কেন্দ্রীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পদ শূন্য হওয়ার আগেই শিক্ষক নিয়োগ, নয়া পরিকল্পনা মন্ত্রকের

0

নয়াদিল্লি: দেশের কেন্দ্রীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে শিক্ষকদের শূন্যপদ বেশি দিন খালি রাখা যাবে না। শূন্য হওয়ার আগেই তা পূরণ করতে হবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত নির্দেশ জারির কাজ শুরু করেছে কেন্দ্রের শিক্ষামন্ত্রক।

মন্ত্রক সূত্রে খবর, কোনো অজুহাতেই উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের শূন্যপদ পূরণে বিলম্ব করা যাবে না। এর আগেও সমস্ত কেন্দ্রীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের শূন্য পদ দ্রুত পূরণের নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছিল। এই কাজের জন্য সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল চলতি বছরের ৩১ আগস্ট। এমনকী, সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে সমস্ত মন্ত্রক ও বিভাগেও শূন্যপদ পূরণের নির্দেশ দিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

মন্ত্রকের মতে, উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের অভাব শিক্ষানীতি বাস্তবায়নে বড়ো বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এই সমস্যার কথা বুঝে গত বছরই কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের শূন্য পদ পূরণের অভিযান শুরু করেছিল মন্ত্রক। শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান নিজেই সারা দেশের সমস্ত কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে সরাসরি এ বিষয়ে আলোচনা করেছিলেন।

কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী বলেছিলেন, তিন মাসের মধ্যে শূন্য পদে নিয়োগের বিজ্ঞাপন দিতে হবে। কিন্তু অনেক কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বক্ষণের উপাচার্য না থাকার কারণে বিষয়টি এখনও ঝুলে রয়েছে। সেই কাজে এখন নতুন করে গতি আনতে চাইছে মন্ত্রক। এখনও পর্যন্ত প্রায় সাড়ে আট হাজার শিক্ষক পদে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রকের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১১ হাজারের বেশি শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়ে রয়েছে। এর মধ্যে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়েই সাড়ে ছ’হাজার পদ শূন্য রয়েছে। পাশাপাশি আইআইটি-তে প্রায় ৪,৩০০ এবং আইআইএম-এ ৪২২টি পদও শূন্য। পরিস্থিতি এমন যে কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে শিক্ষকের মোট অনুমোদিত পদ প্রায় ১৯ হাজার, যেখানে আইআইটিগুলিতে তা ১১ হাজার এবং আইআইএম-এ প্রায় ১,৫০০।

শিক্ষামন্ত্রকের এক আধিকারিকের মন্তব্য উদ্ধৃত করে মিডিয়া রিপোর্টে বলা হয়েছে, দেশের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে শিক্ষকের সংখ্যা বাড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু বাস্তবে শূন্য পদ ফাঁকা পড়ে রয়েছে। ফলে শূন্য পদগুলো আগে পূরণ করতে হবে। নইলে পড়ুয়া-শিক্ষক অনুপাতে বড়োসড়ো ব্যবধান দেখা দিতে পারে।

আরও পড়তে পারেন:

ভোটের প্রচারে দেদার প্রতিশ্রুতির ভালো-মন্দ বিচারের দায় ভোটারদের, সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা কমিশনের

‘বিদেশি ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আবার শুরু স্বাধীনতা সংগ্রাম’, হারের পর এই প্রথম মুখ খুললেন ইমরান খান

প্রধানমন্ত্রিত্ব খুইয়েছেন ইমরান খান, শেহবাজ শরিফকে মনোনীত করল বিরোধী ঐক্য

বদলা নেব না, আইন আইনের পথে চলবে, বললেন সম্ভাব্য পরবর্তী পাক প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ  

মধ্যরাতের অনাস্থা ভোটে ইমরান সরকারের পতন, পাকিস্তানের নয়া প্রধানমন্ত্রী কে

ইতিহাস বজায় রেখে মেয়াদ শেষের আগেই ক্ষমতা খোয়ালেন ইমরান, অনাস্থা ভোটে পরাজিত প্রথম প্রধানমন্ত্রী তিনিই

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন