ওয়েবডেস্ক: সরকারি স্কুলে শিক্ষকতার স্বপ্ন রয়েছে আপনার চোখে? তা হলে প্রথমেই জানতে হবে টিচার এলিজিবিলিটি টেস্ট বা টেটের সম্পর্কে। স্কুলে শিক্ষকতার জন্য এই ন্যূনতম যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষায় পাশ না করলে শিক্ষকতার চাকরি পাওয়া কোনোমতেই সম্ভব নয়।

প্রায় প্রতিটি রাজ্যের সরকার এবং কেন্দ্র সরকার নিজের মতো করে টেট পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে। প্রতি বছর সাধারণত এক বার করে এই পরীক্ষা গৃহীত হয়। তবে শূন্যপদের চাহিদা মেটাতে কোনো রাজ্য বছরে দু’বার পর্যন্ত টেটের আয়োজন করতে পারে। আবার কোনো কোনো রাজ্য দু’বছর অন্তর এক বার টেট নিয়ে থাকে।

প্রত্যেক রাজ্য তার নিজের টেট নেওয়ার ক্ষেত্রে নিজস্ব নাম ব্যবহার করে থাকে। যেমন পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে ডব্লিউবি টেট বা উত্তরপ্রদেশ ক্ষেত্রে ইউপি টেট পরীক্ষা ইত্যাদি। তবে নাম যাই হোক, প্রতিটিই শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষা।

সর্ব ভারতীয় স্তরে সিবিএসই যে টেট পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে সেটিকে বলা হয় সেন্ট্রাল টিচার এলিজিবিলিটি টেস্ট বা সিটিএটি। কেন্দ্রীয় বোর্ডের আওতাধীন যে কোনো স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষা এই সিটিইটি। আবার ক্ষেত্র বিশেষে রাজ্য সরকারও সিটিইটি থেকে শিক্ষক নিয়োগ করতে পারে।

ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর টিচার এডুকেশন (এনসিটিই) সমস্ত রাজ্যের টেট পরীক্ষার নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এনসিটিই-র নির্দেশিকা এবং পাঠক্রম মেনেই রাজ্য সরকারগুলি নিজস্ব রাজ্যের পরীক্ষা গ্রহণ করে থাকে।

টেটে ৬০ শতাংশ নম্বর পেলেই শিক্ষকতার যোগ্যতা অর্জন করা যায়। প্রথম বার পরীক্ষা দেওয়ার পর থেকে সাত বছর পর্যন্ত ওই যোগ্যতামান বৈধ থাকে। তবে নম্বর বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য কেউ যদি একাধিক বার পরীক্ষায় বসতে চান, তা হলেও কোনো বাধা নেই।

টেট পরীক্ষা নেওয়ার দু’টি স্তর রয়েছে

পেপার ১: প্রাইমারি লেভের (ক্লাস প্রথম থেকে পঞ্চম), এটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকতার জন্য (পিআরটি)

পেপার ২: উচ্চ প্রাথমিক স্তরের জন্য (পঞ্চম থেক অষ্টম)
যদি কোনো প্রার্থী পেপার ২-এ উত্তীর্ণ হন, তা হলে দু’টি স্তরেরই যোগ্যতা অর্জন করবেন।

সিটিএটি/টেট-এর পেপার ১-এর শর্তাবলি

উচ্চ মাধ্যমিক বা সমতুল্য পরীক্ষায় ৪৫ শতাংশ পাশ মার্ক এবং দু’বছরের এলিমেন্টারি এডুকেশনে ডিপ্লোমা/ চার বছরের এলিমেন্টারি এডুকেশনে স্নাতক(বি.ইএল.ইডি)/ স্পেশ্যাল এডুকেশন।

সিটিএটি/টেট-এর পেপার ২-এর শর্তাবলি

বিএ/বিএসসি/বিকম-এ স্নাতক এবং একটি দু’বছরের এলিমেন্টারি এডুকেশনে ডিপ্লোমা/ এলিমেন্টারি এডুকেশনে স্নাতক/ বিএড/ চার বছরের এলিমেন্টারি এডুকেশনে স্নাতক(বি.ইএল.ইডি)/ চার বছরের বিএসসি বা বিএ।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন