ক্যাম্পাসে লিঙ্গ বৈষম্য দূর করতে সক্রিয় বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়

0
3336

নিজস্ব সংবাদদাতা: কর্মক্ষেত্রে মহিলারা প্রায়ই যৌন হিংসার শিকার হন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও তাঁর বাইরে নয়। এই ধরনের অভিযোগ খতিয়ে দেখার জন্য সংস্থার অভ্যন্তরেই একটি কমিটি গড়া হয়ে থাকে। ২০১৩ সালে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে আভ্যন্তরীন কমিটি গঠন করা হলেও সেভাবে সক্রিয় ছিল না । নতুন উপাচার্য  আসার পর নতুন করে এই কমিটিকে কার্যকরী করার উদ্যোগ নিল বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়।

শুক্রবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলাপবাগ ক্যাম্পাসের হিউম্যানিটিজ বিল্ডিংয়ে একটি কর্মশালার আয়োজন করে এই কমিটি । ‘লিঙ্গ সাম্য : একটি সংবেদনশীল ক্যাম্পাসের লক্ষ্যে’ বিষয়ক এই কর্মশালার প্রধান অতিথি ছিলেন রাজ্য মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন সুনন্দা মুখোপাধ্যায় ।

কর্মশালায় তিনি বলেন, আইন অনুযায়ী যে কোনও প্রতিষ্ঠানে লিঙ্গ বৈষম্য বা যৌন হেনস্থার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে পারেন একমাত্র সেই প্রতিষ্ঠানের শীর্ষকর্তা । তাঁকেই ভাবনা-চিন্তা করে কমিটি গঠন করতে হবে । তবে, অনেকসময় কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে মনোমালিন্য দেখা যায় । এক্ষেত্রে আইনের ফাঁক থেকে যাচ্ছে বলে জানান তিনি ।

কমিটির প্রিসাইডিং অফিসার সৈয়দ তনভির নাসরিন জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবারের সদস্য যারা, সেইসব শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী এবং ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে এই কর্মশালাটির আয়োজন করা হয়েছিল । ক্যাম্পাসের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করে লিঙ্গ সাম্যতা প্রতিষ্ঠাই হল এই কর্মশালার মূল উদ্দেশ্য । পাশাপাশি, যদি কেউ লিঙ্গ বৈষম্য বা যৌন হেনস্থার শিকার হন তাঁরা এসে ‘ইন্টারনাল কমপ্লেইন্স’ কমিটিতে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন ।

আরও পড়ুন: প্রাইমারি টেট: বিষয় পরিবেশবিদ্যা

কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য নিমাইচন্দ্র সাহা, সহ-উপাচার্য ষোড়শী মোহন দাঁ , কলা বিভাগের অধ্যক্ষ সহ শিক্ষাকর্মী এবং ছাত্র-ছাত্রীরা ।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here