কলেজে শিক্ষক নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার

0

কলেজে শিক্ষক ও গবেষক নিয়োগের কাজ শুরু করতে চলেছে রাজ্য সরকার। আগামী ৮ জানুয়ারি নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী স্টেট লেভেল এলিজিবিলিটি টেস্ট (স্লেট) পরীক্ষা হবে বলেই জানা গিয়েছে। 

কলেজ সার্ভিস কমিশন সূত্রে খবর, পরীক্ষা সুষ্ঠভাবে হওয়ার জন্য যাবতীয় যে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার সব আয়োজন করবে কলেজ সার্ভিস কমিশন।

আগামী বছরে স্লেটে বসতে চলেছেন প্রায় ৮৫ হাজার পরীক্ষার্থী। মোট ১১০টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা নেওয়া হবে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে পরীক্ষাকেন্দ্র হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছে। পরীক্ষাকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রার এবং কলেজের অধ্যক্ষ।

কমিশনের তরফে ২ জন করে অধ্যাপককে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষার প্রস্তুতির ব্যব্স্থাপনায় মোট ২২০ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া অধ্যাপক বা সহযোগী অধ্যাপকদেরও এই কাজে নিয়োগ করা হবে।

পরীক্ষা শুরুর আগে প্রশ্নপত্র যাতে ফাঁস না হয়ে যায়, সেই বিষয়ে বিশেষ নজরদারি থাকবে। এই ব্যাপারে পুলিশ-প্রশাশনের সাহায্য নেওয়া হতে পারে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্যেরা হবেন এগ্‌জিকিউটিভ অফিসার। তাঁদেরই নেতৃত্বেই পরীক্ষা প্রক্রিয়া চলবে জানানো হয়েছে। প্রশ্নপত্র খোলা থেকে বিতরণ সবই নির্দিষ্ট আধিকারিকদের তত্ত্বাবধানে হবে। প্রত্যেক পরীক্ষাকেন্দ্রকে কড়া নিরাপত্তার বেষ্টনীতে একেবারে মুড়ে ফেলা হবে। নিরাপত্তার জন্য কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব সিসিটিভি ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কলেজ সার্ভিস কমিশনের পাশাপাশি ইউজিসিরও পর্যবেক্ষক থাকবেন এই নিয়োগ পরীক্ষায়।

কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, ইউজিসির নির্দেশিকা মেনেই সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে। পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে যদি ইউজিসি বাড়তি কোনও নির্দেশিকা দেয় সেটাও মানা হবে বলে জানানো হয়েছে কমিশনের তরফে।

শিক্ষা ও কেরিয়ারের খবর পড়তে নজর রাখুন খবর অনলাইনে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন