উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্ট নিয়ে তুমুল বিক্ষোভ, অনুত্তীর্ণদের অভিযোগ জমা নেওয়ার কাজ শুরু করল সংসদ

0
[নম্বর কম, অভিযোগে পথ অবরোধ ছাত্রীদের। ফাইল ছবি]

খবর অনলাইন ডেস্ক: উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশের পরই জেলায় জেলায় বিক্ষোভে শামিল হয়েছে পরীক্ষার্থীদের একাংশ। অভিযোগ, মূল্যায়নের পদ্ধতি মেনে সঠিক নম্বর দেওয়া হয়নি তাদের। সেই অভিযোগের রেশ ধরেই রবিবার থেকে অনুত্তীর্ণদের অভিযোগ জমা নেওয়ার কাজ শুরু করল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশিত হওয়ার পরই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের একাধিক স্কুল পড়ুয়া ও অভিভাবকদের বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছিল। করোনা মহামারির জেরে বাতিল হয়েছিল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। তবে নির্দিষ্ট মূল্যায়ন পদ্ধতি বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। সেই পদ্ধতি মেনেই ফল প্রকাশ হয়েছে। যদিও তার পরেই রয়ে গিয়েছে ত্রুটি। একাংশের পড়ুয়ার দাবি, যে পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করে মার্কশিট তৈরি করা হয়েছে, তাতে আরও বেশি নম্বর পাওয়ার কথা তাঁদের।

Shyamsundar

বিষয়টি খতিয়ে দেখতে সংসদকে যথোপযুক্ত নির্দেশ দিয়েছিল রাজ্য সরকার। সেই নির্দেশ মেনেই অনুত্তীর্ণদের অভিযোগপত্র জমা নেওয়ার কাজ শুরু হল, যা চলবে ৭ দিন।

[রেজাল্ট নিয়ে অসন্তুষ্ট ছাত্ররা]

সংসদের সভাপতি মহুয়া দাস জানিয়েছেন, স্কুল মারফত অভিযোগ জানাতে হবে পরীক্ষার্থীদের। অর্থাৎ, সরাসরি সংসদে অভিযোগ জানালে চলবে না।

প্রসঙ্গত, এ বারের উচ্চ মাধ্যমিকে ৮ লক্ষ ১৯ হাজার ২০২ পরীক্ষার্থীদের মধ্যে পাশ করেছেন ৭ লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৮ জন। পাসের হার ৯৭.৬৯ শতাংশ। কিন্তু পরীক্ষাই যেখানে হল না, সেখানে পাশ-ফেল কী ভাবে আসে, সে প্রশ্নই তুলেছেন অনেকে।

উল্লেখ্য, পড়ুয়াদের দাবি যে খুব একটা অস্বাভাবিক ছিল না, কার্যত তা এ দিনই প্রমাণিত হয়েছে। হুগলি জেলার আরামবাগ গার্লস হাই স্কুল দাবি করেছিল, বিদ্যালয়ের ১৩৭ জন ছাত্রীর নম্বর কম এসেছে। রবিবার ১৩৭ জনেরই ফল সংশোধন হয়েছে। এ দিন স্কুলের তরফে ১৩৭ জনের হাতে সংশোধিত মার্কশিট তুলে দেওয়া হয়। ইতিমধ্যে ৪০টির বেশি স্কুলের তরফে অভিযোগ এসেছে।

আরও পড়তে পারেন: উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্টে নম্বর কম, পথ অবরোধে ছাত্রীরা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন