সরকারি চাকরি: বিষয় যখন জেনারেল নলেজ

0

অভিজিৎ ব্যানার্জি

আগেই বলেছিলাম, প্রত্যেক দিন সংবাদপত্র পড়তে হবে এবং মাসিক ও সাপ্তাহিক চাকরির পরীক্ষার উপযোগী পত্রপত্রিকা পড়তে হবে। প্রথমে আমি দৈনিক সংবাদপত্র সম্পর্কে বলি। আমাদের সংবাদপত্র পাঠের উদ্দেশ্য থাকবে পরিসংখ্যান গ্রহণ করা বা ঘটনাটি সম্পর্কে জানা। যেমন, কোনও একটি ঘটনা ঘটলে সেই জায়গার নাম, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নাম আর বিষয়টি সম্পর্কে ধারণা। ‘ঘটনাটা ঘটা উচিত ছিল কি ছিল না’ — সেটা ভাববে তো অবশ্যই কিন্তু সাধারণ জ্ঞানের (জিকে) কথা মাথায় রেখে, কোনটুকু দরকার তা তোমাকে বুঝতে হবে। উদাহরণ দিই, ‘রানওয়েতে মোষের ধাক্কা, উড়ল না বিমান’ — এমন একটি খবর প্রকাশিত হয়েছিল ২০১৪-এর ৮ নভেম্বর। এই খবরটা থেকে জিকে-কে ‘তুলতে’ হলে তোমাকে ভাবতে হবে, কোথায় ঘটেছে ঘটনাটা (উত্তর, সুরাত বিমানবন্দরে)। বিমানটি ছিল স্পাইস জেটের বোয়িং বিমান। খবরে যদি মোষের নাম দেওয়া থাকে, তবে তা পড়তে হবে, কিন্তু মনে রাখার চেষ্টা করতে হবে না।

পুনরাবৃত্তি তো স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কৌশল। তুমি সংবাদপত্রে রোজ যে খবরগুলি পড়ছ, তার পর মাসিক পত্রিকাতে আবার ওই গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলির খবর এক জায়গায় পেয়ে গেলে এবং আবার পড়লে, তুমি রপ্তও করতে পারবে সহজে। বিদেশি নামের বানান, জায়গার বানানে সচেতন হবে। বিদেশি নাম কিন্তু আমাদের পক্ষে মনে রাখা অনেকটা শক্ত হয়। একটা বিষয় খেয়াল রাখবে, নামের বানানের ক্ষেত্রে আলাদা আলাদা হয়। বাংলায় বিদেশিদের নামের বানানগুলি বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় বিভিন্ন ভাবে লেখা হয়। মোটামুটি একটা ঠিক রেখে পড়বে, এ ক্ষেত্রে ইংরাজি বানানের সাহায্য নেবে।

সংবাদপত্রের পাশাপাশি নিয়মিত টিভির খবরও শুনতে হবে। তবে সে ক্ষেত্রে একাধিক চ্যানেলের সংবাদ দেখা উচিত।

জিকে রপ্ত করতে হলে তা হলে তোমাকে সংবাদপত্র, টিভি, সাপ্তাহিক ও মাসিক চাকরির পরীক্ষার পত্রপত্রিকার উপর নির্ভর করতে হবে। আর্থিক সাধ্যের মধ্যে কুলোলে যত পারো বই কিনবে। দিল্লি বা বাংলার যে পাবলিকেশন থেকেই কেন না কেন, ভুল কিন্তু বইগুলিতে আছে। তোমার পড়াশোনার পরিধি যদি বেশি হয়, তা হলেই ভুল উত্তর দেখলে তোমার খটকা লাগবে, নতুবা নয়। আর যদি কোনও শিক্ষকের সাহায্য নাও, তা হলে তিনি তোমাকে অনেকটা সাহায্য করতে পারবেন।

সম্প্রতি একটি মাসিক পত্রিকায় একটি প্র্যাকটিস সেটের উত্তর ভুল ছিল। যারা ওই উত্তরগুলো ঠিক ভেবে রপ্ত করছে, তাদের অবস্থা কী হবে। যদিও পরবর্তী সংখ্যায় উত্তর সংশোধন করেছে। এ রকম অনেক পত্রিকা/বই-এর ক্ষেত্রে হয়েছে। কেনার সময় বইটি বুঝে কিনবে। বাজারে বই বিক্রেতারা কমিশনের দিকে তাকিয়ে বাজে বইও বিক্রি করার চেষ্টা করে। বন্ধুদের বা অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করে বই কিনবে। নতুন জানা কোনও বই-এর তুলনায় আগে থেকে জানা বই কিনবে। জিকে-তে কিন্তু এক বার ভুল রপ্ত হয়ে গেলে মন থেকে সহজে বের করতে পারবে না। যা জানো অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করো। তারাও তোমার ভুল ধরিয়ে দেবে। বিদ্যা দান করো, তা হলে বাড়বে। আর বেশি বেশি পড়াশোনা করো।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন