুলে। পরিকাঠামো যাদের আছে, তাদেরই অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: আরটিআই নিয়ে ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের

বিকাশভবন সূত্রের খবর, কোন কোন সরকারি স্কুলের প্রাথমিকে পঞ্চম শ্রেণি খোলার মতো পরিকাঠামো রয়েছে, তাদের তালিকা করা হচ্ছে। যেখানে পরিকাঠামো নেই সেখানে অতিরিক্ত ক্লাসরুম তৈরি করা হবে এবং শিক্ষক নিয়োগ করা হবে।

সরকারের এই ঘোষণায় শিক্ষকমহলে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক স্বপন মণ্ডল বলেন, “এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। সর্ব ভারতীয় ক্ষেত্রে সামঞ্জস্য রাখতে এটার দরকার ছিল। কয়েক বছর আগেই চালু করলে ভালো হত।”

কলেজিয়াম অব অ্যাসিস্ট্যান্ট হেডমাস্টার্স অ্যান্ড হেডমিসট্রেসেস-এর তরফ থেকে বলা হয়েছে, অনেক জায়গার হাইস্কুলে পঞ্চম শ্রেণির পাঠ্যবই ইতিমধ্যেই পাঠানো হয়ে গিয়েছে। নামী স্কুলগুলি ভরতির জন্য তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে। এই অবস্থায় সরকারের এই সিদ্ধান্ত সমস্যা তৈরি করতে পারে।

পাশাপাশি রাজ্যের শিক্ষা দফতর আরও একটি সিদ্ধান্ত করেছে। তা হল, স্কুলের বিষয় হিসাবে এ বার আসবে কমপিউটার। ইতিমধ্যে স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে এ ব্যাপারে বৈঠক করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। কী ভাবে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া চালানো হবে, তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। নবম না একাদশ নাকি আরও আগে থেকেই কমপিউটার চালু হবে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.