১৩টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে ৭৮৮৩ ক্লার্ক নেওয়া হবে। ৩ অক্টোবরের মধ্যে www.ibps.in –এর মাধ্যমে দরখাস্ত জমা করতে হবে অনলাইনে।

প্রার্থী নেওয়ার জন্য যোগ্যতা যাচাইয়ের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হবে। তাতে সফল হলে পরবর্তী সময় এই ১৩টি ব্যাঙ্কের প্রয়োজন অনুযায়ী প্রার্থী নিয়োগ করা হবে।

তা হবে ‘কমন রিক্রুটমেন্ট প্রসেস ফর রিক্রুটমেন্ট অব ক্লার্কস ইন পার্টিসিপেটিং অর্গানাইজেশনস’–এর পরীক্ষা।

এই পরীক্ষা হবে অনলাইনে।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হবে ২০১৬ সালের ২, ৩, ৯, ১০ ডিসেম্বর।

মেন পরীক্ষা হবে ২০১৮ সালের ২১ জানুয়ারি।

ফল প্রকাশ হবে ২০১৮ সালের ১ এপ্রিল।

এই পরীক্ষা পরিচালনা করবে ইনস্টিটিউট অব ব্যাঙ্কিং পার্সোনেল সিলেকশন নামের স্বশাসিত সংস্থাটি।

পরীক্ষার পর সফল হলে একটা স্কোর কার্ড দেওয়া হবে। এই কার্ড পরবর্তী এক বছর বৈধ থাকবে।

যে রাজ্য থেকে পরীক্ষা দেওয়া হবে পরবর্তী সময়ে সেই রাজ্যেই শূন্য পদে নিয়োগ করা হবে। সুতরাং সেই রাজ্যের ভাষা লেখা, পড়া, বলার ক্ষমতা থাকতে হবে।

নিয়োগের আগে থাকবে গ্রুপ ডিসকাশন, ইন্টারভিউ ইত্যাদি।

এই ১৩টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের মধ্যে রয়েছে এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক, অন্ধ্র ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অব বরোদা, ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, ব্যাঙ্ক অব মহারাষ্ট্র, কানাড়া ব্যাঙ্ক, সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক, দেনা ব্যাঙ্ক, ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক, পঞ্জাব অ্যান্ড সিন্ধ ব্যাঙ্ক, ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, ইউকো ব্যাঙ্ক।

শিক্ষাগত যোগ্যতা

যে কোনো শাখায় স্নাতক, সঙ্গে কম্পিউটারের জ্ঞান বাধ্যতামূলক। কম্পিউটারের সার্টিফিকেট কোর্স, ডিগ্রি কোর্স, ডিল্পোমা কোর্স করা থাকতে হবে। অথবা স্কুলে বা কলেজে পড়ার বিষয় হিসেবে কম্পিউটার বা টেকনোলজি থাকতে হবে।

বয়স

২০১৭ সালের ১ সেপ্টেম্বরের হিসাবে ২০ থেকে ২৮ বছরের মধ্যে থাকতে হবে। তফশিলি জাতি ও উপজাতি ৫ বছর, ওবিসি ৩ বছর, দৈহিক প্রতিবন্ধী ১০ বছরের ছাড় পাবেন। বিধবা, ডিভোর্সি ও আইনত বিবাহবিচ্ছিন্ন মহিলারা ফের বিয়ে না করলে বয়সের ছাড় পাবেন ৯ বছর। প্রাক্তন সমরকর্মীরা নিয়মানুযায়ী ছাড় পাবেন।

পরীক্ষা পদ্ধতি

অনলাইনে প্রিলিমিনারি আর মেন পরীক্ষা থাকবে। প্রিলিমিনারিতে মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা। থাকবে ৩০ নম্বরের ইংরাজি ল্যাঙ্গুয়েজ, ৩৫ নম্বরের নিউম্যারিক্যাল এবিলিটি, ৩৫ নম্বরের রিজনিং এবিলিটি।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সময়সীমা ১ ঘণ্টা।

মেন পরীক্ষা হবে ২০০ নম্বরে। থাকবে ৬০ নম্বরের রিজনিং এবিলিটি ও কম্পিউটার  অ্যাপ্টিটিউট, ৪০ নম্বরের জেনারেল ইংরাজি, ৫০ নম্বরের কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপটিটিউট, ৫০ নম্বরের ফিনান্সিয়াল বা জেনারেল অ্যাওয়ারনেস।

মেন পরীক্ষার সময়সীমা ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট।

প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য নম্বর কাটা যাবে ০.২৫ করে।

উল্লেখ্য পশ্চিমবঙ্গের স্টেট কোড – ৪৬।

পশ্চিমবঙ্গের পরীক্ষাকেন্দ্র

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার জন্য কলকাতা (বৃহত্তর কলকাতা-সহ), আসানসোল, বর্ধমান, বহরমপুর, দুর্গাপুর, হুগলি, হাওড়া, কল্যাণী, শিলিগুড়ি।

মেন পরীক্ষার জন্য বৃহত্তর কলকাতা, হুগলি, কল্যাণী।

ফি দেওয়ার পদ্ধতি

৬০০ টাকা ফি দিতে হবে। তফশিলি, দৈহিক প্রতিবন্ধী, প্রাক্তন সমরকর্মীদের ১০০ টাকা। সঙ্গে যোগ হবে ব্যাঙ্ক ট্রানজ্যাকশন চার্জ। অনলাইনে ই-ব্যাঙ্কিং, ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, ক্যাশ কার্ড, মোবাইল-ওয়ালেট, ইমিডিয়েট পেমেন্ট সার্ভিসের মাধ্যমে ফি জমা করা যাবে।  ফে দেওয়ার পর পেমেন্ট রিসিপ্টের একটা প্রিন্ট আউট নিয়ে রাখতে হবে।

দরখাস্তের পদ্ধতি

অনলাইনে যাবতীয় তথ্য দিয়ে ‘সাবমিট’ করতে হবে। এর পর রেজিট্রেশন নম্বর আর পাসওয়ার্ড পাওয়া যাবে। সেগুলো লিখে রাখতে হবে।

দরখাস্ত করতে লাগবে

২০০x৩০০ পিক্সেলের ২০-৫০ কেবি সাইজের ফটো, কালো কালিতে করা সই। সই-এর সাইজ হবে ১৪০x৬০ পিক্সেলের ১০-২০ কেবি।

পূরণ করা দরখাস্তের প্রিন্ট নিতে হবে।

পরীক্ষা কেন্দ্রে ফি জমার রিসিপ্ট, পরীক্ষার কললেটার, সচিত্র পরিচয়পত্র নিয়ে যেতে হবে।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য ওয়েবসাইট দেখতে হবে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন