ফ্যাশন ডিজাইনিং

0
632
স্মিতা দাস

আজকের দিনে সব থেকে গ্ল্যামারাস আর আকর্ষণীয় পেশাগুলোর অন্যতম হল ফ্যাশান ডিজাইনিং।

ফ্যাশন ডিজাইনিং-এর মধ্যে রয়েছে ড্রেস ডিজাইন। টেক্সটাইল, গার্মেন্টস ফ্যাশন ডিজাইনিং আর অ্যাক্সেসারিস ডিজাইন ছাড়াও রয়েছে আরও অনেক কিছুই। পাশাপাশি রয়েছে ইন্টিরিয়ার ডিজাইনিংও।

কারা আসতে পারেন এই পেশায়?

যাঁরা শুধু সুন্দর পোশাকই পরতে না, পোশাক ডিজাইন করতেও পছন্দ করেন, যাঁদের মধ্যে রঙ, নকশা, আধুনিকতা, সৌন্দর্যের বিষয়ে বিশেষ জ্ঞান আছে বা রসবোধ আছে অথবা সাজপোশাক নিয়ে কল্পনাশক্তি তুখোড়, তাঁরাই এই পেশায় আসতে পারেন। আর সঙ্গে দরকার নিজের মনের ভাবকে এঁকে বোঝানোর ক্ষমতা।

এই পেশায় আসতে গেলে কী যোগ্যতা থাকা দরকার?

এই পেশার নানা রকমের কোর্স হয়। আন্ডারগ্র্যাজুয়েট, পোস্টগ্র্যাজুয়েট, সার্টিফিকেট কোর্স, ডিপ্লোমা কোর্স। আন্ডারগ্র্যাজুয়েট কোর্সের জন্য ১০+২ যোগ্যতা দরকার। পোস্টগ্র্যাজুয়েট কোর্সের জন্য গ্র্যাজুয়েট হতে হবে।

কোন কোন বিষয়ের ওপর কোর্স করানো হয়?

বিভিন্ন বিষয়ের ওপর এই ফ্যাশন ডিজাইনিং কোর্স করানো হয়।

  • অ্যাকসেসারিস ডিজাইনিং অ্যান্ড ফ্যাশন ডিজাইনিং
  • গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং টেকনোলজি
  • অ্যাপারেল মার্কেটিং আর মার্চেনডাইসিং
  • লেদার অ্যান্ড গার্মেন্ট ডিজাইনিং টেকনোলজি
  • নিটওয়্যার ডিজাইন টেকনোলজি
  • টেক্সস্টাইল ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট
  • ফ্যাশন জার্নালিজম অ্যান্ড প্রেজেনটেশন

এই কোর্স করতে গেলে খরচ কত?

মোটামুটি ভাবে দেড় লাখ থেকে চার লাখ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে। তবে তা নির্ভর করছে কী কোর্সে ভর্তি হবে তার ওপর। বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানেই পার্ট পেমেন্টের সুযোগ থাকে।

কোর্সের সময় সীমা কত?

কোনো কোর্স এক বছরের হয়ে থাকে। আবার তিন-চার বছরের কোর্সও আছে।

এই বিষয়ে কলকাতার কয়েকটি নামী প্রতিষ্ঠানের নাম –

এনআইএফডি

আইএনআইএফডি

গ্ল্যামার স্কুল অব ফ্যাশন অ্যান্ড ইন্টিরিয়ার

এ ছাড়াও শহরে ও শহরের বাইরে এই বিষয়ে পঠনপাঠনের বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান আছে। সেইগুলোতে যোগাযোগ করে ভর্তি হওয়া যেতে পারে। তার জন্য প্রয়োজনে ‘নেট সার্চ’ করে দেখে নিলে ভালো হয়।

বিশেষজ্ঞের সাক্ষাৎকার –

এই ব্যাপারে কথা বলেছিলাম আইএনআইএফডি-র মিথিলা রায় বর্ধন আর এনআইএফডি-র ঐন্দ্রিলা গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে।

আইএনআইএফডি-র মিথিলা রায় বর্ধন জানান, তাঁদের সংস্থায় উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর এই কোর্সে ভর্তি হওয়া যায়। ভর্তির বয়সসীমা কিছু নেই। এখানে ফ্যাশন ডিজাইনিং, ইন্টিরিয়ার ডিজাইনিং, টেক্সস্টাইল ডিজাইনিং-এর কোর্স করানো হয়। এক, দুই ও তিন বছরের কোর্স হয়। কোর্স অনুযায়ী ‘ফি’ আলাদা আলাদা হয়। সংস্থা শিক্ষার্থীদের জন্য বেশ কিছু বিশেষ সুবিধে দিয়ে থাকে। সব ধরনের কোর্সের জন্যই ওয়ার্কশপের ব্যবস্থা আছে। যাঁরা এই পেশায় আসতে ইচ্ছুক তাঁদের উদ্দেশে মিথিলা জানান, এই পেশার ভবিষ্যৎ খুবই আশাব্যঞ্জক। পেশার শুরুতেই প্রতি মাসে ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকার মাইনের চাকরি, তার পর অভিজ্ঞতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আয় আরও বাড়বে। ব্যবহারিক শিক্ষা যাতে হাতে কলমে হয় তার জন্য যাবতীয় সাহায্য সংস্থা করে থাকে। শুধু কলকাতায় বা অন্য রাজ্যে নয়, বিদেশেও ছাত্রছাত্রীদের পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়, সেখানে এক মাসের রেসিডেনশিয়াল কোর্সও করানো হয়।  কথা প্রসঙ্গে মিথিলা জানান, সংস্থার ছাত্রী নিশা সিং লন্ডন ফ্যাশন উইকের বিজেতা হয়েছেন। আগ্রহীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, যদি নিজের মধ্যে ‘ক্রিয়েটিভিটি ইনোভেশন পাওয়ার’ থাকে তা হলে এই পেশায় আসা যেতে পারে। তার জন্য যাবতীয় বিষয়ে সহযোগিতা ও দিকনির্দেশ করবেন তাঁরা।

এনআইএফডি-র ঐন্দ্রিলা গঙ্গোপাধ্যায় জানান, উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর এই কোর্সে ভর্তি হওয়া যায়। তবে ভর্তির বয়সসীমা কিছু নেই। এখানে ডিজাইনিং-এর বিভিন্ন কোর্স করানো হয়। কোর্স অনুযায়ী ‘ফি’ আর সময়সীমা আলাদা আলাদা হয়। খেপে খেপে ফি দেওয়ার সুবিধে আছে। কোর্স ফি নগদে বা ডিমান্ড ড্রাফট বা চেকেও দেওয়া যাবে। কোর্সের পরে নিজেদের প্রমাণ করার জন্য ছাত্রছাত্রীদের তাঁরা ল্যাকমে ফ্যাশন উইক, ফেমিনা মিস ইন্ডিয়ার মতো বড়ো ইভেন্টগুলোতে যাওয়ার সুযোগ করে দেন। এই প্রতিষ্ঠানের এমন অনেক ছাত্রছাত্রীই আছেন যাঁরা ফ্যাশন ডিজাইনিং-এর জগতে বর্তমানে সুপ্রতিষ্ঠিত। ঐন্দ্রিলা জানান, এই পেশা শুধু যে ‘গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড’-এর সঙ্গেই যুক্ত তা নয়, আজকাল প্রতি দিনের জীবনযাত্রায় এর প্রভাব খুবই। প্রায় প্রত্যেকেই চান সুন্দর সাজতে আর ঘরদোর সুন্দর করে সাজাতে। ফলে এই পেশার চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। তাই কাজের অভাব হবে না। পেশায় আসতে ইচ্ছুকদের উদ্দেশে ঐন্দ্রিলা বলেন, প্রত্যেকেই কর্মদক্ষতা আর কঠোর পরিশ্রম দিয়ে নিজের জীবন বদলে ফেলতে পারেন। কেউ খারাপ বা ভালো এমন হন না। প্রত্যেকের মধ্যেই লুকোনো কিছু প্রতিভা থাকে। সেই প্রতিভা কাজে লাগাতে হবে। আর সল্টলেকের এনআইএফডি সব সময় তাদের পাশে আছে স্বপ্ন পূরণের জন্য।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here