এ বার থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে প্রশ্নের পাশেই লিখতে হবে উত্তর

hs exam system
প্রশ্নপত্র আর উত্তরপত্র আলাদা, এই দৃশ্য আর দেখা যাবে না পশ্চিমবঙ্গের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায়। ছবি সৌজন্যে দ্য হিন্দুস্তান টাইমস।

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রশ্নপত্র আর বাড়ি নিয়ে যাওয়া যাবে না। ২০২০ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নের সঙ্গেই উত্তর লেখার জায়গা থাকবে। এই নয়া মডেলে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কোনো ভাবেই আর পরীক্ষাকেন্দ্রের বাইরে যাবে না। পরীক্ষার হলে উত্তর লিখতে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত কাগজও নিতে হবে না।

আরও পড়ুন বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস: আগামী দিন সত্যিই ভয়ঙ্কর!

উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের এই পরিকল্পনা আগেই ছিল। এ বার সেই পরিকল্পনা বাস্তবে রূপ পেতে চলেছে। আগামী বছর ১২ মার্চ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। তাতে পরীক্ষার্থীদের এই নয়া মডেলেই পরীক্ষা দিতে হবে। একটি বুকলেটেই প্রশ্নপত্র ও উত্তর লেখার জায়গা থাকছে। এই বুকলেটটির নাম ‘কোয়েশ্চেন কাম অ্যানসার বুকলেট’।

এত দিন পর্যন্ত পরীক্ষায় যে প্রশ্নপত্র দেওয়া হত তাতে এক দিকে মাল্টিপল চয়েস ও অন্য দিকে বর্ণনামূলক প্রশ্ন থাকত। আগামী বছর থেকে একটি বুকলেটেই প্রশ্ন থাকবে এবং উত্তর লেখার জায়গাও থাকবে। মাল্টিপল চয়েসের প্রশ্নের উত্তর লেখার নীচেও আলাদা ভাবে উত্তর লেখার জায়গা থাকবে।

সংসদ সভাপতি ড. মহুয়া দাস বলেন, “আমরা এমন একটি মডেল তৈরি করতে চাইছি যাতে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র বাইরে বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা না থাকে। উত্তর লেখার জন্য পরীক্ষার্থীদের আলাদা করে আর অতিরিক্ত কাগজও নিতে হবে না। এই অতিরিক্ত কাগজ অনেক সময় হারিয়ে যেত। এর ফলে পরীক্ষার্থীদের প্রতি অবিচারের অভিযোগ উঠত।”

শুধু তা-ই নয়, যে দিন পরীক্ষা হবে সে দিনই সংসদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রশ্নপত্র আপলোড করা হবে। পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সর্বভারতীয় বেশ কিছু পরীক্ষায় এই পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়। মধ্যশিক্ষা পর্ষদের মাধ্যমিক পরীক্ষার ক্ষেত্রে এই পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়। এই পদ্ধতি এ বার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় এল। সর্বভারতীয় পরীক্ষার সঙ্গে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার একটা সামঞ্জস্য রক্ষা করাও এই পদ্ধতি অবলম্বন করার অন্যতম উদ্দেশ্য বলে জানা গিয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.