Connect with us

রাজ্য

রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে পুরস্কার পেল গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি

Published

on

GNIT foundation day

ওয়েবডেস্ক: সম্প্রতি জেআইএস গোষ্ঠীর অগ্রণী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (জিএনআইটি) ১৭তম প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপিত হল। এই উপলক্ষ্যে ‘সবুজ বিপ্লব’ নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তাতে যোগ দেন ইউএনএফসিসি-র (ইউনাইটেড নেশনস ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন ক্লাইমেট চেঞ্জ) পুরস্কারপ্রাপ্ত ৪৭ জন ছাত্র। এঁরা গত এক বছর ধরে সবুজ বৃদ্ধির ব্যাপারে যে প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছেন, তারই স্বীকৃতিস্বরূপ পুরস্কার পেয়েছেন।

উল্লেখ্য, ‘সবুজ’ নিয়ে কাজ করার জন্য ভারত থেকে গুরু নানক ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে পুরস্কার পেয়েছে।   

আরও পড়ুন: মন্তেসরির জন্মদিনে জেআইএস গোষ্ঠীর ‘লিটল ব্রাইট স্টারস প্লে স্কুল’-এর পথ চলা শুরু

এই পুরস্কার প্রাপ্তিতে অত্যন্ত খুশি জেআইএস গোষ্ঠীর এমডি সর্দার তরনজিৎ সিং। তিনি বলেন, “পড়াশোনার বাইরে একটা আন্তর্জাতিক বিষয় নিয়ে কাজ করছে ছাত্ররা। ইউএনএফসিসি-র মতো একটি আন্তর্জাতিক সংস্থার উৎসাহবর্ধক স্বীকৃতি ছাত্রদের ওই কাজে আরও উৎসাহ আর প্রেরণা জোগাবে।”

এই উপলক্ষ্যে জিএনআইটি-র অধ্যক্ষ ড. শান্তনু সেন বলেন, ইউএনএফসিসি-র মতো রাষ্ট্রপুঞ্জের সংস্থার কাছ থেকে ভারতে জিএনআইটি সম্মানজনক পুরস্কার পাওয়ায় তিনি গর্বিত ও খুশি। গত এক বছর ধরে প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা সবুজ বাড়ানোর জন্য যে প্রচেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে এই পুরস্কার তারই স্বীকৃতি।

ড. সেন জানান, ফুড টেকনোলজির তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সূর্যায়নী বিশ্বাস কলকাতা অঞ্চলের ফেজ ৮-এ রাষ্ট্রপুঞ্জের সবুজ বিপ্লব কর্মসূচির ‘ক্লাইমেট কাউন্সেলর’ নির্বাচিত হয়। তারই নেতৃত্বে প্রথম বর্ষ থেকে তৃতীয় বর্ষ পর্যন্ত ৪৭ জন ছাত্রছাত্রী দলগত ভাবে এবং ব্যক্তিগত ভাবে কাজ চালিয়ে গিয়েছে। এরা ড. সুচরিতা চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে কাজ করেছে আর এদের মেন্টর ছিলেন শান্তনু চক্রবর্তী।

জিএনআইটি-র প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষ্যে আরও বেশ কিছু কর্মসূচি পালন করা হয়। এর মধ্যে ছিল ‘জল বাঁচানো’র ডাক দিয়ে শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী এবং ছাত্রছাত্রীদের চার কিমি হাঁটা। এ ব্যাপারে সামাজিক চেতনা বাড়াতে গোবিন্দ কুমার হোম-এর অনাথ আবাসিকদের মধ্যে দেড়শো প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হয়। এর পর ইন্দিরা নগর প্রাইমারি স্কুলে গিয়ে সমাজের পিছিয়ে পড়া ছেলেমেয়েদের জন্য স্কুলের প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করে জিএনআইটি-র ছাত্রছাত্রীরা।

রাজ্য

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্য জুড়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি!

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্য জুড়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হলুদ সতর্কতা জারি করেছে। দক্ষিণের তুলনায় উত্তরবঙ্গে বেশি বৃষ্টি হতে পারে। নদীগুলির জলস্তর বৃদ্ধির পাশাপাশি আশঙ্কা রয়েছে দার্জিলিং এবং কালিম্পঙের পার্বত্য এলাকায় ধস নামার।

রবিবার সকাল থেকেই কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলিতে আকাশ মেঘলা করে আসে।  কলকাতা-সহ অন্যান্য জেলায় বৃষ্টিও হয়। দিনের সারাটা দিনই কখনও আলো, কখনও আবার আকাশের মুখ ভার।

আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের জেরে রবিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত রাজ্য ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার ও কালিম্পং জেলা প্রশাসনকে পৃথক ভাবে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। রবিবার থেকে এই জেলাগুলিতে বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে। পরের দিন তা আরও বাড়তে পারে। অন্য দিকে মালদহ, দুই দিনাজপুরেও বৃষ্টি হবে।

অন্য দিকে  বীরভূম, পূর্ব-পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া ও পুরুলিয়া জেলাতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়দার আল্টিমা জানিয়েছে, উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপটির প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তো রয়েছেই। এর পাশাপাশি, কলকাতা, দুই ২৪ পরগণা, নদিয়া, পূর্ব বর্ধমানে বিক্ষিপ্ত ভাবে অতি ভারী বৃষ্টিও হতে পারে। প্রবল বর্ষণের ফলে কলকাতা জলমগ্ন হতে পারে।

এমনিতে এ বার সেপ্টেম্বরের শুরু থেকে বঙ্গোপসাগরে একটাও নিম্নচাপ তৈরি হয়নি। নিম্নচাপের এই অভাবের ফলে এই মাসের দক্ষিণবঙ্গে গড় বৃষ্টিও হয়েছে স্বাভাবিকের তুলনায় বেশ কিছুটা কম। অন্য দিকে ক্রমশ বেড়েছে অস্বস্তিকর গরম।

তবে কলকাতায় ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস এখনও পর্যন্ত না থাকলেও উপকূলীয় জেলাগুলিতে হাওয়ার গতিবেগ বেশি থাকার কথা বলা হয়েছে। রবিবার বিকেল থেকেই সমুদ্র উপকূলের জেলাগুলিতে ৪০-৪৫ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। যে কারণে মৎস্যজীবীদের রবিবার বিকেলের মধ্যে গভীর সমুদ্র থেকে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্য দিকে মঙ্গলবার পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

Continue Reading

রাজ্য

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

আগামী ২৯ ও ৩০ সেপ্টেম্বর সেখানে যেতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী।

Published

on

mamata banerjee
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: আগামী সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) উত্তরবঙ্গ সফরের কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু খারাপ আবহাওয়ার কারণে সেই সফরসূচি পিছিয়ে যাচ্ছে বলে প্রশাসনিক সূত্রে খবর।

করোনা আবহে দীর্ঘ ছ’মাস পরে ফের জেলায় গিয়ে উন্নয়নমূলক কাজকর্ম খতিয়ে দেখতে উত্তরবঙ্গ যাওয়ার নির্ঘণ্ট স্থির হয়েছিল। জানা গিয়েছিল, পাঁচটি জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে অংশ নেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বাদ সাধল খারাপ আবহাওয়া।

সরকারি ভাবে ঘোষণা না করা হলেও সূত্রের খবর, আগামী ২৯ ও ৩০ সেপ্টেম্বর সেখানে যেতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী।

এমনিতে করোনা আবহে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের গতি স্থিমিত হয়ে পড়েছে। তার পরেও বিকল্প উপায়ে কাজে গতি ফেরানোর চেষ্টা চলছে। এমন পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী যদি উত্তরবঙ্গের পাঁচটি জেলায় নিজে গিয়ে সেই সমস্ত কাজের তদারকি-পর্যালোচনা করেন, তা হলে গতি আরও বাড়বে বলেই ধারণা করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

করোনা সংকটে গত ২৪ আগস্ট থেকে ৯টি জেলার প্রশাসনিক প্রধানদের নিয়ে দু’দিনের ভার্চুয়াল পর্যালোচনা বৈঠক বা রিভিউ মিটিং করেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রথম দিন চারটি জেলা- হুগলি, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পরের দিন ছিল পাঁচটি জেলা- পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান। ওই সময় তিনি জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তিনি ফের জেলা সফরে যাবেন।

আরও পড়তে পারেন: মেলেনি সদর্থক ইঙ্গিত, কর্মবিরতির মেয়াদ বাড়াল জিটিএ-র কর্মী সংগঠন

সেই মতোই ২১ সেপ্টেম্বর থেকে তাঁর উত্তরবঙ্গ সফরের সূচি তৈরি হয়। কিন্তু পরবর্তী কয়েক দিন নিম্নচাপ এবং ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকায় মুখ্যমন্ত্রীর সফর নিয়ে ঝুঁকি নিতে চাইছে না প্রশাসন।

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

সুন্দরবন সেই তিমিরেই! ৫টি দ্বীপে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিল ‘গড়িয়া সহমর্মী’

বাতাসে যখন পুজোর গন্ধ, তখন কেমন আছেন কুমিরমারি, মোল্লাখালি, সাতজেলিয়া, রাঙাবেলিয়া, লাহিড়ীপুরের অসহায় আত্মজনেরা?

Published

on

সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ 'সহমর্মী'র তরফে।

সুব্রত গোস্বামী

“কস্তুরী-মৃগের নিজের দেহের মধ্যেই আছে কস্তুরী আবাস। কিন্তু সে মনে করে যে কস্তুরীর সুগন্ধ বাইরে থেকে ভেসে আসছে। তাই সে অস্থিরভাবে চারিদিকে ঘুরে বেড়ায়।”

এই প্রতিবেদন লেখার সময় মনে হল, সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণের এই কথাই এই প্রতিবেদনের সূচনামুখ হিসাবে সুপ্রযুক্ত। আসলে মানুষের হৃদয়ের মধ্যেই আছেন ঈশ্বর/আল্লা/যিশু। কিন্তু আমরা এই ঈশ্বরের আরাধনা না করে মন্দির, মসজিদ, গির্জায় ঘুরে বেড়াই পরমেশ্বরের সন্ধানে।

এই ঈশ্বরের আরাধনায় ‘গড়িয়া সহমর্মী’ শনিবার আবার পৌঁছে গিয়েছিল সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে। এই নিয়ে বেশ কয়েক বার ‘সহমর্মী’ পৌঁছে গেল সুন্দরবনে। বাতাসে যখন পুজোর গন্ধ, তখন কেমন আছেন কুমিরমারি, মোল্লাখালি, সাতজেলিয়া, রাঙাবেলিয়া, লাহিড়ীপুরের অসহায় আত্মজনেরা?

‘সহমর্মী’র ৩৫ জন ক্যাডেট আগের দিন রাতেই পৌঁছে গিয়েছিলেন গদখালি। সেখান থেকে শনিবার ভোরে ৪টি লঞ্চে ১৮৫৬৪ কিলো খাদ্যসামগ্রী নিয়ে রওনা হয়ে যান সুন্দরবনের ৫টি দ্বীপের উদ্দেশে। সেই সব দ্বীপে পৌঁছে দেখা গেল, ঘূর্ণিঝড় উম্পুন এবং সেই সঙ্গে করোনার কারণে টানা লকডাউন, এই জোড়া আঘাতের ঘা এখনও দগদগে সুন্দরবনের শরীরে।

অসহায় আত্মজনের হাতে তুলে দেওয়া হল খাদ্যসামগ্রী।

যতই আশ্বিন আসুক, ভোরে শিউলি ফুটুক, তাদের অবস্থার কোনো উন্নতি চোখে পড়ল না। একটু খাবারের জন্য ক্ষুধার্ত অসহায় আত্মজনেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জঙ্গলে যাচ্ছেন মাছ, মধু, কাঁকড়া সংগ্রহ করতে। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই বাঘ বা কুমিরের আক্রমণে জীবন হারাচ্ছেন এই মানুষেরা।

‘গড়িয়া সহমর্মী’র উদ্যোগে ও কগনিজ্যান্ট-এর (Cognizant) আর্থিক সহায়তায় এই সমস্ত অসহায় আত্মজনের হাতে তুলে দেওয়া হল খাদ্যসামগ্রী। ১৪২৮টি পরিবারের হাতে দেওয়া হল চাল, ডাল, আটা, তেল, চিনি, ছোলা, নুন, মশলা, চিঁড়ে ও সোয়াবিন।

দেবীপক্ষের শুরুতে এ ভাবেই ‘গড়িয়া সহমর্মী’ জীবন্ত ঈশ্বরদের চরণে নিবেদন করল পুজোর নৈবেদ্য। ‘মা’ সবাই কে ভালো রাখুন, রইল এই কামনা।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

জাতীয় গড়ের তুলনায় রাজ্যে সুস্থতার হার অনেকটাই বেশি, কেন্দ্রের প্রশংসা

Continue Reading
Advertisement
দেশ18 mins ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল?

corona
দেশ45 mins ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

রাজ্য1 hour ago

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

দেশ2 hours ago

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

দেশ4 hours ago

রাজ্যসভায় বিক্ষোভ, নাটকীয়তার মধ্যেই পাশ হল দু’টি কৃষি বিল!

দেশ5 hours ago

কৃষি বিল নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্যসভা, চরম বিশৃঙ্খলা

mamata banerjee
রাজ্য5 hours ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

দেশ6 hours ago

‘কৃষকের মৃত্যু পরোয়ানা’য় স্বাক্ষর করব না, রাজ্যসভায় কৃষি বিল নিয়ে বলল কংগ্রেস

দেশ9 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯২৬০৫, সুস্থ ৯৪৬১২

শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

কলকাতা2 days ago

কয়েকটি স্টেশনে ই-পাসের সংখ্যা বাড়াচ্ছে কলকাতা মেট্রো

Shreyas Iyer
ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

MS Dhoni
ক্রিকেট2 days ago

চেন্নাই সুপারকিংসের আদর্শ লাইনআপে কত নম্বরে ব্যাট করতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?

ishan porel mohammad shami
ক্রিকেট2 days ago

কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে নতুন বলে বাংলার দুই পেসার?

দেশ3 days ago

কৃষি বিপণন সংক্রান্ত বিলের বিরোধিতায় পদত্যাগ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

কলকাতা2 days ago

ট্যাক্সি চালকের হাতে হেনস্থা মামলায় আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি সাংসদ- অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

নজরে