রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে পুরস্কার পেল গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি

0
GNIT foundation day
ভাষণ দিচ্ছেন জিআইএনটি-র অধ্যক্ষ ড. শান্তনু সেন।

ওয়েবডেস্ক: সম্প্রতি জেআইএস গোষ্ঠীর অগ্রণী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (জিএনআইটি) ১৭তম প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপিত হল। এই উপলক্ষ্যে ‘সবুজ বিপ্লব’ নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তাতে যোগ দেন ইউএনএফসিসি-র (ইউনাইটেড নেশনস ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন ক্লাইমেট চেঞ্জ) পুরস্কারপ্রাপ্ত ৪৭ জন ছাত্র। এঁরা গত এক বছর ধরে সবুজ বৃদ্ধির ব্যাপারে যে প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছেন, তারই স্বীকৃতিস্বরূপ পুরস্কার পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, ‘সবুজ’ নিয়ে কাজ করার জন্য ভারত থেকে গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে পুরস্কার পেয়েছে।   

আরও পড়ুন: মন্তেসরির জন্মদিনে জেআইএস গোষ্ঠীর ‘লিটল ব্রাইট স্টারস প্লে স্কুল’-এর পথ চলা শুরু

এই পুরস্কার প্রাপ্তিতে অত্যন্ত খুশি জেআইএস গোষ্ঠীর এমডি সর্দার তরনজিৎ সিং। তিনি বলেন, “পড়াশোনার বাইরে একটা আন্তর্জাতিক বিষয় নিয়ে কাজ করছে ছাত্ররা। ইউএনএফসিসি-র মতো একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার উৎসাহবর্ধক স্বীকৃতি ছাত্রদের ওই কাজে আরও উৎসাহ আর প্রেরণা জোগাবে।”

এই উপলক্ষ্যে জিএনআইটি-র অধ্যক্ষ ড. শান্তনু সেন বলেন, ইউএনএফসিসি-র মতো রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে ভারতে জিএনআইটি সম্মানজনক পুরস্কার পাওয়ায় তিনি গর্বিত ও খুশি। গত এক বছর ধরে প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা সবুজ বাড়ানোর জন্য যে প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে এই পুরস্কার তারই স্বীকৃতি।

ড. সেন জানান, ফুড টেকনোলজির তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সূর্যায়নী বিশ্বাস কলকাতা অঞ্চলের ফেজ ৮-এ রাষ্ট্রপুঞ্জের সবুজ বিপ্লব কর্মসূচির ‘ক্লাইমেট কাউন্সেলর’ নির্বাচিত হয়। তারই নেতৃত্বে প্রথম বর্ষ থেকে তৃতীয় বর্ষ পর্যন্ত ৪৭ জন ছাত্রছাত্রী দলগত ভাবে এবং ব্যক্তিগত ভাবে কাজ চালিয়ে গিয়েছে। এরা ড. সুচরিতা চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে কাজ করেছে আর এদের মেন্টর ছিলেন শান্তনু চক্রবর্তী।

জিএনআইটি-র প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষ্যে আরও বেশ কিছু কর্মসূচি পালন করা হয়। এর মধ্যে ছিল ‘জল বাঁচানো’র ডাক দিয়ে শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী এবং ছাত্রছাত্রীদের চার কিমি হাঁটা। এ ব্যাপারে সামাজিক চেতনা বাড়াতে গোবিন্দ কুমার হোম-এর অনাথ আবাসিকদের মধ্যে দেড়শো প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হয়। এর পর ইন্দিরা নগর প্রাইমারি স্কুলে গিয়ে সমাজের পিছিয়ে পড়া ছেলেমেয়েদের জন্য স্কুলের প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করে জিএনআইটি-র ছাত্রছাত্রীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.